tanvir

কলকাতা: বুকে বন্দুক ঠেকিয়ে স্বামীর দুই কান কেটে দেওয়ার অভিযোগ উঠল স্ত্রীয়ের বিরুদ্ধে। নারকেলডাঙা থানা এলাকার নর্থ রোডের ঘটনা। আহত যুবকের নাম মহম্মদ তনবীর। আশঙ্কাজনক অবস্থায় আপাতত এন আর এস হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

তনবীরের পরিবার সুত্রে জানা গিয়েছে, বছর দুয়েক আগে বছর ৪০-এর মুমতাজ বিবির সঙ্গে বিয়ে হয় বছর কুড়ির তনবীরের। বিয়ের পর থেকে মুমতাজের বাড়িতেই থাকত সে। নিজের মায়ের সঙ্গেও তনবীরকে দেখা করতে দেওয়া হত না বলে অভিযোগ। অভিযোগ, মুমতাজের কথার অবাধ্য হলেই তার উপর চলত অকথ্য অত্যাচার। কয়েক বার বাড়ি থেকেও পালিয়ে যায় তনবীর।

wife-of-tanvir
তনবীরের স্ত্রী

ছেলের উপর অত্যাচার হচ্ছে দেখে টাকার বিনিময়ে তনবীরকে ছেড়ে দেওয়ার রফা করেন তার মা। নিজের একটি বাড়ি বিক্রি করে বৌমা মুমতাজকে টাকা দেন। কিন্তু তার পরেও তাকে ছাড়েনি মুমতাজ। মঙ্গলবার সকালে অত্যাচারের চোটে চুপিচুপি বাড়ি ছেড়ে মল্লিকপুর পালিয়ে গিয়েছিল তনবীর। সেখান থেকে তাকে তুলে আনা হয়। বাড়িতে নিয়ে এসে রাতে মুমতাজ ও অন্য বোনেরা মিলে বুকে বন্দুক ঠেকিয়ে তার দু’কান কেটে নেয়।

তবে রক্তাক্ত অবস্থায় ঘটনাস্থল থেকে কোনো রকমে পালিয়ে আসে তনবীর। খবর যায় তার বাড়ির লোকের কাছে। তাঁরাই তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। ঘটনায় নারকেলডাঙা থানায় অভিযোগ দায়ের পরিবারের। ঘটনার পর থেকেই পলাতক মমতাজ ও তার বোনেরা।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here