কলকাতা: রাজ্যে যেখানে রক্তে হাহাকার চলছে, সেখানে কলকাতার মানিকতলা সেন্ট্রাল ব্লাড ব্যাঙ্ক থেকে ৮০০ প্যাকেট মেয়াদ-উত্তীর্ণ রক্ত নষ্ট করে ফেলার অভিযোগ উঠল। রাজ্যের সরকারি হাসপাতালগুলিতে রক্ত অমিল। রক্তের জন্য রোগীর পরিবার এক হাসপাতাল থেকে অন্য হাসপাতালে ঘুরে বেড়াচ্ছে। ও দিকে মানিকতলা ব্লাড ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষের গাফিলতিতেই প্রায় ৮০০ প্যাকেট রক্ত ব্লাড ব্যাঙ্কের পাশে একটি ড্রেনে ফেলা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

সূত্র মারফৎ জানা গিয়েছে, এই প্যাকেটগুলি কোনোটার মেয়াদ জানুয়ারি মাসে, আবার কোনোটা ডিসেম্বর মাসে আবার কোনোটা আবার ফেব্রুয়ারি-মার্চে উত্তীর্ন হয়েছে। এখনও মানিকতলা ব্লাড ব্যাঙ্কের স্টোররুমে অনেক মেয়াদ-উত্তীর্ন রক্ত পড়ে রয়েছে। এই রক্তও ধাপে ধাপে নষ্ট করা হচ্ছে। প্রতি মাসে এই ব্লাড ব্যাঙ্কে প্রায় ২ হাজার প্যাকেট রক্ত আসে।

এই ৮০০ প্যাকেট রক্ত নষ্ট করা নিয়ে প্রশ্ন তৈরি হয়েছে মানিকতলা ব্লাড ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে। প্রশ্ন উঠছে, যদি এই ব্লাড ব্যাঙ্কে রক্তের প্যাকেটের সংখ্যা বেশি হয়ে যায়, তা হলে কেন কর্তৃপক্ষ অন্য কোনো ব্লাড ব্যাঙ্কে ওই প্যাকেটগুলি পাঠিয়ে দিলেন না।

এই বিষয়ে মানিকতলা ব্লাড ব্যাঙ্কের ডিরেক্টর কুমারেশ হালদারকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, “আমরা সংবাদমাধ্যকে কোনো উত্তর দিতে বাধ্য নই।”

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন