নয়াদিল্লি: বিজেপি দাবি করে মোদী সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে দেশে সে অর্থে কোনো সাম্প্রদায়িক হিংসা হয়নি। কিন্তু বুধবার রাজ্যসভায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী হংসরাজ গঙ্গারাম আহির যে তথ্য দিয়েছেন তাতে তাদের এই দাবি একেবারেই নস্যাৎ হয়ে যায়। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জানিয়েছেন, ২০১৭ সালে ৮২২ সাম্প্রদায়িক হিংসায় ১১১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

রাজ্যসভায় এক প্রশ্নের লিখিত জবাবে তিনি আরও বলেন, ২০১৬ সালে ৭০৩ সাম্প্রদায়িক হিংসায় ৮৬ জনের মৃত্যু হয়েছিল। ২০১৫ সালে ৭৫১ একই ধরনের হিংসায় ৯৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং-এর সুরেই তিনি বলেন, আইন-শৃঙ্খলা যে হেতু রাজ্যের এক্তিয়ারভুক্ত, তাই সাম্প্রদায়িক হিংসা সামলানো এবং দোষীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দায় রাজ্যেই।

দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখতে কেন্দ্র বিভিন্ন ভাবে রাজ্যকে সাহায্য করতে পারে। সেই সাহায্যের মধ্যে থাকে গোয়েন্দা তথ্য সরবরাহ, অ্যালার্ট ম্যাসেজ এবং পরিস্থিতি নিয়ে নিয়মিত তথ্য সরবরাহ।

কয়েক দিন আগেই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং গণরোষে মৃত্যু প্রসঙ্গ বলেছিলেন, গণরোষ সামলানোর দায় রাজ্যের। লোকসভায় অনাস্থা প্রস্তাবের ওপর জবাবি ভাষণে একই কথা বলেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও।

পড়তে পারেন : দাঙ্গা-ভাঙচুরে জড়িত থাকার অভিযোগে হার্দিক পটেলের দু’বছরের জেল

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here