পেঁয়াজ অগ্নিমূল্য, পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে শহরের বাজার পরিদর্শন মুখ্যমন্ত্রীর

যদুবাবুর বাজারে মুখ্যমন্ত্রী। ছবি: রাজীব বসু।

কলকাতা: পেঁয়াজ-সহ নিত্যপ্রয়োজনীয় শাকসবজির আকাশছোঁয়া মূল্যবৃদ্ধির পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে সোজা বাজারে ঢুঁ মারলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার নবান্নে যাওয়ার পথে ঘুরে দেখলেন যদুবাবুর বাজার।

এ দিন সকালে নবান্নে যাওয়ার জন্য বেরিয়ে প্রথমেই ভবানীপুরের যদুবাবুর বাজারে পৌঁছে যান মুখ্যমন্ত্রী। এই বাজারে ১৫০ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে। প্রথমে ক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলার পর মুখ্যমন্ত্রী বাজারের পেঁয়াজ বিক্রেতাদের সঙ্গেও কথা বলেন।

বিক্রেতাদের থেকে পেঁয়াজের হালহকিকত জানেন মুখ্যমন্ত্রী। বিক্রেতারা জানান, তাঁরা ১৪৫ টাকা দামে পেঁয়াজ কিনছেন, ফলে দেড়শো টাকার নীচে কোনো ভাবেই তা বিক্রি করতে পারছেন না। পেঁয়াজের দাম নিয়ে খোঁজখবর নেওয়ার পর গাড়িতে উঠে নবান্নের উদ্দেশে রওনা দেন মুখ্যমন্ত্রী।

পেঁয়াজের দাম নিয়ন্ত্রণ করার জন্য রাজ্য সরকারের থেকে বেশ কিছু উদ্যোগ নেওয়া হলেও, কাজের কাজ কিছুই হচ্ছে না। এই অবস্থায় পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে নিজে ময়দানে নামলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পেশ লোকসভায়

প্রসঙ্গত, দাম-যন্ত্রণা থেকে কিছুটা মুক্তি দিতে আজ সোমবার থেকেই রেশনে পেঁয়াজ দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে রাজ্য সরকার। বাজারদরের অর্ধেক দামে রেশনে মিলবে পেঁয়াজ। রবিবার এ কথা জানান রাজ্যের মুখ্য কৃষি উপদেষ্টা প্রদীপ মজুমদার।

এর পরিপ্রেক্ষিতে সোমবার সকাল থেকে কলকাতার রেশন দোকানগুলিতে মানুষের লাইন লক্ষ করা যায়। সোমবার সাধারণত বন্ধ থাকে রেশন দোকান। কিন্তু পেঁয়াজ বণ্টনের জন্য দোকান খোলা রাখার নির্দেশিকা জারি করেছিল রাজ্য সরকার।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.