এখন সময় এসেছে…, বললেন সনিয়া গান্ধী, শুনলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, সীতারাম ইয়েচুরিরা

0

খবর অনলাইন ডেস্ক: বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলিকে ‘বাধ্যবাধকতার ঊর্ধ্বে উঠে’ জোটবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানালেন কংগ্রেস নেত্রী সনিয়া গান্ধী। শুক্রবার ১৯টি বিরোধী দলের নেতাদের সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠকে এমনই আহ্বান জানালেন তিনি।

কার্যত, ২০২৪ সালের লোকসভা ভোটকে পাখির চোখ করে এখন থেকেই পরিকল্পনামাফিক বিরোধীদের ঐক্যবদ্ধ করার কাজ শুরু করেছে কংগ্রেস। সূত্রের খবর, এ দিনের ভার্চুয়াল বৈঠকে তারই প্রস্তুতি শুরু করে দিলেন কংগ্রেস সভানেত্রী।

কী বললেন সনিয়া গান্ধী?

সনিয়া বলেন, শুধুমাত্র দলের জোটই বিজেপির উত্থাপিত চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে পারে। এক সঙ্গে কাজ করার কোনো বিকল্প নেই। তাঁর কথায়, “এটা একটা চ্যালেঞ্জ, কিন্তু আমরা এক সঙ্গে এটা করতে পারি এবং করতে হবে কারণ এক সঙ্গে কাজ করার কোনো বিকল্প নেই”।

বৈঠকে সনিয়া আরও বলেন, “আমাদের সকলেরই বাধ্যবাধকতা রয়েছে। কিন্তু স্পষ্টতই, এখন এমন এক সময় এসেছে, যখন আমাদের জাতির স্বার্থে সব কিছুর ঊর্ধ্বে উঠে আসতে হবে”।

তিনি বিরোধী দলগুলিকে বলেন, “আমাদের দেশকে এমন এক সরকার দিতে হবে, যে স্বাধীনতা আন্দোলনের মূল্যবোধ এবং আমাদের সংবিধানের নীতি এবং বিধানগুলিতে বিশ্বাসী। তেমন সরকার গঠনের একক উদ্দেশ্য নিয়েই পরিকল্পনা শুরু করে দিন”।

কারা এলেন, কারা এলেন না

এ দিনের এই ভার্চুয়াল বৈঠকে ১৯টি বিরোধী দলের নেতৃত্ব অংশ নেন। ছিলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, মহারাষ্ট্রের উদ্ধব ঠাকরে, তামিলনাড়ুর, এমকে স্টালিন। এঁরা ছাড়াও ছিলেন এনসিপি নেতা শরদ পওয়ার, আরজেডির তেজস্বী যাদব, সিপিএম নেতা সীতারাম ইয়েচুরি।

অন্য দিকে, বিএসপি নেত্রী মায়াবতীকে আমন্ত্রণ না জানানো হলেও ডাকা হয়েছিল এসপি নেতৃত্বকে। কিন্তু অখিলেশ যাদব বা দলের অন্য কোনো নেতাকে বৈঠকে অংশ নিতে দেখা যায়নি।

আবার আম আদমি পার্টির প্রধান এবং দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল, অকালি দলকেও অতিথি তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে।

সনিয়া-মমতা সমীকরণ

তবে তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে, তিন সপ্তাহের ব্যবধানে এই নিয়ে দু’বার সনিয়ার সঙ্গে বৈঠক করলেন মমতা। এর আগে ২০ জুলাই দিল্লিতে গিয়ে সনিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী। এ দিনের ভার্চুয়াল বৈঠকে ফের তাঁরা মুখোমুখি হলেন।

রাজনৈতিক মহলের মতে, সনিয়া গান্ধীর এ দিনের উদ্যোগের মানে হল ২০২৪ -এর আগে বিজেপির বিরুদ্ধে বিরোধীদের নেতৃত্ব দিতে কংগ্রেসের প্রস্তুতি। এ দিকে বিধানসভা ভোটে বিজেপি-কে রুখে দেওয়ার পর বিরোধী দলগুলিকে এক ছাতার তলায় নিয়ে আসার বার্তা আগেই দিয়েছেন মমতা। তৃণমূলের তরফে সারা দেশে তাঁকেই ‘মোদী-বিরোধী’ মুখ হিসেবে তুলে ধরার প্রচারও চলছে।

খবর অনলাইন-এ আজকের আরও কিছু উল্লেখযোগ্য খবর পড়তে পারেন এখানে:

২৩ আগস্ট গয়না ব্যবসায়ী সংগঠনের দেশজোড়া প্রতীকী ধর্মঘট

সুন্দরবনের কুলতলিতে এই প্রথম নতুন পদ্ধতিতে মাচায় মরশুমি সবজির চাষ

সংগীত শিল্পী পিলু ভট্টাচার্য প্রয়াত

হাইকোর্টের নির্দেশ পেয়েই ‘ভোট পরবর্তী হিংসা’ মামলার তদন্তভার নিল সিবিআই

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন