পুজোর চার দিন টিকাকরণ বন্ধ কলকাতায়

0

টিকাকর্মীদের মানসিক অবস্থার কথা মাথায় রেখেই সিদ্ধান্ত নিয়েছে কলকাতা পুরসভা।

কলকাতা: দুর্গাপুজোয় এক টানা চার দিন টিকাকরণের কাজ বন্ধ থাকছে কলকাতায়। শনিবার এমনটাই জানালেন কলকাতা পুরসভার বর্তমান পুরপ্রশাসক ফিরহাদ হাকিম।

এ দিন নিজের ‘টক টু কেএমসি’ অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছিলেন কলকাতার প্রাক্তন মেয়র। অনুষ্ঠানের শেষের দিকে টিকাকরণ সংক্রান্ত একটি প্রশ্নের জবাবে ফিরহাদ বলেন, পুজোর চার দিন কোভিড টিকাকরণের কাজ বন্ধ থাকছে। তবে তার পরই ফের টিকাকরণ আগের মতোই চলবে। টিকাকর্মীরা কোনো রকমের ছুটি ছাড়ায়ই এক নাগাড়ে কাজ করে চলেছেন। ফলে তাঁদের মানসিক অবস্থার কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

কলকাতা পুরসভার তরফে একশোর বেশি কেন্দ্রে এখন টিকাকরণের কাজ চলছে। পুরসভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, পুজোর চার দিন সেগুলো বন্ধ থাকবে।

দুর্গাপুজোর আনন্দে মেতে ওঠার পাশাপাশি কোভিডবিধি মেনে মাস্ক ও স্যানিটাইজার ব্যবহারের বিষয়গুলোই মাথায় রাখতে বলেন রাজ্যের মন্ত্রী। তাঁর কথায়, “পুজোয় আনন্দ করার সময় আমরা যেন ভুলে না যাই, করোনা এখনও চলে যায়নি। ফলে শারীরিক দূরত্ববিধি মেনে চলার পাশাপাশি মাস্ক ও স্যানিটাইজারও ব্যবহার করতে হবে”।

কলকাতা পুলিশের পক্ষ থেকে শহরের বিভিন্ন জায়গায় নিরাপত্তা সংক্রান্ত সমস্ত বিষয় মাথায় রাখা হয়েছে। এমনকী বিসর্জনের দিনগুলোতেও যাতে কোনো সমস্যা না হয়, তার জন্য কলকাতা পুলিশ ও বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীকে বিভিন্ন ঘাটে মোতায়েন করা হচ্ছে। একই সঙ্গে দূষণ প্রতিরোধে গঙ্গার দিকেও বিশেষ নজর দেওয়া হয়েছে বলে জানান ফিরহাদ। তিনি বলেন, শহর কলকাতায় প্রতিমা নিরঞ্জনের ক্ষেত্রে যদি কোনো পুজো কমিটি কৃত্রিম জলাধারের ব্যবস্থা করতে চায়, তা হলে কলকাতা পুরসভার পক্ষ থেকে সবরকম সহযোগিতা করা হবে।

উল্লেখ্য, শুক্রবার পর্যন্ত পাওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, রাজ্যে কোভিড টিকার সাড়ে ৪ কোটি প্রথম ডোজ দেওয়া হয়েছে। প্রথম এবং দ্বিতীয় মিলিয়ে দেওয়া হয়েছে প্রায় ৬ কোটি ২০ লক্ষ ডোজ। রাজ্যে ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে প্রায় ৭ কোটি মানুষ টিকা পাওয়ার যোগ্য।

আরও পড়তে পারেন: পশ্চিমবঙ্গের করোনা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত, সামান্য বাড়লেও কলকাতার সংক্রমণ উদ্বেগজনক নয়

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন