mother and son in kolkata

কলকাতা: দীর্ঘদিন তাঁদের ঘর থেকে বাইরে বের হতে দেখা যায়নি। অসুস্থ মা ও ছেলেকে নিয়ে পাড়াপ্রতিবেশীদেরও তেমন কোনো আগ্রহ দেখা যায়নি। কিন্তু বদ্ধ ঘর থেকে যখন দুর্গন্ধ বেরোল, তখন আর অস্বস্তির ঠেলায় স্থির থাকতে পারলেন না কেউ। পুলিশ ডাকা হল। তারাই অসুস্থ মা-ছেলেরে নিয়ে গেল হাসপাতালে।

বন্ধ ঘরে একাকী বৃদ্ধ-বৃদ্ধদের পচে মরার বহু ঘটনা এ শহর দেখতে অভ্যস্ত হয়ে গিয়েছে বহুদিন আগেই। ফলে এ সব নিয়ে বেশি কিছু ভাবার তাগিদ অনুভব করেন না অনেকে। এখন তো একটা ফ্ল্যাট মানেই আস্ত একটা পাড়া! হয়তো তেমন কিছুই দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারত পাটুলির পি-৩৪ সাউথ এন্ড গার্ডেনের বাসিন্দা ওই মা ও ছেলের সঙ্গেও। কিন্তু এক প্রতিবেশীর সাহায্যেই এ যাত্রায় তাঁরা রেহাই পেলেন কোনো রকমে।

পাটুলি থানার পুলিশ জানিয়েছে, এক প্রতিবেশী ডাকাডাকি করে সাড়া না পেয়ে তাদের কাছে খবর দেন। পুলিশ গিয়ে দেখে বন্ধ ঘর থেকে অসহ্য দুর্গন্ধ বের হচ্ছে। দীর্ঘ দিন ধরে বন্ধ থাকা এবং পরিষ্কার না হওয়ার জন্যই ফ্ল্যাটটি পরিণত হয়েছে বসবাসের অযোগ্য। সেখান থেকেই মা স্বপ্না মিত্র এবং ছেলে দীপঙ্করকে উদ্ধার করা হয়। জানা গিয়েছে, তাঁরা মানসিক ভাবে ভারসাম্যহীন, ওই ফ্ল্যাটে তাঁদের দেখভালের জন্য কেউ ছিল না।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here