রোগী মৃত্যু, ধন্ধুমার এসএসকেএম হাসপাতালে

ওয়েবডেস্ক: রোগীর আত্মীয়দের হাতে হাসপাতালের নিরাপত্তাকর্মী ‘আক্রান্ত’ হওয়ার ঘটনা ঘিরে ধন্ধুমার কাণ্ড ঘটে গেল এসএসকেএস হাসপাতালে। এ দিন এক রোগীকে জরুরি বিভাগে নিয়ে আসা হলে তাঁকে কার্ডিওলজি বিভাগে নিয়ে যাওয়ার কথা বলেন চিকিৎসক। কিন্তু ওই বিভাগে নিয়ে যাওয়ার জন্য স্ট্রেচার মেলেনি। রোগীর আত্মীয়রা স্ট্রেচারের খোঁজ করলে হাসপাতালের নিরাপত্তাকর্মীদের সঙ্গে বচসা বাঁধে। এমনকী এক জন নিরাপত্তা রক্ষীকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগও উঠেছে।

এসএসকেএম কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা গিয়েছে, এ দিন সকালে হাওড়ার নারায়ণচন্দ্র বাগচি নামের এক রোগীকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। এমারজেন্সিতে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা জানান, তাঁর মৃত্যু হয়েছে।

তবে রোগীর আত্মীয়দের হাতে আক্রান্ত হওয়ার অভিযোগ তুলে নিরাপত্তারক্ষীরা একত্রিত হয়ে কাজ বন্ধ করে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। তাঁদের অভিযোগ, হাসপাতালে রোগীর পরিজন ট্রলি পাচ্ছেন না, সেটা পরিকাঠামোগত অভাবের কারণে। কিন্তু তার জন্যে তাঁদের মারধর কেন করা হবে?

এর পরই পরিস্থিতি সামাল দিতে আসে বিশাল পুলিশ বাহিনী আসে এসএসকেএম হাসপাতাল চত্বরে। মৃত রোগীর দুই আত্মীয়কে আটক করে ভবানীপুর থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। তবে নিরাপত্তারক্ষীরা দাবি করছেন, ট্রলি যে সময় মতো পাওয়া যায়নি, সে কথা সত্য। তবে ওই রোগীকে মৃত অবস্থাতেই হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছিল।

প্রসঙ্গত, জরুরি বিভাগে নিয়ে আসার পর প্রায় দেড়ঘণ্টা সময় অপেক্ষা করেছিলেন রোগীর পরিজনেরা। তাঁদের দাবি, এই সময়ের মধ্যেই ফের একবার কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট হয় রোগীর।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.