এনআরএস-কাণ্ডের জেরে আউটডোর পরিষেবা বন্ধ রাজ্যের সমস্ত মেডিক্যাল কলেজে

0

ওয়েবডেস্ক: রাজ্যজুড়ে সমস্ত মেডিক্যাল কলেজের আউটডোর পরিষেবা বন্ধ হয়ে গেল মঙ্গলবার। এনআরএস-কাণ্ডের জেরে ২ ঘণ্টার কর্মবিরতির ডাক দিয়েছিল জুনিয়র ডাক্তারদের সংগঠন। তবে বিকেল পাঁচটা বাজার পরেও ওই কর্মবিরতি চলতে থাকে। এনআরএস-এ যান কলকাতা পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মা। তাঁকে দেখে অবস্থানকারীরা স্লোগান তুলতে শুরু করেন। এর পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলে তিনি অবস্থানকারীদের সঙ্গে বৈঠক করেন। সদর্থক পদক্ষেপ নেওয়ার আশ্বাস দেন অনুজ।

সোমবার মধ্যরাতে রোগীমৃত্যুকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে ওঠেছিল নীলরতন সরকার হাসপাতাল। ঘটনায় প্রকাশ, জুনিয়র ডাক্তারদের সঙ্গে রোগীর পরিবারের হাতাহাতিতে রণক্ষেত্রে পরিণত হয় এনআরএস। মঙ্গলবার সকালেই হাসপাতালের মূল গেটে তালা লাগিয়ে দেন জুনিয়র ডাক্তাররা। বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন তাঁরা। তাঁদের দাবি, নিরাপত্তা যত ক্ষণ না সুনিশ্চিত করা হবে এই অবস্থান বিক্ষোভ তাঁরা চালিয়ে যাবেন।

এনআরএস হাসপাতালের আন্দোলনরত জুনিয়র ডাক্তারদের সমর্থনে এ দিন দুপুরে প্রতীকী আন্দোলনে যোগ দেন রাজ্যের সমস্ত মেডিক্যাল কলেজের জুনিয়র ডাক্তাররাও। তাঁরা এনআরএসের জুনিয়র ডাক্তারদের পাশে থাকার বার্তা দিয়েছেন। একই সঙ্গে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে সমস্ত মেডিক্যাল কলেজের আউটডোর পরিষেবা।

জানা গিয়েছে, রবিবার রাতে ট্যাঙরার বিবি বাগানের বাসিন্দা মহম্মদ সাহিদকে (৬৫) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
সাহিদকের পরিবারের অভিযোগ, সোমবার বিকেলের পর থেকে রোগীর শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়, চিকিৎসকদের ডাকাডাকি করলেও তারা কেউ সময় মতো আসেননি। পরিবারের কথায়, চিকিৎসকদের গাফিলতিতেই মৃত্যু হয়মহম্মদ সাহিদের।

[ ভাটপাড়া-সন্দেশখালির পর এ বার গলসি ]

প্রসঙ্গত, গত সোমবার গভীর রাত থেকে জুনিয়র ডাক্তারদের এই অবস্থান বিক্ষোভের কারণে হাসপাতালের পরিষেবা কার্যত স্তব্ধ হয়ে গিয়েছে। বন্ধ হয়ে যায় আউটডোর বন্ধ। ভোগান্তির শিকার দূরদুরান্ত থেকে আসা রোগীর পরিবাররা।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.