low pressure in bay of bengal
ওই আসে বৃষ্টি। নিজস্ব চিত্র

কলকাতা: তিন দিনের গরমের পরে অবশেষে স্বস্তির বৃষ্টি নামল শহর কলকাতায়। সেই সঙ্গে বিভিন্ন জায়গায় জল জমে যাওয়ায় সাধারণ মানুষের দুর্ভোগও হল। পশ্চিম মেদিনীপুরের চন্দ্রকোনায় বজ্রপাতে মৃত্যুর খবরও পাওয়া গিয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরে কলকাতার আকাশ কালো মেঘে ঢেকে যায়। দিনের বেলাতেই নেমে আসে অন্ধকার। তার পরেই শুরু হয় প্রবল বৃষ্টি। প্রথমে শহরের উত্তর এবং মধ্যাঞ্চলে বৃষ্টি দিয়ে পৌনে চারটে নাগাদ বৃষ্টি নামে দক্ষিণাংশে।

উল্লেখ্য, শনিবারের পর থেকেই শহরে বাড়ছিল পারদ। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৫ ডিগ্রি ছুঁয়েছিল। সেই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছিল আর্দ্রতাও। এ দিনের এই বৃষ্টি সেই গরম থেকে অনেকটাই স্বস্তি এনে দিল। যদিও শহরের বিভিন্ন জায়গায় জল দাঁড়িয়ে যাওয়ায় সাধারণ মানুষকে দুর্ভোগও পোহাতে হয়। কলকাতার পাশাপাশি উত্তর এবং দক্ষিণ ২৪ পরগণা, হাওড়া এবং হুগলি জেলাতেও ভালো বৃষ্টি হয়েছে। বিক্ষিপ্ত ভাবে ঝড়বৃষ্টি হয়েছে দক্ষিণবঙ্গের বাকি অঞ্চলেও। কোথাও কোথাও বাজও পড়েছে। বজ্রপাতে চন্দ্রকোনায় দু’জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে।

মঙ্গলবারের এই বৃষ্টির পেছনে গত কয়েক দিনের গরম অনেকটাই দায়ী বলে জানিয়েছেন বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা ওয়েদার আল্টিমার কর্ণধার রবীন্দ্র গোয়েঙ্কা। গত কয়েক দিন ধরে দক্ষিণবঙ্গে চড়া পারদের প্রভাবে এই অঞ্চলে ছোটো নিম্নচাপ বলয় তৈরি হয়েছে। সেই সঙ্গে পশ্চিমাঞ্চলের ওপর দিয়ে একটি মৌসুমি অক্ষরেখাও বিস্তার করছে। এর প্রভাবেই এই দিনের এই বৃষ্টি।

আগামী ৪৮ ঘণ্টা এ রকম আবহাওয়া থাকবে বলে জানিয়েছেন রবীন্দ্রবাবু। তবে বৃহস্পতিবার থেকে বৃষ্টির সম্ভাবনা কমতে পারে, এমনও পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন