কলকাতায় স্যাটেলাইট সেন্টারের উদ্বোধন করল লারসেন অ্যান্ড টুব্রো ইনফোটেক

0

কলকাতা: বিশ্বব্যাপী প্রযুক্তি সহায়ক পরামর্শদাতা এবং ডিজিটাল সমাধান প্রদানকারী সংস্থা লারসেন অ্যান্ড টুব্রো ইনফোটেক (Larsen & Toubro Infotech/LTI) একটি নতুন সেন্টার তৈরি করে কলকাতায় নিজের কার্যক্রম সম্প্রসারিত করল। দেশের পূর্বাঞ্চলে নতুন সেন্টারমার্কস কোম্পানির সম্প্রসারণে একটি ভবিষ্যৎ-উপযোগী ও আধুনিক কর্মক্ষেত্রের প্রয়োজনীয়তা পূরণের জন্য এটি ডিজাইন করা হয়েছে।

শুক্রবার কেন্দ্রটির উদ্বোধন করেন এলটিআই-এর চিফ অপারেটিং অফিসার নচিকেত দেশপান্ডে, এলটিআই-এর চিফ হিউম্যান রিসোর্স অফিসার মনোজ শিকারখানে, ন্যাসকম-এর আঞ্চলিক প্রধান নিরুপম চৌধুরী এবং নবদিগন্ত ইন্ডাস্ট্রিয়াল টাউনশিপ অথরিটির (NDITA) চেয়ারম্যান দেবাশিস সেন।

সল্টলেক ইলেকট্রনিক্স কমপ্লেক্সে অবস্থিত, নতুন কেন্দ্রটিতে কাজ করবেন ৩০০ জনেরও বেশি কর্মী। ক্লাউড, ডেটা এবং ডিজিটাল প্রযুক্তির জন্য এলটিআই-এর পরিষেবা প্রদানের ক্ষমতাকে সমর্থন করবে এবং এই ভবিষ্যৎ ডোমেনে অভিজ্ঞতা লাভের জন্য মুখিয়ে থাকা স্থানীয় প্রতিভাদের ক্ষেত্রে দুর্দান্ত ক্যারিয়ারের সুযোগ তৈরি করবে এই কেন্দ্র।

এলটিআই-এর চিফ অপারেটিং অফিসার নচিকেত দেশপান্ডে বলেন, “কলকাতা একটি সমৃদ্ধ শিল্পের একাডেমিয়া বাস্তুতন্ত্রের (যে পরিবেশ গবেষণা, শিক্ষা এবং বৃত্তি অর্জনের উপযোগী) জন্য গর্বিত, এবং আমরা সিটি অফ জয়-এ জায়গা করে নিতে পেরে উচ্ছ্বসিত। কেন্দ্রটি এই এলাকায় আপনার বর্তমান এবং সম্ভাব্য কর্মীদের চাহিদা পূরণের জন্য চালু করা হয়েছে। আমরা কলকাতায় আমাদের এই উপস্থিতিতে রোমাঞ্চিত এবং এই অঞ্চলের সঙ্গে দীর্ঘমেয়াদী সংযোগ তৈরির ক্ষেত্রে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।”

এলটিআই-এর চিফ হিউম্যান রিসোর্স অফিসার মনোজ শিকারখানে বলেছেন, “আমরা ভবিষ্যতের কাজ, কর্মক্ষেত্র এবং কর্মশক্তিতে উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন প্রত্যক্ষ করছি এবং সারা দেশে আরও এমন কেন্দ্র তৈরি করছি। কলকাতায় আমাদের সম্প্রসারণের লক্ষ্য এই অঞ্চলের সামগ্রিক প্রযুক্তির ক্ষেত্রকে প্রসিদ্ধ করা। আমরা এই শহরে আমাদের এই সূচনায় আপ্লুত এবং আগামী দিনে গতিময় বৃদ্ধির জন্য উন্মুখ।”

এলটিআই স্যাটেলাইট কর্মক্ষেত্রের জন্য ক্রমবর্ধমান চাহিদার মোকাবিলা করার জন্য দেশের পূর্বাঞ্চলে ভিত্তি স্থাপনের সুযোগটি কাজে লাগিয়েছে। দেশের অন্যতম শীর্ষ প্রযুক্তি কোম্পানি হিসেবে, এলটিআই কাজ করার নতুন পদ্ধতিকে উৎসাহিত করে। মানুষকে কাজের জায়গায় আনার পরিবর্তে তাঁদের কাছে কাজ নিয়ে পৌঁছে যাওয়ায় বিশ্বাস করে। এলটিআই কলকাতায় তাদের নতুন কেন্দ্রের সম্ভাবনার বিষয়ে বেশ উৎসাহী এবং স্থানীয় প্রতিভাদের সমৃদ্ধ প্রযুক্তি নির্ভর ক্যারিয়ার তৈরির পাশাপাশি গ্রাহকদের জন্য আরও ভালো এবং দ্রুত সমাধান করতে চায়।

ন্যাসকম-এর রিজিওনাল হেড নিরুপম চৌধুরী বলেন, “সারা বিশ্বজুড়ে উদ্যোগগুলি থেকে ডিজিটাল প্রযুক্তির চাহিদা বৃদ্ধিতে দেশের উচ্চাকাঙ্ক্ষী প্রতিভাদের জন্য আধুনিক ক্যারিয়ারের সুযোগ বাড়িয়ে দিয়েছে। কলকাতা সমৃদ্ধ ঐতিহ্য বহন করে চলেছে এবং ভবিষ্যতের প্রতিভা তৈরি করার ক্ষেত্রে এ শহরই সেরা উপযুক্ত গন্তব্য। সম্প্রসারণের জন্য এ শহরকে বেছে নেওয়ায় আমরা এলটিআইকে উষ্ণ স্বাগত জানাই।”

এনডিআইটিএ-র চেয়ারম্যান দেবাশিস সেন বলেন, “শহরে তাদের ভিত্তি স্থাপনে আগ্রহী আইটি পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থাগুলির জন্য সল্টলেক একটি পছন্দের গন্তব্য হিসেবে উঠেছে। দ্রুত বর্ধনশীল প্রযুক্তি ক্ষেত্রের অগ্রণীদের একজন হিসেবে, কলকাতায় এলটিআই সম্প্রসারণ অবশ্যই এই অঞ্চলের গুরুত্বকে আরও বাড়িয়ে তুলবে এবং স্থানীয় প্রতিভাকে ব্যাপক ভাবে উপকৃত করবে।”

আজকের আরও পড়তে পারেন:

সরকারি কর্মীদের জন্য কঠোর সাইবার নিরাপত্তা নির্দেশ কেন্দ্রের, ব্যবহার করা যাবে না গুগল ড্রাইভ, ক্যামস্ক্যানার

‘অগ্নিপথ’ নিয়ে অগ্নিগর্ভ সেকেন্দরাবাদ, জ্বলল ৩টি ট্রেন, গুলিতে মৃত ১

রাজ্য জয়েন্ট এন্ট্রান্সের ফলপ্রকাশ, সেরা ফল উত্তর ২৪ পরগনার

জার্মানি যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, তার আগেই মনোনয়ন জমা করবেন বিজেপির রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী

পশ্চিমবঙ্গেও অগ্নিপথ বিতর্কের আঁচ, ঠাকুরনগরে দীর্ঘক্ষণ রেল অবরোধ

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন