Covid Crisis: মানুষকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছে তরুণ প্রজন্মের তৈরি ‘রেড ফ্ল্যাশ কলকাতা’

0

শুভদীপ রায় চৌধুরী

কোভিড পরিস্থিতিতে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছেন অনেকেই – সংগঠনগত ভাবে হোক বা ব্যক্তিগত ভাবে। এমনই একটি সংগঠন ‘রেড ফ্ল্যাশ কলকাতা’।

‘রেড ফ্ল্যাশ কলকাতা’ একটি এনজিও, যাতে রয়েছেন তরুণ প্রজন্মের অনেকেই, যাঁদের বয়স ২০ থেকে ২২ বছরের মধ্যে। এটি সম্পূর্ণ অরাজনৈতিক সংগঠন। দমদমের এই এনজিও এগিয়ে এসেছে মানুষকে নানা রকম ভাবে সাহায্য করতে এই দুঃসময়ে। মূলত এই তরুণ প্রজন্মের ছেলেমেয়েদের সঙ্গে রয়েছেন কিছু অতিথি সদস্য, যাঁদের মধ্যে কেউ কলকাতা পুলিশে কর্মরত, কেউ আবার ব্যবসায়ী।

ইন্ডিয়ান ট্রাস্ট অ্যাক্ট দ্বারা স্বীকৃত এই এনজিও ২০১৭ সালে তৈরি হয়। ২০ বছরের তনয় দাসের উদ্যোগে তৈরি হয় এই সংগঠন। এ বার এগিয়ে এলেন তাদের সংগঠনের বাকি সদস্যরা – বিশ্বজিৎ, রাজদীপ, সোহিনী প্রমুখ। বিভিন্ন সমাজসেবামূলক কাজে মানুষের পাশে এসে দাঁড়ান তাঁরা। করোনা পরিস্থিতিতেও রয়েছে তাঁদের নানা ধরনের কর্মসূচি।

কথা হচ্ছিল এই সংস্থার সহ-সভাপতি কৃশানু জানার সঙ্গে। তিনি জানালেন, এ সময়ে যারা অর্থনৈতিক দিক থেকে দুর্বল হয়ে পড়েছে এবং যারা আক্রান্ত হয়েছে তাদের বাড়িতে গিয়ে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে নানা রকমের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস। আরও একটি বিশেষ কাজ শুরু করেছে এই সংগঠন। নাম, ‘কোভিড ও প্যানডেমিক সুরক্ষা মিশন’। এ ক্ষেত্রে তাঁরা প্রয়োজন হলে রোগীদের অক্সিজেনের  ব্যবস্থা করে দিচ্ছেন। এমনকি আক্রান্ত রোগীদের হাসপাতালে বেডের ব্যবস্থাও করছেন তাঁরা।

বর্তমানে তাঁরা এক গুরুত্বপূর্ণ কাজ করছেন, যা সত্যিই এই পরিস্থিতিতে অপরিহার্য। প্রতি দিন ৩০০ জনের খাবারের ব্যবস্থা করছেন তাঁরা। প্রতি দিন বিভিন্ন হাসপাতালের বাইরে রোগীর যে আত্মীয়স্বজন থাকবেন তাদের ওই খাবার দেওয়া হবে।

কৃশানু জানালেন, তাঁরা কোনো দিন আরজিকর হাসপাতাল, আবার কোনো দিন নীলরতন সরকার হাসপাতাল, এই ভাবে বিভিন্ন হাসপাতালের সামনে গিয়ে মানুষদের খাবার বিতরণ করবেন। এই পরিস্থিতিতে তরুণ প্রজন্মের ছেলেমেয়েদের এই এগিয়ে আসা দেখে মনে হচ্ছে আমরা এই যুদ্ধ অবশ্যই জিতব।

আরও পড়ুন: কোভিডরোগীদের বিনামূল্যে অক্সিজেন জোগাতে কলকাতার সাধারণ নাগরিকরা গড়ে তুলেছেন ‘অক্সিজোন’

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন