Connect with us

কলকাতা

ন’ বছর পর প্রত্যাবর্তন, প্রেসিডেন্সিতে জয়জয়কার এসএফআইয়ের

SFI wins in Presidency

কলকাতা: দু’ বছর ছাত্র নির্বাচন বন্ধ থাকার পর অবশেষে প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয় দিয়ে রাজ্যে শুরু হল ছাত্র সংসদ নির্বাচন। বৃহস্পতিবার প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয় সম্পন্ন হল ওই নির্বাচন। ন’ বছর পর প্রেসিডেন্সির ছাত্র কাউন্সিল দখল করল বামপন্থী ছাত্র সংগঠন এসএফআই।

আরও পড়ুন: প্রেসিডেন্সির ছাত্র সংসদের দখল যাচ্ছে এসএফআইয়ের হাতে

ন’ বছর ধরে নির্বাচনে একচ্ছত্র রাজ করা ছাত্রদল আইসিকে পিছনে ফেলে প্রেসিডেন্ট, ভাইস প্রেসিডেন্ট, সাধারণ সম্পাদক, সহকারী সাধারণ সম্পাদক এবং গার্লস কমন রুম সম্পাদক, পাঁচটি পদেই বড়ো ব্যবধানে জয়লাভ করল এসএফআই। অন্য দিকে সি আর (ক্লাস রিপ্রেজেনটেটিভ) পদেও আইসিকে পিছনে ফেলে বেশি আসনে জয়ী হয়েছে এসএফআই প্রার্থীরা।

অপর দিকে ৩০ বছর পর প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র সংসদ  নির্বাচনে খাতা খুলল আরেক বাম ছাত্র সংগঠন এআইএসএফ। মাত্র কয়েক মাস আগে প্রেসিডেন্সিতে সংগঠন গড়ে তারা ছাত্র ভোটে যোগ দেয়। প্রথম বার আত্মপ্রকাশেই দু’টি আসনে জিতে তারা খুশি।

২০১১ সালে রাজ্যের ক্ষমতা হারায় সিপিআই(এম)-এর নেতৃত্বাধীন বাম ফ্রন্ট। তার পর থেকে লোকসভা, বিধানসভার যতগুলো ভোট হয়েছে তাতে ফল খুব খারাপ হয়েছে বামেদের। এই পরিস্থিতিতে প্রেসিডেন্সির মতো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এই বিপুল জয় তাদের মনে আশার সঞ্চার করবে সন্দেহ নেই। একই সঙ্গে রাজ্যের শিক্ষিত তরুণ প্রজন্ম কী চায় তারও একটা ইঙ্গিত মিলল এই ভোটে।  

প্রেসিডেন্সিতে এ বারের ভোট ছিল বর্ণময়। হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়েছে দুই বাম ছাত্র সংগঠন এসএফআই এবং আইসি-র মধ্যে। তবে পাল্লা ভারী ছিল এসএফআইয়ের দিকেই। শেষ পর্যন্ত তারাই শেষ হাসি হাসল।

জয়ী এসএফআই।

সভাপতি পদে এসএফআই প্রার্থী পেয়েছেন ১০৮৫টি ভোট, নিকটতম আইসি প্রার্থী পেয়েছেন ৬১৩টি ভোট। সহ-সভাপতি পদে এসএফআই প্রার্থীর পক্ষে ভোট পড়েছে ৯৯৯ ভোট, সেখানে আইসি প্রার্থী পেয়েছেন ৬৪০টি ভোট। সাধারণ সম্পাদক পদে এসএফআই প্রার্থী পেয়েছেন ৮৪০টি ভোট, আইসি প্রার্থী পেয়েছেন ৫৭৪টি ভোট। সহকারী সাধারণ সম্পাদক পদের জন্য এসএফআই প্রার্থীর পক্ষে ভোট পড়েছে ৯১৯ এবং আইসি প্রার্থী পেয়েছেন ৬৪২টি ভোট।

এ বারের ভোটে বামপন্থীদের দাপট থাকলেও তৃণমূল ছাত্র পরিষদ সমর্থিত নির্দল একাধিক সি আর আসনে জয়লাভ করেছে।

বিপুল এই জয়ের ফলে স্বাভাবিক ভাবেই উল্লসিত এসএফআই তথা সিপিআই(এম) নেতৃবৃন্দ। সিপিআই(এম)-এর রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র টুইট করে বলেছেন, প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ নির্বাচনে এসএফআইয়ের অসাধারণ জয়ের জন্য অভিনন্দন। সমস্ত বাম ছাত্র সংগঠনের ঐক্য আগামী দিনের কর্মসূচিতে অগ্রাধিকার পাবে বলে আশা করি।”

লালা আবির মেখে জয়ের উল্লাসে মেতেছেন এসএফআই সমর্থকরা। এসএফআইয়ের রাজ্য সম্পাদক সুজন ভট্টাচার্য বলেছেন, “ফলাফলেই প্রমাণ ছাত্রছাত্রীরা আমাদের পাশে রয়েছেন। কেন্দ্র ও রাহ্য, দুই সরকারের নীতির বিরুদ্ধেই মত দিয়েছন পড়ুয়ারা।   

কলকাতা

রবিবার রাতের প্রবল বৃষ্টিতে কলকাতার বিস্তীর্ণ অঞ্চল জলমগ্ন

মাত্র এক ঘণ্টার মধ্য কলকাতার বেশ কিছু অঞ্চলে গড়ে ১০০ মিলিমিটারের বেশি বৃষ্টি হয়।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: পশ্চিমবঙ্গের দুই প্রান্তেই সক্রিয় হয়ে উঠেছে বর্ষা। উত্তরবঙ্গ তো বৃষ্টিতে এক্কেবারেই নাজেহাল। এ বার প্রবল বর্ষণে ভাসল কলকাতাও। রবিবার রাতে ঘণ্টা দুয়েকের প্রবল বৃষ্টিতে জল জমে যায় শহরের বিস্তীর্ণ অঞ্চলে।

রবিবার সন্ধ্যার পর থেকেই বজ্রগর্ভ মেঘ তৈরি হয় কলকাতা ও তার পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে। কমবেশ বৃষ্টি ও হালকা ঝড় চলছিলই। কিন্তু রাত ১১টার পর যেন আকাশ ভেঙে পড়ে।

মাত্র এক ঘণ্টার মধ্য কলকাতার বেশ কিছু অঞ্চলে গড়ে ১০০ মিলিমিটারের বেশি বৃষ্টি হয়। আলিপুরে বৃষ্টি হয়েছে ৬৬ মিলিমিটার। উত্তর কলকাতায় অবশ্য বৃষ্টির দাপট কিছুটা কম ছিল। কলকাতার পাশাপাশি, প্রবল বৃষ্টি হয়েছে হাওড়া, হুগলি, দুই ২৪ পরগণার বেশ কিছু জায়গাতেও।

উল্লেখ্য, গত এক সপ্তাহ ধরে রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চলে জোর বৃষ্টি হলেও, কলকাতায় কিছুটা নিষ্ক্রিয় হয়ে গিয়েছিল বর্ষা। শনিবার থেকে তা আবার সক্রিয় হয়ে ওঠে।

ওড়িশা থেকে উত্তরবঙ্গ পর্যন্ত একটি অক্ষরেখা বিস্তৃত রয়েছে। সেই সঙ্গে বিহারের ওপরে একটি ঘূর্ণাবর্ত রয়েছে। এই দুইয়ের জেরে এই প্রবল বর্ষণ। আগামী দু’-তিন দিন বৃষ্টির এই দাপট দক্ষিণবঙ্গে বহাল থাকতে পারে বলেই মনে করা হচ্ছে।

Continue Reading

কলকাতা

সক্রিয় রোগীর নিরিখে এই মুহূর্তে কলকাতার অবস্থান কত নম্বরে?

কলকাতা পঞ্চদশ স্থানে।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: গত কয়েক দিন ধরে পশ্চিমবঙ্গের উদ্বেগজনক ভাবে বাড়ছে করোনা-আক্রান্তের সংখ্যা। এর পেছনে কলকাতার অবদান সব থেকে বেশি। এই শহরে দৈনিক তিনশো জন করে করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন। আবার একই সঙ্গে সুস্থও হচ্ছে দু’শোর বেশি। এর ফলে সক্রিয় রোগীর সংখ্যাটা এখনও সে ভাবে বাড়েনি।

সক্রিয় রোগীর নিরিখে দেখা যাবে এই মুহূর্তে ভারতে ১৫তম জায়গায় রয়েছে কলকাতা। অর্থাৎ, কলকাতাবাসীরা কিছুটা হলেও স্বস্তির নিঃশ্বাস নিতেই পারেন। তবে কোনো ভাবেই সতর্কতায় ঢিলে দিলে চলবে না।

দেখে নিন, সক্রিয় রোগীর নিরিখে ভারতে কার অবস্থান কত নম্বরে

১) ঠানে (মহারাষ্ট্র) – ৩০,০০৭

২) মুম্বই (মহারাষ্ট্র) – ২৩,৭৯৯

৩) হায়দরাবাদ (তেলঙ্গানা) – ২৩,৭৮৬

৪) দিল্লি – ২১,১৮৬

৫) চেন্নাই (তামিলনাড়ু) – ১৮,৬১৬

৬) পুনে (মহারাষ্ট্র) – ১৭,২২৬

৭) বেঙ্গালুরু (কর্নাটক) – ১১,৬৮৭

8) পালঘর (মহারাষ্ট্র) – ৪,২৬২

৯) মাদুরাই (তামিলনাড়ু) – ৪,১৩১

১০) ঔরঙ্গাবাদ (মহারাষ্ট্র) – ৩,৬৯১

১১) রায়গড় (মহারাষ্ট্র) – ৩,৬৪৮

১২) অমদাবাদ (গুজরাত) – ৩,৫৭১

১৩) কামরূপ মেট্রো/ গুয়াহাটি (অসম) – ৩,৪৮০

১৪) চেঙ্গলপট্টু (তামিলনাড়ু) – ৩,১২৭

১৫) কলকাতা (পশ্চিমবঙ্গ) – ৩,০৬৭

Continue Reading

কলকাতা

করোনার পাশাপাশি কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে শুরু হচ্ছে অন্যান্য রোগের চিকিৎসা

তবে দীর্ঘ টানাপোড়েনের পর ফের অন্যান্য রোগীর চিকিৎসাও এ বার শুরু হচ্ছে।

কলকাতা: করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীর চিকিৎসায় ‘কোভিড হাসপাতাল’ (Covid Hospital) হিসাবে ঘোষণা করা হয়েছিল কলকাতা মেডিক্যাল কলেজকে (Kolkata Medical Collage)। তবে দীর্ঘ টানাপোড়েনের পর ফের অন্যান্য রোগীর চিকিৎসাও এ বার শুরু হচ্ছে।

শুধুমাত্র করোনার (Coronavirus) চিকিৎসা হওয়ায় তাঁদের প্রশিক্ষণ অসম্পূর্ণ থেকে যেতে পারে বলে অভিযোগ তুলে আন্দোলনে নেমেছিলেন হাসপাতালের ইন্টার্ন এবং পিজিটিরা। নন-কোভিড রোগীদের পরিষেবা শুরুর দাবিতে আন্দোলনকে সমর্থন জানিয়ে শিক্ষক-চিকিৎসকদের একাংশ প্রশ্ন তুলেছিলেন, পঠনপাঠনকে ক্ষতিগ্রস্ত করে কেন পুরো হাসপাতালে শুধুমাত্র কোভিডের চিকিৎসা হবে?

গত বুধবার হাসপাতালের অধ্যাপক এবং সিনিয়র ডাক্তারদের সঙ্গে বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, “বিশেষজ্ঞ কমিটি যে রিপোর্ট দিয়েছে, তা মেনে চলবেন কি না দেখুন। সিনিয়রেরা জুনিয়রদের দিয়ে কাজ করালেই সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে”। একই সঙ্গে তিনি জুনিয়র চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলে সমস্যা মিটিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দেন।

অন্য দিকে মেডিক্যাল কলেজে রয়েছে একাধিক সুপার স্পেশালিটি বিভাগ। ‘কোভিড হাসপাতালে’র তকমা মিলে যাওয়ার পর অন্য রোগীরা দূর থেকে এসে ভোগান্তির শিকার হচ্ছিলেন। সব মিলিয়ে পরিস্থিতি বিবেচনা করে দ্রুত সমস্যা সমাধানের সিদ্ধান্ত নিলেন কর্তৃপক্ষ।

জানা গিয়েছে, শীঘ্রই আউটডোর বিভাগ চালু হয়ে যাবে। পাশাপাশি অন্যান্য সমস্ত বিভাগেও রোগী ভরতি করা হবে।

এ দিন অধ্যক্ষের জারি নোটিফিকেশনে আন্দোলনকারী জুনিয়র চিকিৎসকদের দাবিকে মান্যতা দিয়েই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বলে জানা গিয়েছে। স্বাভাবিক ভাবেই এই ঘোষণাকে নিজেদের জয় বলে দাবি করেছেন আন্দোলনকারীরা।

Continue Reading
Advertisement
football2
ফুটবল2 hours ago

কোভিড-পরিস্থিতিতে আসন্ন আই লিগের সব ম্যাচই কলকাতায় করার ভাবনা

দেশ2 hours ago

বিজেপিতে যাচ্ছি না, বললেন সচিন পায়লট

দেশ3 hours ago

প্রবল বর্ষণে সিকিমে ভয়াল রূপ তিস্তার, হুড়মুড় করে ভেঙে পড়ল প্রাক্তন সাংসদের বাড়ি

উঃ দিনাজপুর3 hours ago

বিজেপি বিধায়কের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার, পরিবারের দাবি খুন

রাজ্য3 hours ago

উত্তরবঙ্গে বৃষ্টির দাপট কিছুটা কমলেও স্বস্তি দিচ্ছে না আগামী তিন দিনের পূর্বাভাস

দেশ4 hours ago

দেশে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যায় রেকর্ড, তবে মৃত্যুহারে উল্লেখযোগ্য পতন

দেশ4 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ২৮৭০১, সুস্থ ১৮৮৪৯

বিদেশ4 hours ago

কমদামী ও সহজলভ্য দুই ওষুধের সংমিশ্রণেই কমছে করোনার মারণ ক্ষমতা?

দেশ4 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ২৮৭০১, সুস্থ ১৮৮৪৯

দুর্গা পার্বণ2 days ago

আজও ভিয়েন বসিয়ে হরেক রকম মিষ্টি তৈরি হয় চুঁচড়ার আঢ্যবাড়ির দুর্গাপুজোয়

ফুটবল3 days ago

এটিকে-মোহনবাগানের নতুন লোগো প্রকাশিত, জার্সির রঙ সবুজমেরুনই

কলকাতা2 days ago

সক্রিয় রোগীর নিরিখে এই মুহূর্তে কলকাতার অবস্থান কত নম্বরে?

শিক্ষা ও কেরিয়ার3 days ago

প্রকাশিত হল আইসিএসই এবং আইএসসি ফলাফল, মিলল না মেধা তালিকা!

দেশ3 days ago

শারীরিক দুরত্ব ভেঙে মানবিক দায়িত্ব পালন

Shaktikanta Das
দেশ2 days ago

কোভিড-১৯ স্বাস্থ্য এবং অর্থনীতির সামনে শেষ একশো বছরের সব থেকে বড়ো সংকট: আরবিআই গভর্নর

Harsh Vardhan
দেশ3 days ago

করোনা আক্রান্তের সংখ্যায় আমরা উদ্বিগ্ন নই: কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী

কেনাকাটা

কেনাকাটা19 hours ago

হ্যান্ডওয়াশ কিনবেন? নামী ব্র্যান্ডগুলিতে ৩৮% ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাস বা কোভিড ১৯ এর সঙ্গে লড়াই এখনও জারি আছে। তাই অবশ্যই চাই মাস্ক, স্যানিটাইজার ও হ্যান্ডওয়াশ।...

কেনাকাটা4 days ago

ঘরের একঘেয়েমি আর ভালো লাগছে না? ঘরে বসেই ঘরের দেওয়ালকে বানান অন্য রকম

খবরঅনলাইন ডেস্ক : একে লকডাউন তার ওপর ঘরে থাকার একঘেয়েমি। মনটাকে বিষাদে ভরিয়ে দিচ্ছে। ঘরের রদবদল করুন। জিনিসপত্র এ-দিক থেকে...

কেনাকাটা6 days ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিউ নর্মালে মাস্ক পরাটাই দস্তুর। তা সে ছোটো হোক বা বড়ো। বিরক্ত লাগলেও বড়োরা নিজেরাই নিজেদেরকে বোঝায়।...

কেনাকাটা7 days ago

রান্নাঘরের টুকিটাকি প্রয়োজনে এই ১০টি সামগ্রী খুবই কাজের

খবরঅনলাইন ডেস্ক : লকডাউনের মধ্যে আনলক হলেও খুব দরকার ছাড়া বাইরে না বেরোনোই ভালো। আর বাইরে বেরোলেও নিউ নর্মালের সব...

নজরে