Connect with us

কলকাতা

ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর কৃতিত্বের দাবিদার কে?

ওয়েবডেস্ক: বৃহস্পতিবার রেলমন্ত্রী পীযুষ গয়ালের উপস্থিতিতে উদ্বোধন হল ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর প্রথম ধাপের। এ দিনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণপত্র ঘিরে ইতিমধ্যেই ব্যাপক জলঘোলা হয়েছে। সে সব এড়িয়ে উদ্বোধন হওয়ার পরপরই সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী প্রশ্ন তুললেন, “কারা যেন কৃতিত্ব দাবি করছে? কারা সৌজন্য দাবি করছে”?

সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পুরনো ছবি পোস্ট করেছেন সুজনবাবু। ক্যাপশনে লিখেছেন, “ছবিতে রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য, প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রণব মুখোপাধ্যায়, রাজ্যের প্রাক্তন ক্রীড়ামন্ত্রী-সহ আরও অনেকে। আর ছবিতে ফলকে লেখা ইস্ট -ওয়েস্ট মেট্রোর শিলান্যাস। কারা যেন কৃতিত্ব দাবি করছে? কারা সৌজন্য দাবি করছে? গণতন্ত্রে বিরোধী মত ও বিরোধী দলের গুরুত্ব কেন্দ্র রাজ্য সম্পর্ক এ সব অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। বিজেপি -তৃণমূল দুই দলই এসব মানে না”।

তবে এ দিনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কেন্দ্রীয় বন ও পরিবেশ রাষ্ট্রমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় এই প্রকল্পের কেন্দ্র-রাজ্য এবং মেট্রো কর্তৃপক্ষ মায় নির্মাণকর্মীদের ধন্যবাদ জানিয়ে রাজ্য সরকারের কোনো প্রতিনিধির অনুপস্থিতির বিষয়টিও ছুঁয়ে যান। তিনি বলেন, “এই প্রকল্পে প্রত্যেকেরই অবদান রয়েছে। রাজ্য সরকারের প্রতিনিধিরা এলে ভালো লাগত”।

pijush goyal

ঘটনায় প্রকাশ, বারাসত লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ কাকলি ঘোষদস্তিদার, বিধাননগরের বিধায়ক সুজিত বসু এবং বিধাননগর পুরসভার মেয়র কৃষ্ণা চক্রবর্তীর নাম থাকলেও আমন্ত্রণপত্রে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম ছিল না। এমনকী অনুষ্ঠান মঞ্চে তাঁর বসার জন্য কোনো নির্দিষ্ট আসনও রাখা হয়নি।

অন্য দিকে প্রকল্পের উদ্বোধন করে রেলমন্ত্রী বলেন, “আমি এই প্রকল্প সরোজিনী নায়ডুকে উৎসর্গ করছি। ভারতের প্রথম রাজ্যপাল ছিলেন সরোজিনী। ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর প্রথম ভাগ তাঁকেই উৎসর্গ করা হল”।

কলকাতা

অক্সিজেন সিলিন্ডার দিয়ে জানলার কাচ ভেঙে মেডিক্যালের কার্নিশে করোনা রোগী!

ওই করোনা রোগী উত্তর ২৪ পরগনার অশোকনগরের বাসিন্দা।

মেডিক্যালের সুপার স্পেশ্যালিটি বিল্ডিংয়ের চারতলায় এই ঘটনাটি ঘটেছে। প্রতীকী ছবি

কলকাতা: শনিবার সকালে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজের (Kolkata Medical Collage) চার তলা থেকে ঝাঁপ দেওয়ার চেষ্টা করলেন এক করোনাভাইরাস (Coronavirus) আক্রান্ত রোগী। তবে স্বাস্থ্যকর্মীদের তৎপরতায় ওই রোগীকে শেষপর্যন্ত ঝাঁপ দেওয়া থেকে বিরত করা হয়।

ঘটনায় প্রকাশ, সুপার স্পেশ্যালিটি বিল্ডিংয়ের চারতলায় এই ঘটনাটি ঘটেছে। সেখানেই ছ’নম্বর বেডে গত দু’সপ্তাহ ধরে ভরতি রয়েছেন ওই রোগী। অক্সিজেন সিলিন্ডার দিয়ে জানলার কাচ ভেঙে তিনি পৌঁছে গিয়েছিলেন কার্নিশে। লাফ দেওয়ার আগেই তাঁকে ধরে ফেলেন হাসপাতালের গ্রুপ ডি’র কর্মীরা। তাতেই অল্পের জন্য রক্ষা!

