drunken man in metro

কলকাতা: বুধবার সকাল থেকেই একাধিক বিভ্রাটের সম্মুখীন হয়ে চলেছে মেট্রো এবং মেট্রো রেলের যাত্রীরা। তবে আগের দুটি ঘটনায় পরিষেবা বিপর্যয়ের সম্মুখীন হতে হলেও এ বার প্রশ্ন উঠে গেল মহিলা যাত্রীদের নিরাপত্তা নিয়ে।

প্রত্যক্ষদর্শীদের অভিযোগ, কবি সুভাষগামী মেট্রোয় মহিলা আসন খালি থাকায় সেখানে বসেন এক যুবক। কয়েক মুহূর্তেই বোঝা যায়, যুবকটি পূর্ণমত্ত অবস্থায় রয়েছে। যা দেখে অস্বস্তিতে পড়ে যান মহিলা যাত্রীরা। এর পরেই ওই যুবক অপ্রকৃতস্থ হয়ে পড়েন। তবে ট্রেন এসপ্ল্যানেড স্টেশনে পৌঁছালে নিরাপত্তারক্ষীরা তাঁকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

একই দিনে সকাল ৯ট১ ১৭ মিনিটে দমদম স্টেশনে লাইনে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন এক যুবক। সে সময় স্টেশনে ঢুকছিল কবি সুভাষগামী একটি ট্রেন। অন্য দিকে কবি নজরুল স্টেশনে মেট্রোর এসি রেকের দরজা বিকল হয়ে তৈরি হল সমস্যার।

এ দিন দমদম স্টেশনে সকাল সকাল আত্মহত্যার চেষ্টা করেন বছর তিরিশের এক যুবক। একটি ট্রেন তথন কবি নজরুলের উদ্দেশে আসছিল। তবে কিছুটা যাওয়ার পরই চালক ট্রেনটিকে থামিয়ে দেন। তৎক্ষণাৎ তিনি স্টেশনে খবরও দেন। ছুটে আসেন মেট্রো রেলের কর্মীরা। বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয় বিদ্যুৎ সংযোগ। প্রায় ঘণ্টাখানেকের চেষ্টায় ওই যুবককে উদ্ধার করেন তাঁরা।

যার জেরে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে ট্রেন চলাচল। বেশ কিছুক্ষণ গিরীশ পার্ক থেকে নোয়াপাড়া পর্যন্ত ট্রেন চলাচল বন্ধ না হলেও অনিয়মিত হয়ে পড়ে। মেট্রোর বিভিন্ন স্টেশনে দাঁড়িয়ে পড়ে ট্রেনগুলি। সাধারণ যাত্রীরা পড়েন সমস্যার মুখে।

[ আরও পড়ুন: দমদম গোরাবাজারে খুনের ঘটনায় উঠে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য ]

এর পরপরই দ্বিতীয় ঘটনাটি ঘটে কবি নজরুল স্টেশনে। সেখানে সকাল সাড়ে ১০টা নাগাদ কবি সুভাষ থেকে দমদমগামী একটি এসি ট্রেন কবি নজরুল স্টেশনের প্ল্যাটফর্মে ঢোকার পরই বিকল হয়ে যায়। কামরার ভিতরে এমার্জেন্সি বাদে সমস্ত আলো নিভে যায়, বন্ধ হয়ে যায় এসি। স্বাভাবিক ভাবেই বদ্ধ কামরায় আটকে পড়া যাত্রীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়ায়। পরে অবশ্য গার্ডের কামরা দিয়ে ওই যাত্রীদের নামিয়ে আনা হয়।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন