পুরভোট নিয়ে নির্বাচন কমিশনে মুকুল রায়ের দুই আর্জি

0
প্রতীকী ছবি

কলকাতা: নির্বাচন কমিশনের কাছে প্রস্তাব পাঠিয়ে আগামী ১২ এপ্রিল কলকাতা এবং হাওড়া কর্পোরেশনে ভোট চাইতে পারে রাজ্য সরকার। এমন খবর চাউর হতেই নির্বাচন কমিশনে গিয়ে বৃহস্পতিবার দরবার করলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়, জয়প্রকাশ মজুমদার এবং শিশির বাজোরিয়ারা। তাঁরা কমিশনের কাছে একাধিক আবেদন জানালেও ভোটের নির্ঘণ্ট এবং ভোটগ্রহণের পদ্ধতি নিয়ে দু’টি বিশেষ আর্জি জানান।

প্রথমত, এমনটা শোনা যাচ্ছে, আগামী ১২ এপ্রিল কলকাতা এবং হাওড়া কর্পোরেশনে ভোটগ্রহণ হতে পারে বলে তাঁরা জেনেছেন। কিন্তু আগামী ৩০ মার্চ উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা শেষ না হওয়া পর্যন্ত মাইকে প্রচারের উপর নিষেধাজ্ঞা থাকায় প্রচারের খামতি থেকে যাওয়ার আশঙ্কা করে ওই দিনে ভোট চাইছেন না তাঁরা। তার উপর আবার, ভোটগ্রহণের ৪৮ ঘণ্টা আগেই প্রচার বন্ধ করতে হবে।

সূত্রের খবর, বিজেপির দাবি যদি ৩০ মার্চ ভোটের নির্ঘণ্ট ঘোষিত হয়, তা হলে প্রচারের জন্য তাদের অন্তত ২৪ দিন সময় দিতে হবে। অর্থাৎ, ২৪ এপ্রিলের আগে ভোট হওয়া সম্ভব নয়।

দ্বিতীয়ত, কয়েক দিন ধরেই শোনা যাচ্ছে, ব্যালটে পুরভোট করাতে চাইছে রাজ্য সরকার। এ ব্যাপারে নির্বাচন কমিশন আগাম কোনো ইঙ্গিত না দিলেও মুকুলের দাবি, ব্যালটে নয়, ইভিএমে ভোটগ্রহণ করা হোক। সারা দেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছে, তখন ব্যালটে ফিরে যেতে চাইছে রাজ্য।

বিধ্বংসী আগুনে কলকাতায় পুড়ে ছাই ৪০টি নতুন গাড়ি

বিজেপির নেতার ভোট পিছিয়ে দেওয়ার আবেদন প্রসঙ্গে পুর ও নগরোন্নয়নমন্ত্রী এবং কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম সংবাদ মাধ্যমের কাছে বলেন, “পুরভোটে যারা পিছিয়ে থাকে, পাশ করতে পারে না, তারাই ভোট পিছিয়ে দেওয়ার কথা বলে। আমরা সারা বছর পড়ি, তাই ভয় পাই না। ওরা লাস্টবয়, তাই এত কমপ্লেইন”।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.