জানা গিয়েছে, ওই করোনা রোগী উত্তর ২৪ পরগনার অশোকনগরের বাসিন্দা। এর আগে আলিপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে তিনি ভরতি ছিলেন। সেখানেই তাঁর করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে।

চিকিৎসকেরা জানান, নিউমোনিয়া ফুসফুসে সংক্রমণ হয়ে তাঁর শারীরিক পরিস্থিতির অবনতি হচ্ছে। ওই বেসরকারি হাসপাতালে লক্ষাধিক টাকার বেশি বিল হওয়ায় তাঁকে শেষপর্যন্ত মেডিক্যালে স্থানান্তরিত করেন পরিবারের সদস্যরা।

সব মিলিয়ে মানসিক অবসাদ তাঁকে ঘিরে ধরেছে। যে কারণ অসংলগ্ন আচরণ করতে শুরু করেন বলেও জানা যায়।

এ ব্যাপারে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজের সুপার ইন্দ্রনীল বিশ্বাস জানান, হাসপাতালের তরফে ওই ব্যক্তির কাউন্সেলিং করা হয়েছে। পরিবারের লোকজনকেও খবর দেওয়া হয়েছে।

ঘটনার কথা জানার পর পরিবারের লোকজন এসে তাঁর সঙ্গে দেখা করেন। তাঁরা বলেন, রোগী হাসপাতালে থাকতে চাইছেন না। বাড়িতে পালিয়ে যাওয়ার জন্যই এই কাজ করেছিলেন।

অন্য দিকে হাসপাতালের পক্ষ থেকে জানানো হয়, উনি অনেকটাই সুস্থ হয়ে উঠেছেন। যে কারণে তাঁকে জেনারেল ওয়ার্ডে স্থানান্তর করা হয়েছে। এমনকী এই ঘটনার পর হাসপাতালে নিরাপত্তার বিষয়ে আরও জোর দেওয়া হচ্ছে। 

Continue Reading

কলকাতা

ঢাকায় পথদুর্ঘটনায় নিহত পর্বতারোহী, শোকস্তব্ধ কলকাতার পাহাড়প্রেমীরা

শুক্রবার সকাল ৯টা নাগাদ ঢাকায় সংসদ ভবন এলাকার চন্দ্রিমা উদ্যান সংলগ্ন লেক রোড দিয়ে সাইকেল চালিয়ে যাওয়ার সময় একটি গাড়ি তাঁকে চাপা দিয়ে চলে যায়।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: স্বপ্ন ছিল এভারেস্ট জয় করার। কিন্তু সে স্বপ্ন অধরা রেখেই অকালে চলে গেলেন বাংলাদেশের পর্বতারোহী রেশমা নাহার রত্না। ৩৩ বছর বয়সি রত্নার অকালমৃত্যুতে শোকস্তব্ধ কলকাতার পর্বতারোহীমহলও।

শুক্রবার সকাল ৯টা নাগাদ ঢাকায় সংসদ ভবন এলাকার চন্দ্রিমা উদ্যান সংলগ্ন লেক রোড দিয়ে সাইকেল চালিয়ে যাওয়ার সময় একটি গাড়ি তাঁকে চাপা দিয়ে চলে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় রত্নাকে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। 

ঘাতক গাড়িটিকে এখনও উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি।

পেশায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা ছিলেন রত্না। শিক্ষকতার পাশাপাশি পর্বতারোহণ ছিল তাঁর নেশা। গত বছর, উত্তরাকাশীতে নেহরু ইনস্টিটিউট অব মাউন্টেনিয়ারিং থেকে উচ্চতর পর্বতারোহণ কোর্স সম্পন্ন করেন।

২০১৬ সালে রত্নার অ্যাডভেঞ্চারের সূচনা হয় বাংলাদেশের কেওক্র্যাডং পাহাড় চূড়া (৩,২৩৫ ফুট) আরোহণ করে। এর পর তিনি পাড়ি জমান আফ্রিকায়। ২০১৮-এ আফ্রিকার সর্বোচ্চ শৃঙ্গ মাউন্ট কিলিমাঞ্জারো আরোহণ করেন তিনি। এর ঠিক পরেই আফ্রিকা মহাদেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ শৃঙ্গ মাউন্ট কেনিয়াও আরোহণ করেন তিনি।

গত বছর লাদাখে অবস্থিত স্টক কাঙরি (৬১৫৩ মিটার) এবং কাং ইয়াতসে-২ (৬২৫০ মিটার) সফল ভাবে আরোহণ করেন তিনি। তাঁর এ বার স্বপ্ন ছিল এভারেস্টের চূড়ায় পৌঁছোনো। কিন্তু সেই স্বপ্ন যে অধরা থেকে গেল, সেটাই ভেবে বিহ্বল হয়ে পড়ছেন কলকাতার পর্বতারোহীরা।

বাংলার প্রবীণা পর্বতারোহী দীপালি সিনহা তাঁর ফেসবুক পোস্টে লেখেন, “মেয়েটির সঙ্গে আমার খুব অল্প দিনের পরিচয়। সাক্ষাৎ হয়নি, কিন্তু বহু বহুক্ষণ ধরে ফোনে কথা হত, চ্যাট চলত। ওর টক-শো তে আমি অংশগ্রহণ করেছি, আমার টক-শো তে ও অংশগ্রহণ করেছে। সম্ভাবনাময় একটি প্রাণের মর্মান্তিক এই পরিণতি মেনে নিতে কষ্ট হচ্ছে। ওর আত্মার শান্তি কামনা করি।”

অন্য দিকে, পর্বতারোহী পিয়ালি বসাক তাঁর ফেসবুক পোস্টে লেখেন, “ভারতের পর্বতারোহীদের নিয়ে ওর (রত্না) খুব উৎসাহ ছিল, তাদের নিয়ে লাইভ প্রোগ্রামও করছিল। ভারতের মেয়ে পর্বতারোহীদের প্রতি বিশেষ উৎসাহ নিয়ে লাইভ প্রোগ্রাম শুরু করে, আমারও করেছিল, আরও করবে বলে বারে বারে বলত, আরও অন্যান্য পর্বতারোহীদেরও খোঁজ করত। মাত্র কয়েক দিনের পরিচয়ে ভীষণ আপন হয়ে গিয়েছিল, প্রথম দিন থেকেই আমার সাথে এমন ভাবে কথা বলছিল যেন কত দিনের চেনা।”

তিনি আরও লেখেন, “এত কম বয়সে কত কাজ কত স্বপ্ন অসম্পূর্ণ রেখে চলে গেলে। কিন্তু এত মানুষের ভালোবাসা তুমি পেয়েছ তাতে আমি সত্যিই অভিভূত। তাই বিশ্বাস আছে তোমার স্বপ্নগুলো পূরণ হবে, সবার ভালো বাসার মাঝেই তুমি বেঁচে থাকবে। এই ক’দিনের মাত্র পরিচয়, কিন্তু এই ঘটনার প্রভাব আমার জীবনটাকেও সারা জীবনের জন্য বদলে দিল।”

Continue Reading

কলকাতা

পিছু হঠল ট্যাক্সি সংগঠন, বাড়তি ভাড়া প্রত্যাহার

বাড়তি ভাড়া প্রত্যাহার করল ট্যাক্সি সংগঠনগুলি।

yellow taxi kolkata
প্রতীকী ছবি

কলকাতা: জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধি, করোনাভাইরাস সংকট-সহ একাধিক কারণকে সামনে রেখে ট্যাক্সির ভাড়া (Taxi fare) বাড়িয়ে দিয়েছিল বেশ কয়েকটি সংগঠন। তবে সরকারি নির্দেশিকা ছাড়াই এ ভাবে বাড়ানোর পদক্ষেপ থেকে শেষমেশ পিছিয়ে আসতে বাধ্য হল তারা।

গত সপ্তাহে বেঙ্গল ট্যাক্সি অ্যাসোসিয়েশন (BTA), ক্যালকাটা ট্যাক্সি অ্যাসোসিয়েশন-সহ তিনটি ট্যাক্সি ইউনিয়ন সিদ্ধান্ত নেয়, “১ আগস্ট থেকে ট্যাক্সিতে উঠলেই দিতে হবে ৫০ টাকা”।

সংগঠনগুলির দাবি, সরকারকে বারবার জানিয়েও কোনও লাভ হয়নি। এই ভাড়ায় গাড়ি চালানো সম্ভব নয়। তাই ভাড়া বাড়াতেই হতো। ফলে ট্যাক্সিতে উঠলেই এখন যেখানে যাত্রীকে ৩০ টাকা গুনতে হয়, সেখানে খরচ করতে হবে ৫০ টাকা। তবে সেই পদক্ষেপ থেকে আপাতত পিছু হঠল সংগঠনগুলি।

তবে সরকার বিষয়টিকে প্রাথমিক ভাবে খুব একটা গুরুত্ব দিতে দেয়নি। কিন্তু পর পরিবহণ দফতর জানায়, এ ভাবে সরকারের নির্দেশিকা ছাড়া ভাড়া বাড়ানো যায় না। বেআইনি ভাবে অতিরিক্ত ভাড়া নিয়ে গাড়ি চালালে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার কথাও স্মরণ করিয়ে দেওয়া হয়।

ভাড়া বাড়ানোর কারণ হিসাবে ব্যাপারে বেঙ্গল ট্যাক্সি অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি বিমল গুহ বলেছিলেন, “নিত্যদিন পেট্রো পণ্যের মূল্যবৃদ্ধির কারণে পুরনো ভাড়াতে ট্যাক্সি চালানো অসম্ভব। এভাবে চলতে থাকলে গণআত্মহত্যার পথে হাঁটতে হবে চালকদের, এটা আমরা আগেই বলেছিলাম। কিন্তু সরকারের কোনও হেলদোল নেই। আমরা বারবার বলেও কোনও লাভ হয়নি। তাই আমরাই ভাড়া বাড়িয়ে দিলাম”।

একই সঙ্গে তিনি জানান, “১ আগস্ট থেকে উঠলেই দিতে হবে ৫০ টাকা। কিলোমিটারে আগে ১৫ টাকা ছিল, সেটা এবার থেকে ২৫ টাকা হিসেবে নেওয়া হবে”। কিন্তু এর পরই দেখা যায়, ট্যাক্সি থেকে মুখ ফেরাচ্ছেন যাত্রীরা। স্বাভাবিক ভাবেই একাধিক কারণে পিছু হঠার সিদ্ধান্ত নিতে হল সংগঠনগুলিকে।

শুক্রবার তিনি বলেন, ‘‌‘‌সাধারণ মানুষের কথা ভেবে এই ভাড়া কমানো হল। তবে জ্বালানির দাম যে ভাবে বাড়ছে তাতে সমস্যায় সবাই।’‌’‌

প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবার নবান্নের সাংবাদিক বৈঠকে বেসরকারি বাস-মিনিবাসের কর মকুবের সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। বিস্তারিত পড়ুন এখানে ক্লিক করে: বেসরকারি বাস-মিনিবাসের একাধিক কর মকুব করল নবান্ন

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
শিক্ষা ও কেরিয়ার12 mins ago

সুইৎজারল্যান্ডে পড়াশোনায় আগ্রহী ভারতীয়দের সহায়তা দিতে ‘কুইন্টেসেনশিয়ালি’-এর সঙ্গে হাত মেলাল ‘লে রোসে’

রাজ্য5 hours ago

এই প্রথম রাজ্যে একদিনেই সুস্থ তিন হাজারের বেশি, নতুন আক্রান্তের সংখ্যা কিছুটা কম

ভিডিও5 hours ago

বেসরকারি হাসপাতালের অমানবিক আচরণের বিরুদ্ধে প্রয়োজনে গ্রেফতারির পরামর্শ নির্মল মাজির

ক্রিকেট7 hours ago

আমিরশাহিতে আইপিএল আয়োজনের অনুমতি দিল কেন্দ্র

দেশ8 hours ago

দেশে ট্রেন বাতিলের মেয়াদ বাড়ানো হল ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত

দেশ8 hours ago

কেরলে ভয়াবহ ধসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪৮

দেশ8 hours ago

রাজনীতি ছাড়লেন ২০১০-এর আইএএস পরীক্ষায় শীর্ষ স্থানাধিকারী কাশ্মীরি যুবক শাহ ফয়জল

দেশ8 hours ago

বৃষ্টির মধ্যে সাত ঘণ্টা ঠায় দাঁড়িয়ে ম্যানহোল পাহারা দিলেন মুম্বইয়ের পঞ্চাশোর্ধ্ব মহিলা

দেশ16 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৬২০৬৪, সুস্থ ৫৪৮৫৯

দেশ3 days ago

বিমান দুর্ঘটনা লাইভ: উদ্ধার ব্ল্যাক বক্স, উদ্ধারকারীদের কোয়ারান্টাইনে যাওয়ার নির্দেশ শৈলজার

কলকাতা3 days ago

ঢাকায় পথদুর্ঘটনায় নিহত পর্বতারোহী, শোকস্তব্ধ কলকাতার পাহাড়প্রেমীরা

বিনোদন2 days ago

২৮ দিন পর করোনা মুক্ত অভিষেক বচ্চন

দেশ2 days ago

“দুর্ঘটনা নয়, পরিকল্পিত খুন”, কোড়িকোড়ের ঘটনা নিয়ে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ এয়ার সেফটি এক্সপার্টের

দুর্গা পার্বণ3 days ago

মল্লিকবাড়ির ঠাকুরদালানে মা সিংহবাহিনীকে দর্শন করেই শ্রীরামকৃষ্ণ হয়েছিলেন সমাধিস্থ

বিনোদন2 days ago

হাসপাতালে ভরতি সঞ্জয় দত্ত, তবে করোনা নেগেটিভ

দেশ2 days ago

অন্ধ্রপ্রদেশের কোভিড কেয়ার সেন্টারে আগুন, মৃত বেড়ে ১১

রবিবারের খবর অনলাইন

কেনাকাটা

কেনাকাটা4 days ago

ঘর ও রান্নাঘরের সরঞ্জাম কিনতে চান? অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ৫০% পর্যন্ত ছাড়

খবরঅনলাইন ডেস্ক : অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ঘর আর রান্না ঘরের একাধিক সামগ্রিতে প্রচুর ছাড়। এই সেলে পাওয়া যাচ্ছে ওয়াটার...

কেনাকাটা4 days ago

এই ১০টির মধ্যে আপনার প্রয়োজনীয় প্রোডাক্টটি প্রাইম ডে সেলে কিনতে পারেন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : চলছে অ্যামাজনের প্রাইমডে সেল। প্রচুর সামগ্রীর ওপর রয়েছে অনেক ছাড়। ৬ ও ৭  তারিখ চলবে এই সেল।...

কেনাকাটা5 days ago

শুরু হল অ্যামাজন প্রাইম ডে সেল, জেনে নিন কোন জিনিসে কত ছাড়

খবরঅনলাইন ডেস্: শুরু হল অ্যামাজন প্রাইম ডে সেল। চলবে ২ দিন। চলতি মাসের ৬ ও ৭ তারিখ থাকছে এই অফার।...

things things
কেনাকাটা1 week ago

করোনা আতঙ্ক? ঘরে বাইরে এই ১০টি জিনিস আপনাকে সুবিধে দেবেই দেবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনা পরিস্থিতিতে ঘরে এবং বাইরে নানাবিধ সাবধানতা অবলম্বন করতেই হচ্ছে। আগামী বেশ কয়েক মাস এই নিয়মই অব্যাহত...

কেনাকাটা2 weeks ago

মশার জ্বালায় জেরবার? এই ১৪টি যন্ত্র রুখে দিতে পারে মশাকে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: একে করোনা তায় আবার ডেঙ্গুর প্রকোপ শুরু হয়েছে। এই সময় প্রতি বারই মশার উৎপাত খুবই বাড়ে। এই বারেও...

rakhi rakhi
কেনাকাটা3 weeks ago

লকডাউন! রাখির দারুণ এই উপহারগুলি কিন্তু বাড়ি বসেই কিনতে পারেন

সামনেই রাখি। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে মনের মতো উপহার কেনা একটা বড়ো ঝক্কি। কিন্তু সেই সমস্যা সমাধান করতে পারে অ্যামাজন। অ্যামাজনের...

কেনাকাটা3 weeks ago

অনলাইনে পড়াশুনা চলছে? ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ৪০ হাজার টাকার নীচে ৬টি ল্যাপটপ

ইনটেল প্রসেসর সহ কোন ল্যাপটপ আপনার অনলাইন পড়াশুনার কাজে লাগবে জেনে নিন।

কেনাকাটা3 weeks ago

করোনা-কালে ঘরে রাখতে পারেন ডিজিটাল অক্সিমিটার, এই ১০টির মধ্যে থেকে একটি বেছে নিতে পারেন

শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা বুঝতে সাহায্য করে এই অক্সিমিটার।

কেনাকাটা4 weeks ago

লকডাউনে সামনেই রাখি, কোথা থেকে কিনবেন? অ্যামাজন দিচ্ছে দারুণ গিফট কম্বো অফার

খবরঅনলাইন ডেস্ক : সামনেই রাখি। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে দোকানে গিয়ে রাখি, উপহার কেনা খুবই সমস্যার কথা। কিন্তু তা হলে উপায়...

laptop laptop
কেনাকাটা4 weeks ago

ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ২৫ হাজার টাকার মধ্যে এই ৫টি ল্যাপটপ

খবরঅনলাইন ডেস্ক : কোভিভ ১৯ অতিমারির প্রকোপে বিশ্ব জুড়ে চলছে লকডাউন ও ওয়ার্ক ফ্রম হোম। অনেকেই অফিস থেকে ল্যাপটপ পেয়েছেন।...

নজরে

Click To Expand