তিন মাসের মধ্যেই খুলে যাবে টালা ব্রিজ, পরিদর্শনের পর জানালেন পূর্তমন্ত্রী

0

কলকাতা: আগামী তিন মাসের মধ্যেই সম্পূর্ণ হয়ে যাবে টালা ব্রিজের কাজ। খুলে দেওয়া হবে সাধারণ মানুষের ব্যবহারের জন্য। শুক্রবার সেতুটি পরিদর্শনের পর এ কথা জানালেন রাজ্যের পূর্তমন্ত্রী মলয় ঘটক।

২০১৮ সালের ৪ সেপ্টেম্বর মাঝেরহাট ব্রিজ ভেঙে পড়ার পর থেকে শহরের সব ব্রিজের স্বাস্থ্য পরীক্ষার কাজ শুরু হয়। তখনই এই সেতুর জীর্ণ অবস্থা খতিয়ে দেখেই তা ভেঙে ফেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল রাজ্য সরকার। ২০২০ সালের ১ ফেব্রুয়ারি শুরু হয়েছিল পুরনো টালা ব্রিজ ভেঙে নতুন করে তৈরির উদ্যোগ। পাশাপাশি শুরু হয় নতুন সেতু তৈরির কাজ। এ দিন সেতুর কাজ পরিদর্শন করেন রাজ্যের পূর্তমন্ত্রী এবং স্থানীয় বিধায়ক তথা কলকাতা পুরসভার মেয়র পারিষদ অতীন ঘোষ। তাঁরা দীর্ঘক্ষণ সেতুটির সংস্কারের অবস্থা খতিয়ে দেখেন।

মন্ত্রী বলেন, আগামী তিন মাসের মধ্যেই সেতু সাধারণ মানুষের জন্য খুলে দেওয়া হবে। করোনা পরিস্থিতি এবং রেলের তরফে অনুমোদন পেতে দেরি হওয়ায় কাজ থমকে ছিল। কিন্তু এখন দ্রুতগতিতে কাজ চলছে। যা আগামী তিন মাসের মধ্যে শেষ হয়ে যাবে। তার পরেই সাধারণের জন্য সেতুটি খুলে দেওয়া হবে।

৮০০ মিটার দীর্ঘ ও ১৯ মিটার চওড়া এই ব্রিজ তৈরি করতে খরচ পড়ছে ৪৬৫ কোটি টাকা। যুদ্ধকালীন তৎপরতায় চলছে এই সেতু নির্মাণের কাজ। এর আগে সরকারি সূত্রে জানা গিয়েছিল, ফেব্রুয়ারির মধ্যে প্রকল্পের কাজ শেষ করে, মার্চ-এপ্রিলে নাগাদ রেল ওভারব্রিজ খোলার পরিকল্পনা রয়েছে। তবে মন্ত্রী এ দিন জানালেন, সেতুটি চালু হতে এখনও প্রায় মাসতিনেক সময় লাগবে।

উল্লেখ্য, উত্তর কলকাতার মধ্যে যোগাযোগের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এই টালা ব্রিজ। এখন বন্ধ থাকায় আপাতত বিকল্প পথে যান চলাচল করছে। টালা ব্রিজ খুলে গেলে যান চলাচলের ক্ষেত্রে যে সমস্যা তৈরি হয়েছে, তা মিটে যাবে।

আরও পড়তে পারেন:

সম্পত্তি ভোগের লোভে সুপারি কিলার দিয়ে স্বামীকে হত্যা, ৩৬ ঘণ্টার মধ্যেই ইসিএলের প্রাক্তন কর্মী খুনের কিনারা

খোলা মদের দোকান, পানশালা! স্কুল খোলার প্রশ্নে রাজ্য সরকারকে বিঁধলেন শুভেন্দু অধিকারী

পিছনে পড়ে রইলেন জো বাইডেন, বরিস জনসন! জনপ্রিয়তার শীর্ষস্থানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

উইল তৈরির আগে বাবার মৃত্যু হলে তাঁর অর্জিত সম্পত্তি পাবেন কন্যা, রায় দিল সুপ্রিম কোর্ট

পঞ্চাশ বছর পর নিভতে চলেছে অমর জওয়ান জ্যোতি, যাচ্ছে ‘ন্যশনাল ওয়ার মেমোরিয়াল’-এ

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন