ঝিরঝিরে বৃষ্টির মাঝেই শিলিগুড়ি থেকে কলকাতায় ঢুকে পড়ল ২ চিতাবাঘ

0
leopards
শিলিগুড়ির নর্থ বেঙ্গল ওয়াইল্ড পার্ক থেকে নিয়ে আসা হল নয়ন এবং শিশিরকে। প্রতীকী ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদন: এ বারের বর্ষায় জমজমাট আলিপুর চিড়িয়াখানা। এত দিন ছিল একটি মাত্র চিতাবাঘ। তাও তার বয়স প্রায় ১৮ বছর। এ বার শিলিগুড়ি থেকে নিয়ে আসা হল নয়ন ও শিশিরকে।

এই দু’টি চিতাবাঘ আসায় এখন আলিপুর চিড়িয়াখানায় চিতাবাঘের সংখ্যা দাঁড়াল তিনি। চিড়িয়াখানা সূত্রের খবর, শীতের আগেই নিয়ে আসা হবে আরও দু’টি বন্য কুকুরকে। শিলিগুড়ির নর্থ বেঙ্গল ওয়াইল্ড পার্ক থেকে নিয়ে আসা হয়েছে নয়ন ও শিশিরকে। গত বছরের মে মাসে কাডাম্বারি চা-বাগান থেকে উদ্ধার করা হয় এই দুই চিতাশাবককে।পুরুষ চিতাবাঘটির নাম রাখা হয় শিশির (বয়স ১ বছর ১ মাস) এবং স্ত্রী চিতাবাঘটির নাম নয়ন (বয়স ১ বছর ৩ মাস)।

কর্তৃপক্ষ জানান, এদের আপাতত পর্যবেক্ষণে রাখা হবে। এক মাস পর তাদের নিয়ে আসা হবে দর্শকদের সামনে। চিড়িয়াখানার অধিকর্তা আশিসকুমার সামন্ত বলেন, গত বছর উদ্ধারে পর এদের লোকচক্ষুর আড়ালে নর্থ বেঙ্গল ওয়াইল্ড পার্কে রাখা হয়। মঙ্গলবার তাদের কলকাতায় নিয়ে আসা হয়েছে। এক মাস পর্যবেক্ষণের পর জনসমক্ষে নিয়ে আসা হবে তাদের।

একটি চিতাবাঘ সাধারণত ২০ বছর বাঁচে। এদের বয়স যেহেতু কম, তাই বছরখানেকের মধ্যে প্রজনন ঘটিয়ে বংশবৃদ্ধির সম্ভাবনা থাকছে বলে মনে করছেন কর্তৃপক্ষ।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি যে দু’টি সিংহশাবককে আলিপুর চিড়িয়াখানায় নিয়ে আসা হয়েছে তাদেরও দর্শকদের জন্য খাঁচায় রাখা হবে। একই সঙ্গে এ মাসের মাঝামাঝি সময়ে চারটি অ্যানাকোন্ডাকেও প্রকাশ্যে নিয়ে আসা হবে। আশিসবাবু বলেন, সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে দু’টি সিংহশাবক, চারটি অ্যানাকোন্ডা, দু’টি চিতাবাঘ এবং ভাইজ্যাক চিড়িয়াখানা থেকে নিয়ে আসা বন্য কুকুরকে এ বারের শীতে দর্শক দেখতে পাবেন। অন্য দিকে হায়না, উলফ-এর জন্য নতুন এনক্লোজার তৈরি হচ্ছে, তাদেরও ছাড়া হবে।

আলিপুর চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ জানান, জাতীয় পশুশালা কর্তৃপক্ষের অনুমতি মেলায় শীতের মধ্যে অন্ধ্রপ্রদেশের ইন্দিরা গান্ধী জুওলজিক্যাল পার্ক থেকে জংলি কুকুর নিয়ে আসা হবে। এ ছাড়াও বেশ কিছু অতিথি এসেছে। এদের মধ্যে রয়েছে একটি বছর পাঁচেকের সাদা বাঘ, চারটি সম্বর হরিণ এবং ছ’টি কৃষ্ণসার হরিণ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here