রেড রোডে প্রস্তুতি। ছবি: রাজীব বসু।

নিজস্ব প্রতিনিধি: নির্ধারিত সময়ের এক মাস আগেই মহানগরী কলকাতায় শারদীয় উৎসব কার্যত শুরু হয়ে যাচ্ছে। আসন্ন দুর্গাপুজো উপলক্ষ্যে আজ বৃহস্পতিবার হাঁটবে কলকাতা। বাংলার দুর্গোৎসবকে ইউনেস্কো সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের যে স্বীকৃতি দিয়েছে, তাকে কুর্নিশ জানাতেই এ দিন মহামিছিলের আয়োজন করা হয়েছে।

২০২১ সালে ইউনেস্কো বাংলার দুর্গাপুজোকে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি দিয়েছে। তকমা দিয়েছে ‘ইনট্যানজিবল কালচারাল হেরিটেজ অব হিউম্যানিটি’র। ওই স্বীকৃতি দিয়ে ইউনেস্কো বলেছে, ধর্মীয় বাধা পেরিয়ে, দেশকাল নির্বিশেষে মানুষ দুর্গাপুজোয় শামিল হয়। এই স্বীকৃতিকে সম্মান জানাতেই বৃহস্পতিবার মিছিলের ডাক দেওয়া হয়েছে।

এ দিন দুপুরে জোড়াসাঁকোর ঠাকুরবাড়ির ফটক থেকে শুরু হবে ওই মিছিল। রেড রোড পর্যন্ত বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রার আয়োজন করেছে রাজ্য সরকার। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে এই পদযাত্রায় হাঁটবেন। পদযাত্রার শেষে রেড রোডে এক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। সেই অনুষ্ঠানে রাজ্য সরকারের তরফে ইউনেস্কোর প্রতিনিধিদের হাতে সম্মাননা তুলে দেওয়া হবে।

জোড়াসাঁকোয় মুখ্যমন্ত্রীর সভামঞ্চ পুলিশ-কুকুরকে দিয়ে পরীক্ষা করা হচ্ছে। ছবি: রাজীব বসু।

১ তারিখের অনুষ্ঠানে হাজির থাকার জন্য প্রতিনিধি পাঠাতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে ইউনেস্কোকে অনুরোধ করেন। মুখ্যমন্ত্রীর আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে প্রতিনিধি পাঠানোর কথা রাজ্যের মুখ্যসচিব হরেকৃষ্ণ ত্রিবেদীকে জানিয়েছে  ইউনেস্কো।

ইউনেস্কোর তরফে তাদের ভুটান, ভারত, মলদ্বীপ ও শ্রীলঙ্কার অধিকর্তা এরিক ফন্ট এবং ইউনেস্কোর ২০০৩ সালের ইনট্যানজিবল কালচারাল হেরিটেজ কনভেনশনের সচিব টিম কার্টিস এ দিনের পদযাত্রায় যোগ দেবেন।

এ দিনের পদযাত্রায় যোগ দেবেন কলকাতার নামকরা সর্বজনীন দুর্গাপুজোগুলির সদস্যরা। শিবমন্দির, বেলেঘাটা ৩৩ পল্লি, ট্যাংরা ঘোলাপাড়া পুজো কমিটি, খিদিরপুর ২৫ পল্লি, সিংহী পার্ক, বেহালা নতুন দল, খিদিরপুর পল্লি শারদীয়া ক্লাব, বোসপুকুর শীতলামন্দির, বাবুবাগান প্রভৃতি পুজো কমিটির সদস্যরা পদযাত্রায় যোগ দেবেন। নিজেদের মধ্যে কোনো প্রতিযোগিতা নয়, বাংলার সংস্কৃতিকে তুলে ধরার লক্ষ্যেই পদযাত্রায় তাঁরা শামিল হবেন বলে জানিয়েছেন পুজো কমিটির কর্মকর্তারা।

বৃহস্পতিবারের মিছিলকে কেন্দ্র করে মহনগরীর ভূপেন বোস অ্যাভিনিউ, যতীন্দ্রমোহন অ্যাভিনিউ, চিত্তরঞ্জন অ্যাভিনিউ, বিবেকানন্দ রোড, কালীকৃষ্ণ ঠাকুর স্ট্রিট, মহাত্মা গান্ধী রোড, বিপিনবিহারী গাঙ্গুলি স্ট্রিট, গণেশচন্দ্র অ্যাভিনিউ, সুরেন্দ্রনাথ ব্যানার্জি রোড, লেনিন সরণি, মেয়ো রোড, আউট্রাম রোড, রানি রাসমণি অ্যাভিনিউ, জওহরলাল রোড, ডাফরিন রোড, হসপিটাল রোড, লাভার্স লেন, খিদিরপুর রোড, নিউ রোড, এসপ্ল্যানেড ও এসপ্ল্যানেড ইস্টে যান নিয়ন্ত্রণ করা হবে বলে কলকাতা পুলিশ জানিয়েছে।

আরও পড়তে পারেন

পারিবারিক সম্পত্তি নিয়ে তদন্তের নির্দেশ, বেআইনি হলে বুলডোজার দিয়ে গুঁড়িয়ে দিতে বললেন মুখ্যমন্ত্রী

এপ্রিল-জুলাই মাসে ভারতের রাজস্ব ঘাটতি ৩.৪১ লক্ষ কোটি

কনস্টেবল নিয়োগের বয়সসীমা বাড়ল, পুজোর আগে পুলিশ কর্মীদের জন্য একগুচ্ছ ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন