কলকাতা বিমানবন্দর থেকে যুদ্ধবিমানের মহড়া

0

ওয়েবডেস্ক: সাতসকালে দমদম বিমানবন্দরে হয়ে গেল সামরিক বিমানের মহড়া। জানা গিয়েছে, মূলত অসামরিক বিমান চলাচলের জন্য ব্যবহৃত দমদম বিমানবন্দরে যুদ্ধবিমানের মহড়ার কারণ ‘আপদকালীন পরিস্থিতি’র দিকে নজর রেখেই।

এ দিন দমদম বিমানবন্দরে তিনটি সুখোই-৩০ এমকেআই যুদ্ধবিমানকে একের পর এক উড়তে দেখা যায়। দেশের একাধিক জায়গা থেকে এই যুদ্ধবিমানগুলিকে কলকাতায় উড়িয়ে নিয়ে আসে ভারতীয় বায়ুসেনা। কী কারণে মহড়া?

বায়ুসেনা সূত্রে খবর, যুদ্ধ বাঁধলে কী ভাবে বিমানবন্দরকে ব্যবহার করা হতে পারে, তারই মহড়া দেওয়া হয় এ দিন। যদি কখনো যুদ্ধ বাঁধে তা হলে শত্রুপক্ষ অসামরিক বিমানবন্দরকেও নিশানা করতে পারে। সে সময় বিমানবন্দরকে কী ভাবে ব্যবহার করা হতে পারে, সে বিষয়েই এই মহড়ার আয়োজন। একই সঙ্গে বিমানবন্দরের কর্মীদের জন্যও বিশেষ প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

জানা গিয়েছে, মহড়ার জন্য বেছে নেওয়া হয়েছে উত্তর-পূর্ব ভারতের ছ’টি বিমানবন্দরকে। যেগুলির মধ্যে রয়েছে কলকাতার দমদম, পশ্চিম বর্ধমানের অন্ডাল, নাগাল্যান্ডের ডিমাপুর, মণিপুরের ইম্ফল, অসমের গুয়াহাটি এবং অরুণাচলপ্রদেশের পাসিঘাট।

১৬-১৯ অক্টোবর কলকাতা, অন্ডাল, গুয়াহাটি, ডিমাপুর, ইম্ফলে প্রথম দফার মহড়া হওয়ার কথা। এর পর ২৯ অক্টোবর-১ নভেম্বর অন্ডাল ও পাসিঘাটে দ্বিতীয় দফার মহড়া চলবে।

আরও পড়ুন: বিজিবির গুলিতে মুর্শিদাবাদের জলঙ্গিতে বিএসএফ জওয়ানের মৃত্যু ]

বর্তমানে এ রাজ্যের ব্যারাকপুর, হাসিমারা, কলাইকুণ্ডা এবং পানাগড়ে চারটি সামরিক বিমানঘাঁটি রয়েছে। এ দিন কলকাতা বিমানবন্দরের পর আগামী শুক্রবার থেকে পানাগড় বিমানঘাঁটিতে শুরু হচ্ছে ভারত-জাপান যৌথ মহড়া।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here