নয়াদিল্লি: মানুষের লালসা ঠিক কতটা নীচে নামলে এ রকম কাণ্ড কেউ ঘটাতে পারে! নিজের দুই সন্তানের সামনেই দেড় বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠল এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ঘটনাটি বুধবার সকালের। প্রতিবেশীর বাড়িতে খেলতে গিয়েছিল দেড় বছরের এই শিশুকন্যাটি। প্রতিবেশী যুবক, বছর ৩৩-এর রাকেশের দুই সন্তান, চার বছরের ছেলে এবং দু’বছরের মেয়ের সঙ্গে খেলায় মগ্ন ছিল সে। এরই মধ্যে এক সময়ে রাকেশ তার স্ত্রীর ছাদে যাওয়ার সুযোগ নিয়ে ওই শিশুকন্যাটিকে ধর্ষণ করে। রাকেশের দুই সন্তানই ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী।

ঘন্টাখানেক বাদে নিজের বাড়ির দরজায় শিশুটিকে রক্তাক্ত অবস্থায় দেখতে পায় তার মা। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে ধর্ষণের প্রমাণ পাওয়া যায়। পুলিশকে জানাতে বিন্দুমাত্র দেরি করেনি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। শিশুটির শরীরে সফল ভাবে একটি অস্ত্রোপচার করা হয়। সে এখন বিপন্মুক্ত।

এ দিকে বৃহস্পতিবার রাতে রাকেশকে গ্রেফতার করে পুলিশ। জেরায় ধর্ষণের কথা স্বীকার করে নেয় সে। প্রতিবেশীদের জিজ্ঞাসাবাদ করে রাকেশকে ধরা সম্ভব হয়েছে, সাংবাদিকদের এমনই জানান দিল্লি ডেপুটি কমিশনার এমএন তিওয়ারি। দোষ প্রমাণিত হলে সাত বছরের জেল হতে পারে রাকেশের।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here