ভোরে উত্তর, সকালে দক্ষিণ, ঝড়বৃষ্টি-বজ্রপাতে ত্রস্ত পঞ্চমীর কলকাতা

0

কলকাতা: পঞ্চমীর ভোর আর সকালে কলকাতায় হঠাৎ দু’দফায় হানা দিল প্রবল ঝড়বৃষ্টি। আচমকা এই ঝড়বৃষ্টির জন্য ত্রস্ত হয়ে গেল শহর।

শুরু হয়েছিল রাত তিনটে থেকে। কলকাতার উত্তরাংশের ওপরে তৈরি হয়েছিল বজ্রগর্ভ মেঘ। সাড়ে তিনটে নাগাদ শুরু হল প্রবল ঝড়। তবে মজার ব্যাপার হল শহরের উত্তরাংশে এবং উত্তর শহরতলিতেই এই ঝড়ের প্রভাব সীমাবদ্ধ মূলত ছিল।

মধ্য কলকাতাতেও ঝড়বৃষ্টি হয়েছে। তবে তার দাপট উত্তরের থেকে অনেকটাই কম ছিল। আর উত্তর যখন চিন্তিত হয়ে পড়েছে ঝড়ের দাপটে, তখন দক্ষিণ শান্তিতে ঘুমোচ্ছে। কারণ সেখানে ঝড়বৃষ্টির কোনো লক্ষ্মণই ছিল না।

কিন্তু সকাল সাড়ে ন’টা নাগাদ দক্ষিণের পালা এল। উত্তরের মতো না হলেও, সেখানেও দাপট দেখাল ঝড়বৃষ্টি। সেই সঙ্গে মুহুর্মুহু বজ্রপাত।

তবে যে ভাবে এ দিন শেষ রাতে ঝড়বৃষ্টি হানা দিল, তার নজির শহরের ইতিহাসে খুব একটা নেই। পূর্বাভাসে বলা হয়েছিল, পুজোর দিনগুলোয় বিক্ষিপ্ত ঝড়বৃষ্টি চলবে। এটাও সে রকমই একটা ব্যাপার।

বুধবার দিন বেশ জোরদার গরম পড়েছিল শহরে। তার জেরেই এই ঝড়বৃষ্টি বলে জানাচ্ছে বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা ওয়েদার আল্টিমা।

সংস্থার কর্ণধার রবীন্দ্র গোয়েঙ্কার কথায়, “মাটি গরম হয়ে যাওয়ার ফলে স্থানীয় ভাবে নিম্নচাপ বলয় তৈরি হয়েছে। অন্য দিকে সাগরে রয়েছে উচ্চচাপ বলয়। এর প্রভাবেই শহরের ওপরে স্থানীয় ভাবে বজ্রগর্ভ মেঘ তৈরি হয়ে যায়।”

[রাজ্যের ছয় জেলা বন্যা কবলিত। বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন এখানে]

উত্তর কলকাতায় একটা সময়ে বৃষ্টি হচ্ছিল ঘণ্টায় ১৪০ মিলিমিটার হারে। যদিও তা দশ মিনিটের বেশি হয়নি। কিন্তু তাতেও কিছু এলাকায় অল্পক্ষণের জন্য জল দাঁড়িয়ে যায় বলে খবর। সেই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে হচ্ছিল মুহুর্মুহু বজ্রপাত। যদিও দক্ষিণের বৃষ্টির দাপট কমই ছিল।

পুজোয় যে হেতু বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে, তাই মাঝেমধ্যেই এই বৃষ্টি হবে বলে ধরে নেওয়া যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.