রোদ উঠল কলকাতায়। প্রবল বৃষ্টির হাত থেকে সাময়িক রেহাই পেল দক্ষিণবঙ্গ। হ্যাঁ সাময়িকই, কারণ আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস বলছে দু-তিন দিন পর ফের ভারী বৃষ্টি নামতে পারে দক্ষিণবঙ্গে।

বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া নিম্নচাপটি এখনও পর্যন্ত একই শক্তি ধরে রেখেছে। বুধবার দুপুরে আবহাওয়া দফতর পূর্বাভাসে জানিয়েছে মুর্শিদাবাদ-বীরভূম লাগোয়া ঝাড়খণ্ডে অবস্থান করছে সে। কলকাতা থেকে নিম্নচাপটি বেশ দূরে অবস্থান করায় বুধবার বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গেই রোদ উঠেছে শহরে। তবে মুর্শিদাবাদ, বীরভূম, বর্ধমান আর নদিয়া এই চার জেলার কিছু অংশে বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত ভারী বৃষ্টির সতর্কতা জারি রাখা হয়েছে। তবে উত্তরবঙ্গ আর বিহারের জন্য চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে এই নিম্নচাপটি। এর গতিপ্রকৃতি বিশ্লেষণ করে আবহাওয়াবিদরা জানাচ্ছেন, এর পর নিম্নচাপটি ঝাড়খণ্ড হয়ে উত্তরে বিহার সংলগ্ন উত্তরবঙ্গের দিকে চলে আসবে। এর প্রভাবে জোর বৃষ্টি হবে উত্তরবঙ্গ এবং বিহারে। আগামী পাঁচ দিন ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হবে উত্তরবঙ্গ আর বিহারের বিভিন্ন জায়গায়। উল্লেখ্য কয়েকদিন আগেই ভয়াবহ বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছিল বিহারে। পরিস্থিতির অনেকটাই উন্নতি হলেও আবহাওয়া দফতরের আগামী পাঁচ দিনের বৃষ্টির পূর্বাভাসে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে সব মহলে।

অন্যদিকে, মঙ্গলবারের পর দক্ষিণবঙ্গ ও ঝাড়খণ্ডের দামোদর অববাহিকা অঞ্চলে বৃষ্টি কমে আসার জলাধার থেকে জল ছাড়ার পরিমাণ কমিয়েছে ডিভিসি। সোমবার রাত থেকে প্রবল বৃষ্টির ফলে পাঞ্চেত, মাইথন, দুর্গাপুর জলাধার থেকে বিপুল হারে জল ছাড়তে বাধ্য হয় ডিভিসি। শুধু ডিভিসিই নয়, রাজ্য সেচ দফতরের অধিনে থাকা মুকুটমণিপুর জলাধার থেকেও জল ছাড়া হয়। এই জলের ফলে বিচ্ছিন্ন হয় রানিগঞ্জ ও খাতরার মধ্যে সড়ক যোগাযোগ। নতুন করে বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে বলে সতর্ক থাকতে বলা সংশ্লিষ্ট সব মহলকে। তবে বৃষ্টি কমে আশায় এই মুহূর্তে আর বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়তো হবে না।

গত দুদিনের এই বৃষ্টির ফলে দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টি পরিস্থিতি আরও উন্নতি হল। আগস্টে তিনটে পরপর নিম্নচাপের ফলে এক সময় দক্ষিণবঙ্গে বাড়তি বৃষ্টির পরিমাণ ১২ শতাংশে চলে গিয়েছিল। কিন্তু তারপর আর দু’সপ্তাহ বৃষ্টি না হওয়ায় ফের নামতে থাকে সেই সংখ্যা। গত রবিবার দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টির হাল ছিল স্বাভাবিকের থেকে মাত্র ৩ শতাংশ বাড়তি। মঙ্গলবার বিকেলের হিসেবে দেখা গেছে সেই অঙ্কটা আবার উঠে এসেছে ১০ শতাংশে। মঙ্গলবার রাতেও যেহেতু ভারী বৃষ্টি হয়েছে কোথাও কোথাও তাই এই সংখ্যাটা আরও কিছুটা বাড়তে পারে।

তবে বৃষ্টি থেমে গেলেও দু-তিন দিন পর কলকাতা ও সংলগ্ন এলাকায় ফের ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দফতর।  

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here