kolkata rain
প্রতীকী ছবি

কলকাতা: শেষ বর্ষার বৃষ্টির চরিত্র অনেকটা এরকমই হয়। অল্প অঞ্চলে স্থানীয় বজ্রগর্ভ মেঘের সৃষ্টি হয়ে সেখানে ভাসিয়ে দেয়, তো অন্য জায়গায় মোটামুটি শুকনোই থাকে। ঠিক যেমনটা হল মঙ্গলবার দুপুরে। কলকাতার দক্ষিণের পাটুলি যখন আকাশভাঙা বর্ষণ হচ্ছে, তখন মধ্য কলকাতার ধর্মতলা কার্যত শুকনো।

মঙ্গলবার দুপুরে একটার পর থেকেই দক্ষিণপূর্ব কলকাতায় ঝেঁপে বৃষ্টি নামে। তার কিছুটা রেশ অবশ্য দক্ষিণ কলকাতার বালিগঞ্জে-গড়িয়াহাট অঞ্চলে পড়েছে। তবে পাটুলির বৃষ্টির কাছে সবাই হার মেনেছে। কলকাতা পুরসভার থেকে পাওয়া তথ্যে জানা গিয়েছে এ দিন এক ঘণ্টায় ৫০.২৯ বৃষ্টি হয়েছে পাটুলিতে। অন্যদিকে ঠিক এই সময়ে কোনো বৃষ্টিই হয়নি ধর্মতলায়।

অন্যদিকে আলিপুরে বৃষ্টি হয়েছে সাকুল্যে ২ মিমি। বালিগঞ্জে বৃষ্টি হয়েছে ৬ মিমি। আবার উলটোডাঙায় বৃষ্টির পরিমাণ ২২ মিমি। বৃষ্টির দাপট পাটুলির দিকেই বেশি থাকায় মূল কলকাতায় জলজমার সমস্যা তৈরি হয়নি। তবে মুহুর্মুহু বাজ চিন্তা বাড়িয়েছে সাধারণ মানুষের।

আরও পড়ুন ফের ভূমিকম্প, কাঁপল রাজ্যের কিছু অঞ্চল

কিন্তু কেন এরকম অদ্ভুত চরিত্র বৃষ্টির?

আসলে বর্ষার একদম শেষ লগ্নে এরকম চরিত্র অস্বাভাবিক কিছু নয়। বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা ওয়েদার আল্টিমা জানিয়েছে কিছুদিন আগে দক্ষিণবঙ্গে ব্যাপক বৃষ্টি দিয়ে বিদায় নিয়েছে ঘূর্ণিঝড় দায়ে। তারই ছেড়ে যাওয়া কিছু জলীয় বাষ্প রয়েছে। তার প্রভাবেই ছোটো ছোটো অঞ্চলে বজ্রগর্ভ মেঘ তৈরি হয় এবং সেটা খুব অল্প জায়গায় ভেঙে পড়ে। আগামী কয়েকদিন এরকম বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে এই আবহাওয়া সংস্থা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন