নতুন করোনা আক্রান্তের ৭৫ শতাংশই ১০টি রাজ্যে

0

খবর অনলাইন ডেস্ক: শনিবার স্বাস্থ্যমন্ত্রকের প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৮৫ হাজার ৩৬২। এর মধ্যে ৭৫ শতাংশই দেশের ১০টি রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে।

একই সঙ্গে মন্ত্রক জানায়, এখনও পর্যন্ত সারা দেশে ৭ কোটি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। দৈনিক নমুনা পরীক্ষার সংখ্যাও ১৪ লক্ষের গণ্ডি পার করেছে।

কোন ১০টি রাজ্য?

স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানায়, শেষ ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্তদের মধ্যে ৭৫ শতাংশই ১০টি রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের। পর্যায়ক্রমিক ভাবে যেগুলির মধ্যে রয়েছে মহারাষ্ট্র, অন্ধ্রপ্রদেশ, কর্নাটক, কেরল, তামিলনাড়ু, উত্তরপ্রদেশ, ওড়িশা, দিল্লি, পশ্চিমবঙ্গ এবং ছত্তীসগঢ়।

সুস্থতার নেপথ্যে পরিকাঠামো উন্নয়ন

দেশে এখনও পর্যন্ত আক্রান্ত হওয়ার পর করোনামুক্ত হয়েছেন মোট ৪৮ লক্ষ ৪৯ হাজার ৫৮৪ জন। ভারতে বর্তমানে সুস্থতার হার পৌঁছে গিয়েছে ৮২.১৪ শতাংশে। যা বিশ্বের অন্য়ান্য দেশের থেকে অনেকটাই বেশি বলে দাবি করেছে কেন্দ্র।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. হর্ষ বর্ধন বলেন, হাসপাতালগুলির ব্যাপক পরিকাঠামোগত উন্নয়ন, একই সঙ্গে কোয়ারান্টাইন কেন্দ্র গড়ে তোলা, পিপিই কিট এবং অন্যান্য চিকিৎসা সরঞ্জামের জোগান অব্যাহত থাকায় দেশে করোনামুক্তির হার ৮২ শতাংশের উপরে। অন্য দিকে মৃত্যুহারও কমে ১.৬০ শতাংশের নীচে রয়েছে।

তিনি বলেন, “ভারতে এক দিকে যেমন সুস্থতার হার ক্রমশ ঊর্ধ্বমুখী, তেমনই অন্য দিকে মৃত্যুহারও নিম্নগামী। এতেই প্রমাণ হয়, রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে সঙ্গে নিয়ে আক্রান্তের চিহ্নিতকরণ এবং যথাযথ চিকিৎসায় যে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে, তা সফল হচ্ছে। আমরা খুব শীঘ্রই দৈনিক নমুনা পরীক্ষার সংখ্যার দিক থেকে ১৫ লক্ষের মাইলফলক ছুঁয়ে ফেলব। বর্তমানে সারা দেশে ১ হাজার ৮০০-র বেশি ল্যাবরেটরিতে নমুনা পরীক্ষা চলছে”।

আরও পড়তে পারেন: করোনায় আরও ১০ লক্ষ মানুষের মৃত্যু হতে পারে, উদ্বেগের কথা শোনাল ‘হু’

সেরো-সার্ভে এবং অ্যান্টিবডি

ভারতের কোভিডচিত্রে সামগ্রিক উন্নতির লক্ষ্মণ গত এক সপ্তাহ ধরে দেখা যাচ্ছে। সুস্থতার হার এবং মৃত্যুহারে ইতিবাচক ইঙ্গিত উঠে আসার পাশাপাশি মানুষের শরীরে অ্যান্টিবডি তৈরির বিষয়েও গবেষকরা আশার কথা শোনাচ্ছেন।

সম্প্রতি, পুনের সিএসআইআর-ন্যাশনাল কেমিক্যাল ল্যাবরেটরি (এনসিএল) এবং সিএসআইআর-ইউনিট ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন প্রোডাক্টস অব ডেভেলপমেন্ট (ইউআরডিআইপি) একটি সেরো-সার্ভে চালায়। এতে সংস্থাগুলির বিজ্ঞানী, গবেষক ছাত্র এবং কর্মী ও তাঁদের পরিবারের সদস্য নিয়ে ৩৩৯ জনের উপর সমীক্ষাটি চালানো হয়।

সমীক্ষার ফলাফলে দেখা যায়, ২৪ জনের শরীরে অ্য়ান্টিবডি তৈরি হয়েছে। তাঁদের মধ্যে ১৮ জন পুরুষ এবং ৬ জন মহিলা।

আরও পড়তে পারেন: দেশে ফের নতুন আক্রান্তের সংখ্যাকে ছাপাল সুস্থতা, সংক্রমণের হারও কমছে ধীরে ধীরে

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন