২ পথচারীকে পিষে মারার অভিযোগে গ্রেফতার কলকাতার বিখ্যাত রেস্তোঁরা মালিকের ছেলে

0

ওয়েবডেস্ক: গত শুক্রবার রাত ২টো নাগাদ একটি মর্মান্তিক গাড়ি দুর্ঘটনা ঘটে কলকাতার লাউডন স্ট্রিটে, শেক্সপিয়র সরণি থানার কাছে। পুলিশ জানায়, ঘটনার সময় প্রায় ১০০ কিমি গতিবেগে চলছিল একটি জাগুয়ার গাড়ি, যা ধাক্কা মারে একটি মার্সিডিজকে। পরে হুড়মুড়িয়ে গিয়ে ধাক্কা লাগে একটি পুলিশ কিয়স্কে। ওই জাগুয়ার গাড়িটি চালাচ্ছিলেন আরসালান পারভেজ নামে এক বছর বাইশের যুবক।

গাড়িটি মিডলটন স্ট্রিট থেকে এসে লাউডন স্ট্রিটের সংযোগস্থলে একটি মার্সিডিজকে প্রচণ্ড গতিতে ধাক্কা মারে। জাগুয়ারের জোরালো ধাক্কায় দুমড়ে যায় মার্সিডিজের পেটের একাংশ। তার পর ধাক্কা মারে রাস্তার ধারের একটি পুলিশ কিয়স্ককে। প্রবল ধাক্কায় কিয়স্কটি হেলে পড়ে ফুটপাতের দিকে। দুর্ভগ্যক্রমে ওই কিয়স্কের পাশেই দাঁড়িয়ে ছিলেন ৩ জন। শুক্রবারের ভারীবর্ষণে বৃষ্টির হাত থেকে বাঁচার জন্যই হয়তো তাঁরা কিয়স্কের আড়ালে দাঁড়িয়েছিলেন বলে মনে করা হচ্ছে। গুরুতর আহত হন ওই ৩ জন।

এসএসকেএম হাসপাতালে তাঁদের নিয়ে যাওয়া হলে ২ জনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। ওই দুই ব্যক্তিই বাংলাদেশি। চিকিৎসা করাতে এদেশে এসেছিলেন তাঁরা। তাঁদের নাম কাজি মহম্মদ মইনুল আলম(৩৬) ও ফারহানা ইসলাম তানিয়া(২৮)। মইনুলের বাড়ি বাংলাদেশের ঝিনাইদহে। চাকরি করতেন গ্রামীণ ফোনে। অন্য দিকে, তানিয়া ছিলেন বাংলাদেশের সিটি ব্যাঙ্কের অ্যাসিস্ট্যান্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে।

আরও পড়ুন: হোটেলে ফেরার জন্য ট্যাক্সির অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে ছিলেন মইনুল-তানিয়া

ঘটনাস্থলে যাওয়ার পর শেক্সপিয়র সরণি থানার পুলিশ গাড়ির চালককে গ্রেফতার করে। দেখা যায় ধৃত যুবক আরসালান সংস্থার মালিকের ছেলে। ২০১৭ সালে রেজিস্ট্রেশন করানো হয় ওই জাগুয়ার গাড়িটির। অন্য দিকে মার্সেডিজটি এক তেল সংস্থার গাড়ি।

পুলিশ সূত্রে খবর,  পারভেজের বিরুদ্ধে বেপরোয়াভাবে গাড়ি চালানো ও অনিচ্ছাকৃত খুনের মামলা দায়ের করা হয়েছে। এছাড়া তিনি মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালাচ্ছিলেন কিনা, সেটাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। অবশ্য গাড়ির ব্রেক ফেল বা অন্যান্য যান্ত্রিক ত্রুটির সম্ভাবনাও উড়িয়ে দিচ্ছে না পুলিশ। গাড়িতে পারভেজের সঙ্গে অন্য কেউ ছিল কিনা, তাও জানার চেষ্টা চলছে যদিও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, গাড়িতে চালক একাই ছিলেন। সে দিক থেকে পারভেজ ছাড়া অন্য কারোর থাকার সম্ভাবনা কম।

জানা গিয়েছে, আজই পারভেজকে আদালতে তুলে হেফাজতে নিতে পারে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here