সাবধান হন! হোয়াটসঅ্যাপে করোনা সংক্রান্ত ভুয়ো খবর ছড়ালে আর পার পাবেন না

whatsapp
প্রতীকী ছবি

খবর অনলাইনডেস্ক: করোনাভাইরাসের (Coronavirus) আতঙ্কে ত্রস্ত রাজ্য। ভারতের বাকি অংশের থেকে পশ্চিমবঙ্গের অবস্থা ভালো হলেও স্বস্তি নেই, কারণ আক্রান্তের গ্রাফটা এ রাজ্যেও বাড়ছে। এরই মধ্যে আতঙ্ক তৈরি করছে হোয়াটসঅ্যাপে ছড়িয়ে পড়া নানা রকম খবর। এর মধ্যে বেশির ভাগ খবরই আবার ভুয়ো। ফলে মানুষের মধ্যে ওই সব খবর আতঙ্ক তৈরি করছে।

আবার অনেকেই সেই খবর অবিবেচকের মতোই অন্য গ্রুপে ফরওয়ার্ড করে দিচ্ছেন। লালবাজার (Lalbazar) সূত্রে জানা গিয়েছে, করোনাভাইরাস নিয়ে ভুয়ো খবর ছড়ানো ঠেকাতে এ বার থেকে শুধু যে পাঠাচ্ছে তাকেই নয়, হোয়াটসঅ্যাপের গ্রুপ-অ্যাডমিনদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ফলে বাড়তি সতর্ক থাকতে হবে অ্যাডমিনদেরও। এমনকি, আইন অমান্য করার অভিযোগে সেই অ্যাডমিনকে গ্রেফতারও করা হতে পারে বলে সূত্রের খবর।

কলকাতা পুলিশের (Kolkata Police) এক আধিকারিক জানিয়েছেন, ভুয়ো খবর ঠেকাতে মঙ্গলবারই লালবাজারে চার জন গ্রুপ-অ্যাডমিনকে ডেকে পাঠানো হয়, যাঁদের গ্রুপে করোনাভাইরাস নিয়ে ভুয়ো খবর পোস্ট করার অভিযোগ উঠেছিল। তদন্তকারীদের মতে, এ সব ক্ষেত্রে গ্রুপ-অ্যাডমিনরাও তাঁদের দায় এড়িয়ে যেতে পারেন না। হোয়াটসঅ্যাপে ভুয়ো খবর ছড়ানোর অভিযোগে গত কয়েক দিনে বেশ কয়েক জন গ্রুপ-সদস্যকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলেও এ বারই প্রথম ডেকে পাঠানো হল অ্যাডমিনদের।

পুলিশ কমিশনারের নির্দেশে লালবাজারের গোয়েন্দা বিভাগ এবং সাইবার অপরাধ দমন শাখা শহরের বিভিন্ন হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ এবং ফেসবুক পোস্টের উপরে নজরদারি শুরু করেছে। কয়েকটি দলে ভাগ হয়ে তারা ওই কাজ চালাচ্ছে। তাতেই ৫০টির বেশি এমন গ্রুপের সন্ধান মিলেছে, যেখানে ওই রকম ভুয়ো খবর পোস্ট করা হয়েছে।

আরও পড়ুন নতুন আর্থিক বছরের প্রথম দিনেও ভাইরাস ভয়ে কাহিল শেয়ার বাজার

উল্লেখ্য, গত শনিবার এবং সোমবার দুই মহিলাকে গ্রেফতার করেছে কলকাতা পুলিশ। এক জন ফেসবুকে এবং অন্য জন হোয়াটসঅ্যাপে করোনা সংক্রান্ত ভুয়ো খবর ছড়িয়েছিলেন। এর পর নিউটাউন থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে মুসলেম আলি মোল্লা ওরফে বাপন নামে আরও এক যুবককে। সব মিলিয়ে ভুয়ো খবর ঠেকাতে আটঘাট বেঁধেই নেমেছে লালবাজার।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.