এক দিনে বিজেপিতে যোগ দিলেন ১০ বিধায়ক, সিকিমের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর জন্য বিপদ সংকেত!

0

ওয়েবডেস্ক: বিজেপির সর্বভারতীয় কার্যকরী সভাপতি জে পি নাড্ডার উপস্থিতিতে দলবদল করলেন সিকিম ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (এসডিএফ)-এর ১০ বিধায়ক। মঙ্গলবার এই ১০ জন বিধায়ক নয়াদিল্লিতে গিয়ে বিজেপিতে যোগ দেন।

সিকিমের মোট ৩২টি বিধানসভা আসন রয়েছে। ২০১৯-এর রাজ্য বিধানসভা নির্বাচনে সিকিম ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (এসডিএফ) ১৫টি আসনে জিতেছিল এবং সিকিম ক্রান্তিকারী মোর্চা (এসকেএম) জিতেছিল ১৭টি আসনে। এসকেএম ইতিমধ্যে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএর অংশীদার। কিন্তু এ দিনের দলবদলের ফলে বড়োসড়ো সতর্কতাবার্তা পৌঁছাল সিকিমের প্রায় দুই দশকের মুখ্যমন্ত্রী তথা এসডিএফ প্রধান পবন চামলিংয়ের কাছে।

এক নজরে সিকিম বিধানসভা

কার দখলেআসন সংখ্যা
এসকেএম১৭
বিজেপি১০
এসডিএফ০৩
শূন্য০২

এ দিন দিল্লিতে বিজেপির কার্যকরী সভাপতি জেপি নাড্ডা ও অন্যতম সাধারণ সম্পাদক রাম মাধবের উপস্থিতিতে ওই ১০ জন এসডিএফ বিধায়ক গেরুয়া শিবিরে যোগ দেন।

এখন পর্যন্ত, সিকিম উত্তর-পূর্ব ভারতের একমাত্র রাজ্য যেখানে বিজেপি ক্ষমতায় ছিল না। অন্য সমস্ত রাজ্যে সরকার রয়েছে যা উত্তর-পূর্ব গণতান্ত্রিক জোটের (এনইডিএ) অংশবিশেষ হিসাবে পরিচালিত হয়, বিজেপি উত্তর-পূর্বে ভারতে নিজের প্রভাব বিস্তৃত করতে আঞ্চলিক দলগুলিকে সঙ্গে নিয়ে এই বিশেষ বিশেষ জোট গঠন করে। তবে সিকিমের বর্তমান পরিস্থিতি বলছে, অদূর ভবিষ্যতে সেই সমীকরণও বদলে যেতে পারে।

বর্তমানে এসডিএফের হাতে রইল মাত্র তিনটি আসন। কারণ, এ দিন ১০ জন বিধায়ক যোগ দিলেন বিজেপিতে, এ ছাড়াও দুই বিধায়ক জিতেছিলেন ২টি করে আসনে। তাঁরা পদত্যাগ করেছেন অতিরিক্ত আসন থেকে। যে কারণে, ভোটে জেতা ১৫টি আসনের মধ্যে এসডিএফের হাতে এখন মাত্র তিনটি।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের সিকিম বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি পেয়েছিল মাত্র ১.৬২ শতাংশ ভোট।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.