shaoli mitra

ওয়েবডেস্ক: তাঁর কাজে নানা ভাবে হস্তক্ষেপ করা হচ্ছে। দীর্ঘ দিন হল কেড়ে নেওয়া হয়েছে স্বাধীন ভাবে কাজ করার ক্ষমতা। এমনকী, ভাষা ও সাহিত্যের উন্নতিকল্পে কোনো কর্মসূচি গ্রহণ করতে চাইলে আটকে দেওয়া হচ্ছে তা-ও! এরকমই বিস্ফোরক অভিযোগে এবার পশ্চিমবঙ্গ বাংলা অকাদেমির সভাপতি পদ থেকে সরে আসার সিদ্ধান্ত নিলেন বর্ষীয়ান কিংবদন্তি নাট্যব্যক্তিত্ব ও লেখিকা শাঁওলি মিত্র।

২০১১ সালে ক্ষমতায় এসেছিল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃণমূল কংগ্রেস। তার পরের বছরেই পশ্চিমবঙ্গ বাংলা অকাদেমির সভাপতির পদ গ্রহণ করেন শাঁওলি মিত্র। কিন্তু যেমনটা দেখা গিয়েছিল তাঁর মঞ্চ অভিনয়ে, তেমনটাই যেন পর্যবসিত হল বাস্তবেও। ক্ষমতা-‘নাথবতী’ সেই ‘অনাথবৎ’-ই থেকে গেলেন। কার্যত তাঁর হাতে কাজ করার ক্ষমতা তুলে দেওয়া হলেও আদতে কিছুই করতে দেওয়া হল না। ফলে, পশ্চিমবঙ্গ বাংলা অকাদেমির সভাপতি পদে ইস্তফা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হলেন তিনি।

সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া তাঁর বিবৃতিতে প্রবাদপ্রতিম নাট্যব্যক্তিত্ব তৃপ্তি মিত্র এবং শম্ভু মিত্রর কন্যা জানিয়েছেন, যখন তিনি পশ্চিমবঙ্গ বাংলা অকাদেমির সভাপতি পদের ভারগ্রহণ করেন, তখন ব্যাপারটা ঠিকঠাকই ছিল। প্রায় বছর চারেক মতো তিনি স্বাধীন ভাবে কাজ করতে পেরেছিলেন। কিন্তু যাবতীয় গণ্ডগোলের সূত্রপাত হয় ২০১৬ সাল থেকে। সেই সময় থেকেই ধীরে ধীরে তাঁর কাজে অকারণ সরকারি হস্তক্ষেপ হতে থাকে। এক সময় প্রায় বন্ধই হয়ে আসে তাঁর কাজ করার ক্ষমতা।

যদিও এই প্রতিকূল পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়ে সঙ্গে সঙ্গে ইস্তফা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেননি শাঁওলি। বরং, যতটা পেরেছিলেন মানিয়ে-গুছিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু বর্তমানে পরিস্থিতি যে জায়গায় এসে দাঁড়িয়েছে, সেখান থেকে তাঁর আর কাজ করার কোনো ক্ষমতাই থাকছে না। ক্ষুব্ধ হয়ে, নিজের অসহায়তার কথা জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠিও দিয়েছিলেন তিনি। সেই ঘটনার পরে বেশ কিছু দিন কেটে গেলেও সরকারি তরফে কোনো রকম আশ্বাস মেলেনি। ফলে, একরকম বাধ্য হয়েই এবার সভাপতি পদ থেকে সরে আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।

“আমি কাজটা ভালোবেসে করতাম! সেটাই যখন আর করতে পারছি না, তখন আর থেকে লাভ কী”, অভিমানী সুর ধরা পড়ছে শাঁওলি মিত্রর স্বরে।

তাহলে কি শেষ পর্যন্ত নিজের সিদ্ধান্তে অটল থাকছেন শাঁওলি? তিনি নিজে সে কথা বললেও সরকারি তরফে এ নিয়ে এখনও কিছুই জানানো হয়নি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন