শ্রীনগর: কাশ্মীরে ফের ভিন্ রাজ্যের শ্রমিককে গুলি করে খুন করল জঙ্গিরা। বৃহস্পতিবার রাতে বদগামে জঙ্গি হামলার শিকার হয় দুই শ্রমিক। তাঁদের মধ্যে এক জন নিহত হয়েছেন। আহত এক জন। তাঁরা বিহারের বাসিন্দা।

পুলিশ সূত্রের খবর, ওই দুই শ্রমিক চাদুরা এলাকায় মগ্রেপোরায় একটি ইটভাটায় কাজ করতেন। বৃহস্পতিবার রাতে সেখানে চড়াও হয় জঙ্গিরা। দুই শ্রমিককে চিহ্নিত করে গুলি করা হয়। স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়ে চিকিৎসকেরা গুরুতর জখম দিলখুশ কুমারকে (১৭) শ্রীনগরের এসএমএইচএস হাসপাতালে স্থানান্তরের পরমর্শ দেন। সেখানে নিয়ে যাওয়ার কিছুক্ষণ পরেই তাঁর মৃত্যু হয়। গুরি নামে আর এক জখম শ্রমিকের অবস্থা স্থিতিশীল বলে পুলিশ সূত্রে জানানো হয়েছে। গত অক্টোবরেও জঙ্গিদের গুলির শিকার হয়েছিলেন বিহারের তিন শ্রমিক।

কাশ্মীর উপত্যকায় গত তিন দিনে এই নিয়ে জঙ্গি হামলায় মৃত্যু হল তিন জনের। তাঁর মধ্যে দু’জন ভিনরাজ্যের। বৃহস্পতিবার দুপুরে কুলগাম জেলার এল্লাকুয়াই দেহাতি ব্যাঙ্কের ভিতরে ঢুকে বিজয় কুমার নামে ওই ব্যাঙ্কের ম্যানেজারকে গুলি করে খুন করে এক আততায়ী। বিজয় ছিলেন রাজস্থান বাসিন্দা।

মঙ্গলবার কুলগাম জেলার গোপালপোরা এলাকার একটি স্কুল চত্বরে ঢুকে শিক্ষিকা রজনী বালাকে খুন করা হয়। তার আগে ১৩ মে বদগামে জেলার সরকারি কর্মী রাহুল ভট্ট নিজের দফতরে জঙ্গি হামলার শিকার হয়েছিলেন। তাঁরা দু’জনেই ছিলেন কাশ্মীরি পণ্ডিত।

গত কয়েক মাস ধরেই উপত্যাকায় জঙ্গিরা বেছে বেছে সংখ্যালঘু হিন্দু এবং শিখ সম্প্রদায়ের মানুষদের খুন করছে। ইতিমধ্যেই নিরাপত্তার দাবিতে সরব হয়েছেন কাশ্মীরি পণ্ডিতেরা। কাশ্মীরি পণ্ডিত রাহুল খুনের পরেই উপত্যকায় সংখ্যালঘু পণ্ডিত সম্প্রদায়ের ক্ষোভ দানা বাঁধছিল। বর্তমান পরিস্থিতিতে সেই আন্দোলন আরও জোরদার করছেন প্রতিবাদীরা।

আরও পড়তে পারেন:

‘সরকারে থাকলেও হাত বাঁধা ছিল’, সেনাকে আক্রমণে ইমরান খান

এই প্রথম, কাবুলে তালিবান নেতৃত্বের সঙ্গে দেখা করল বিদেশমন্ত্রকের প্রতিনিধি দল

জলের ভয়াবহ আকাল, দড়ি ছাড়াই গভীর কুয়োতে নামছেন মহিলারা

প্রতিটি মসজিদে শিবলিঙ্গ খোঁজার কী প্রয়োজন? জ্ঞানবাপী বিতর্কে জল ঢেলে দিলেন মোহন ভগবত

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন