অবৈধ ইটভাটাকে বৈধ করে আয় বাড়াবে রাজ্য, নিয়ন্ত্রণে আলাদা মন্ত্রিগোষ্ঠী

0
ইটভাটা

রাজ্যের সমস্ত ইটভাটাকে বৈধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। খনি আইনের আওতা থেকে বার করে আনা হবে এই শিল্পকে। পাশাপাশি ইটভাটাগুলির উপর নজরদারি ও নিয়ন্ত্রণের জন্য আলাদা মন্ত্রিগোষ্ঠীও তৈরি করা হয়েছে।

নবান্ন সূত্রে জানা গিয়েছে, রাজ্যের মোট ইটভাটার ৪০ শতাংশ বৈধ। বাকি যে অবৈধ ইটভাটাগুলি রয়েছে সেগুলিকেও বৈধ করার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করা হবে শীঘ্রই।

এর পর ফলে রাজ্যের আয় বাড়বে। একটি ইটভাটা থেকে বছরে ১০ থেকে ১২ লক্ষ টাকা রাজস্ব বাবদ আয় হয়। সমস্ত ইটভাটা বৈধ হলে রাজ্যে সরকারের আয় বেড়ে হবে বছরে প্রায় ১২০০ কোটি টাকা।

মখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী জানিয়েছেন, ইটভাটাগুলিকে আইনি ভাবে বৈধ করা হচ্ছে। খনি আইনের আওতা থেকে বার করে আনা হচ্ছে।

Shyamsundar

মাটি কেটে যে হেতু ইটভাটাগুলি ইট তৈরি করে, সে হেতু খনি শিল্পের আওতায় ছিল এই শিল্প। এ বার তাকে বের করে আনা হবে। নতুন নিয়মে দেড় মিটার মাটি কাটলে তা খনি শিল্পের আওতায় পড়বে না।

সারা দেশেই ইটভাটা নিয়ে নানা বিতর্ক রয়েছে। এই নিয়ে একাধিক মামলাও হয়েছে পরিবেশ আদালতে। পরিবেশ দূষণের পাশাপাশি কৃষি জমি দখল করে ইটভাটা তৈরির অভিযোগ রয়েছে। তাই সব ইটভাটা বৈধ করা হলে পরিবেশ ও কৃষিজমির উপর আঘাত বাড়বে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

কী বলছেন ইটভাটার মালিকরা

সরকারের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন ইটভাটা মালিক সংগঠনগুলি। তারা সরকারকে প্রস্তাব দিয়েছে, মজে যাওয়া খাল-বিল ও নদীর চড়া থেকে মাটি তোলার অনুমতি দেওয়া হোক। এর ফলে আগামী ৫০ বছর মাটির অভাব হবে না বলেই মনে করছেন তাঁরা।

সূত্র : এবিপি আনন্দ

আজকের আরও কিছু উল্লেখযোগ্য খবর পড়ুন এখানে:

মেঘভাঙা বৃষ্টিতে কার্যত বানভাসি কলকাতা ও পার্শ্ববর্তী শহরাঞ্চল

‘…অন্য কিছু ভাবতে হবে’, বাবুল সুপ্রিয়র দলবদলের পর সুর চড়ালেন রায়গঞ্জের বিজেপি বিধায়ক

‘এক্সট্রা লোক চলে যেতে পারে’, বাবুল সুপ্রিয় প্রসঙ্গে খোঁচা দিলীপ ঘোষের

৬ মাসে ১ লক্ষ বেকারের সরকারি চাকরি, উত্তরাখণ্ড নির্বাচনের আগে কেজরিওয়ালের বড়ো ঘোষণা

ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল অরুণাচলপ্রদেশ, রিখটার স্কেলে মাত্রা ৪.৪‌‌

‘খেলার সুযোগ না পেয়ে বিজেপি ছেড়েছি’, আরও খোলসা করলেন বাবুল সুপ্রিয়

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন