ন’ বছর পর প্রত্যাবর্তন, প্রেসিডেন্সিতে জয়জয়কার এসএফআইয়ের

0
SFI wins in Presidency
জয়ের পরে এসএফআই সমর্থকরা।

কলকাতা: দু’ বছর ছাত্র নির্বাচন বন্ধ থাকার পর অবশেষে প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয় দিয়ে রাজ্যে শুরু হল ছাত্র সংসদ নির্বাচন। বৃহস্পতিবার প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয় সম্পন্ন হল ওই নির্বাচন। ন’ বছর পর প্রেসিডেন্সির ছাত্র কাউন্সিল দখল করল বামপন্থী ছাত্র সংগঠন এসএফআই।

আরও পড়ুন: প্রেসিডেন্সির ছাত্র সংসদের দখল যাচ্ছে এসএফআইয়ের হাতে

ন’ বছর ধরে নির্বাচনে একচ্ছত্র রাজ করা ছাত্রদল আইসিকে পিছনে ফেলে প্রেসিডেন্ট, ভাইস প্রেসিডেন্ট, সাধারণ সম্পাদক, সহকারী সাধারণ সম্পাদক এবং গার্লস কমন রুম সম্পাদক, পাঁচটি পদেই বড়ো ব্যবধানে জয়লাভ করল এসএফআই। অন্য দিকে সি আর (ক্লাস রিপ্রেজেনটেটিভ) পদেও আইসিকে পিছনে ফেলে বেশি আসনে জয়ী হয়েছে এসএফআই প্রার্থীরা।

অপর দিকে ৩০ বছর পর প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র সংসদ  নির্বাচনে খাতা খুলল আরেক বাম ছাত্র সংগঠন এআইএসএফ। মাত্র কয়েক মাস আগে প্রেসিডেন্সিতে সংগঠন গড়ে তারা ছাত্র ভোটে যোগ দেয়। প্রথম বার আত্মপ্রকাশেই দু’টি আসনে জিতে তারা খুশি।

২০১১ সালে রাজ্যের ক্ষমতা হারায় সিপিআই(এম)-এর নেতৃত্বাধীন বাম ফ্রন্ট। তার পর থেকে লোকসভা, বিধানসভার যতগুলো ভোট হয়েছে তাতে ফল খুব খারাপ হয়েছে বামেদের। এই পরিস্থিতিতে প্রেসিডেন্সির মতো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এই বিপুল জয় তাদের মনে আশার সঞ্চার করবে সন্দেহ নেই। একই সঙ্গে রাজ্যের শিক্ষিত তরুণ প্রজন্ম কী চায় তারও একটা ইঙ্গিত মিলল এই ভোটে।  

প্রেসিডেন্সিতে এ বারের ভোট ছিল বর্ণময়। হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়েছে দুই বাম ছাত্র সংগঠন এসএফআই এবং আইসি-র মধ্যে। তবে পাল্লা ভারী ছিল এসএফআইয়ের দিকেই। শেষ পর্যন্ত তারাই শেষ হাসি হাসল।

জয়ী এসএফআই।

সভাপতি পদে এসএফআই প্রার্থী পেয়েছেন ১০৮৫টি ভোট, নিকটতম আইসি প্রার্থী পেয়েছেন ৬১৩টি ভোট। সহ-সভাপতি পদে এসএফআই প্রার্থীর পক্ষে ভোট পড়েছে ৯৯৯ ভোট, সেখানে আইসি প্রার্থী পেয়েছেন ৬৪০টি ভোট। সাধারণ সম্পাদক পদে এসএফআই প্রার্থী পেয়েছেন ৮৪০টি ভোট, আইসি প্রার্থী পেয়েছেন ৫৭৪টি ভোট। সহকারী সাধারণ সম্পাদক পদের জন্য এসএফআই প্রার্থীর পক্ষে ভোট পড়েছে ৯১৯ এবং আইসি প্রার্থী পেয়েছেন ৬৪২টি ভোট।

এ বারের ভোটে বামপন্থীদের দাপট থাকলেও তৃণমূল ছাত্র পরিষদ সমর্থিত নির্দল একাধিক সি আর আসনে জয়লাভ করেছে।

বিপুল এই জয়ের ফলে স্বাভাবিক ভাবেই উল্লসিত এসএফআই তথা সিপিআই(এম) নেতৃবৃন্দ। সিপিআই(এম)-এর রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র টুইট করে বলেছেন, প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ নির্বাচনে এসএফআইয়ের অসাধারণ জয়ের জন্য অভিনন্দন। সমস্ত বাম ছাত্র সংগঠনের ঐক্য আগামী দিনের কর্মসূচিতে অগ্রাধিকার পাবে বলে আশা করি।”

লালা আবির মেখে জয়ের উল্লাসে মেতেছেন এসএফআই সমর্থকরা। এসএফআইয়ের রাজ্য সম্পাদক সুজন ভট্টাচার্য বলেছেন, “ফলাফলেই প্রমাণ ছাত্রছাত্রীরা আমাদের পাশে রয়েছেন। কেন্দ্র ও রাহ্য, দুই সরকারের নীতির বিরুদ্ধেই মত দিয়েছন পড়ুয়ারা।   

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.