পটনা: ক’দিন আগেই অরুণাচলে ভাঙন ধরেছে বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারের দল জেডি(ইউ)-তে। সেই ঘটনার রেশ না মিটতেই বুধবার এক আরজেডি নেতার দাবি ঘিরে উত্তাল বিহারের রাজ্য-রাজনীতি।

বিহারের সাম্প্রতিক বিধানসভা ভোটে ধ্বস নেমেছে জেডি(ইউ)-র আসন সংখ্যায়। জোট শরিক বিজেপির ‘সৌজন্যে’ কোনো রকমে মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ারে ফিরেছেন নীতীশ। এরই মধ্যে বিরোধী দল আরজেডির এক নেতা দাবি করেছেন, দেড় ডজনেরও বেশি জেডি(ইউ) বিধায়ক দল ছাড়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

Loading videos...

আরজেডির দাবি

বুধবার আরজেডি নেতা শ্যাম রজক সংবাদ সংস্থা এএনআই-কে বলেন, নীতীশ কুমারের ১৭ জন বিধায়ক বিরোধী দলে যোগ দেওয়ার অপেক্ষায় রয়েছেন। তাঁরা এ ব্যাপারে আরজেডি নেতৃত্বের সঙ্গে যোগাযোগও রাখছেন।

গত ২৫ ডিসেম্বর জেডি(ইউ)-র ছয় বিধায়ক নাম লেখান বিজেপিতে। ফলে ৬০ সদস্যের অরুণাচল বিধানসভায় জেডিইউ-র দিকে রইলেন মাত্র একজন বিধায়ক। সেই ঘটনার রেশ ধরেই বিহারেও ঘোলা জলে মাছ ধরতে নেমে পড়েছে আরজেডি।

শ্যাম রজক বলেন, “জেডি(ইউ)-র ওই বিধায়করা আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করছেন। তাঁরা সকলেই বর্তমান ব্যবস্থায় অস্বস্তি বোধ করছেন। মুখ্যমন্ত্রী যেখানে বিজেপির দাপটের সামনে বন্দি হয়ে রয়েছেন বলে মনে করছেন তাঁরা। যে কারণে যত দ্রুত সম্ভব তাঁরা দলবদল করতে ইচ্ছুক”।

চাই কমপক্ষে ২৮ বিধায়ক

শ্যাম রজক নিজেও এক সময় জেডি(ইউ)-তে ছিলেন। তিনি ছিলেন দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক। বিধানসভা ভোটের আগে আরজেডিতে যোগ দেন তিনি।

তাঁর কথায়, “জেডি(ইউ)-তে ৪৩ জন বিধায়ক রয়েছেন। দলত্যাগী বিধায়কেরা যাতে দলত্যাগ বিরোধী আইনের আওতায় না পড়েন, সে দিকে তাকিয়েই পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে। দলত্যাগে আগ্রহীদের আমরা জানিয়েছে, কমপক্ষে ২৮ জন বিধায়ক যদি আরজেডিতে যোগ দেন, তা হলে আইনের আওতায় পড়ার সম্ভাবনা থাকবে না। আমরা খুব শীঘ্রই এই সংখ্যায় পৌঁছে যাব”।

নীতীশ কুমারের দাবি

এ দিকে, বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার এ ধরনের দাবিকে প্রত্যাখ্যান করে “ভিত্তিহীন” আখ্যা দিয়েছেন।

এর আগে অরুণাচলপ্রদেশে দলের বিধায়করা গেরুয়াশিবিরে ভিড়লেও তিনি কোনো স্পষ্টবার্তা দেননি বিজেপিকে। জেডি(ইউ)-র জাতীয় কাউন্সিলের বৈঠকে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হবে বলেই তিনি সংক্ষিপ্ত ভাষণে জানিয়েছিলেন।

তবে সমানে সরব রয়েছেন তেজস্বী যাদবের দলের নেতারা। গত মঙ্গলবার এনডিএর সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করে নীতীশ কুমারের উদ্দেশে ‘মহাজোটে’ যোগ দেওয়ার আহ্বান জানান আরজেডি নেতা উদয়নারায়ণ চৌধুরী।

বিহার ভোট ২০২০-র সংক্ষিপ্ত ফলাফল

বিজেপি-৭৪, জেডিইউ-৪৩, আরজেডি-৭৫, কংগ্রেস-১৯, সিপিআই-এমএল-১২

আরও পড়তে পারেন: হিমঘরে জোটধর্ম! শরিক ছেঁটে একা চলার কৌশল বিজেপির?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.