Connect with us

দেশ

ধর্ষণে বাধা দেওয়ায় মা-মেয়ের মাথা মুড়িয়ে দিল কাউন্সিলার ও তার দলবল

ওয়েবডেস্ক: প্রায় হাফডজন লোক নিয়ে ১৯ বছরের নববিবাহিত যুবতীকে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়। মেয়ের সম্মান বাঁচাতে রুখে দাঁড়ান ৪৯ বছর বয়সি মা। বাধা পেয়ে শাস্তি হিসাবে মা-মেয়ের মাথা মুড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল বিহারের বৈশালীতে। সেই ঘটনার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই নড়েচড়ে বসে পুলিশও।

পুলিশ জানায়, ওয়ার্ড কাউন্সিলরের নাম মহম্মদ খুরশিদ। তিনি ও তাঁর সঙ্গীরা ওই দুই মহিলাকে মারধর করেন, তাঁদের মাথা মুড়িয়ে দেওয়া হয়। এই ঘটনার একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়ে যাওয়ার পর বৃহস্পতিবার পুলিশের পক্ষ থেকে ওয়ার্ড কাউন্সিলর, একজন নাপিত-সহ ঘটনার সঙ্গে জড়িত আরও তিনজনকে গ্রেফতার করে।

ভগবানপুর থানার স্টেশন হাউস অফিসার (এসএইচও) সঞ্জয় কুমার ঘটনাটি নিশ্চিত করে বলেন, বিষয়টির তদন্ত চলছে। তিনি বলেন, প্রায় হাফ ডজন মানুষ নিগৃহীতাদের বাড়িতে ঢুকে পড়ে এবং মেয়েটিকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। মা তাঁর মেয়েকে উদ্ধার করার চেষ্টা করার পর, দু’জনের উপর শারীরিকভাবে হামলা চালানো হয়।

অভিযুক্তদের মধ্যে একজন তাঁদের কাঠের লাঠি দিয়ে মারধর করে, তাঁদের বাড়ির বাইরে নিয়ে যায় এবং একটি ‘পঞ্চায়েত’ রাখে ডাকে। খুরশিদ সেখানে একজন নাপিতকে ডাকতে বলেন এবং মা-মেয়ের মাথা মুড়িয়ে দেওয়ার নির্দেশ দেন। শেষে মা-মেয়েকে গ্রাম জুড়ে ঘোরানো হয়।

[ মা ও মেয়ের হেনস্থাকাণ্ডে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ ছিল কাউন্সিলারের ]

“প্রায় সাড়ে ছ-টা নাগাদ হাফ ডজন লোক অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে জোর করে আমার বাড়িতে ঢুকে পড়ে এবং আমাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। আমার মা আমাকে বাঁচানোর চেষ্টা করলে, তারা আমাদের মারতে লাগল”, জানিয়েছেন ওই তরুণী।

দেশ

‘১৫ কোটির টোপ’, বিতর্ক উসকে দিলেন রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গহলৌত

সরকার ফেলে দেওয়ার চেষ্টা করছে বিজেপি, এমন অভিযোগে মাসখানেক আগেই সরগরম হয়ে উঠেছিল রাজস্থান।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রাজস্থানের সরকার ফেলে দেওয়ার জন্য কংগ্রেসের বিধায়কদের ১৫ কোটি টাকার টোপ দিচ্ছে বিজেপি। বিতর্ক উসকে দিয়ে এমনই চাঞ্চল্যকর অভিযোগ করলেন রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গহলৌত।  

সরকার ফেলে দেওয়ার চেষ্টা করছে বিজেপি, এমন অভিযোগে মাসখানেক আগেই সরগরম হয়ে উঠেছিল রাজস্থান। তখন রাজ্যসভা ভোট ছিল। কংগ্রেস অভিযোগ করে, তাদের বিধায়কদের ভাঙিয়ে নিয়ে নিজেদের প্রার্থীকে জিতিয়ে রাজ্যসভায় পাঠাবে বিজেপি।

কিন্তু তখনকার মতো বিতর্কে জল ঢালা হয়ে যায়, যখন প্রত্যাশিত ভাবেই এই রাজ্য থেকে তিনটে রাজ্যসভা আসনের দু’টি জিতে নেয় কংগ্রেস। কিন্তু ফের সেই বিতর্ক উসকে দিলেন গহলৌত।

এ দিন গহলৌত বলেন, “রাজ্য সরকার যখন করোনার সঙ্গে লড়াই করার আপ্রাণ চেষ্টা করে চলেছে, সে সময় তাঁকে ক্রমাগত বিপাকে ফেলার চেষ্টা করে চলেছে বিজেপি।”

গহলৌত আরও বলেন, বিজেপি যে অসাংবিধানিক ভাবে সরকার ভাঙার চেষ্টা করে চলেছে তাতে পরের নির্বাচনে ওদের উচিত শিক্ষা হবে। দেশের মানুষ ওদের বুঝিয়ে দেবে। 

উল্লেখ্য, ২০০ আসনের রাজ্যস্থান বিধানসভায় কংগ্রেসের দখলে রয়েছে ১০৭ আসন। পাশাপাশি ১২ নির্দল বিধায়কের সমর্থন নিয়ে সরকার গঠন করেছে কংগ্রেস। এ ছাড়াও আরএলডি, সিপিআইএম, বিটিবির ৫ বিধায়কও গহলৌত সরকারকে সমর্থন করেছেন।

Continue Reading

দেশ

প্যাংগংয়ের ফিঙ্গার এলাকা থেকে সরছে চিন সেনা, উপগ্রহ চিত্রে মিলল প্রমাণ

খবরঅনলাইন ডেস্ক: গালোয়ান উপত্যকা থেকে আগেই সরতে শুরু করেছিল চিন সেনা। এ বার লাদাখের প্যাংগং সরকারের ফিঙ্গার এলাকা থেকেও আংশিক ভাবে চিন সেনা প্রত্যাহার করতে শুরু করল। উপগ্রহ চিত্রে এমনই প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে।

যে ছবিটা সংবাদমাধ্যমের হাতে এসেছে, সেটা ১০ জুলাইয়ের। সেখানেই চিন সেনার আংশিক ভাবে সরে যাওয়ার প্রমাণ মিলেছে। তবে এখনও চিন সেনার বেশ কয়েকটি তাঁবু সেখানে রয়েছে।

ফলে এখনও ভারতের মাটি থেকে চিন jযে সেনা পুরোপুরি প্রত্যাহার করেনি, সেটাও বোঝা যাচ্ছে। পাশাপাশি, ফিঙ্গার-৪ থেকে ১০ কিলোমিটার পূর্বে প্যাংগং লেকে এখনও চিনা জলযান ঘোরাফেরা করছে। তবে গালোয়ানের বিতর্কিত এলাকায় চিন সেনার আর কোনো অস্তিত্ব নেই।

উল্লেখ্য, গত মাসে তোলা উপগ্রহ চিত্রে দেখা যায়, প্যাংগংয়ের ফিঙ্গার ৪ এবং ফিঙ্গার ৫-এর মাঝে মান্দারিন লিপি ও চিনের মানচিত্র আঁকা রয়েছে। ওই চিত্রের দৈর্ঘ্য প্রায় ৮১ মিটার ও প্রস্থ ২৫ মিটার। ফলে তা স্যাটেলাইট থেকে স্পষ্ট দেখা গিয়েছে। শুধু তা-ই নয়, ওই দুই ফিঙ্গার পয়েন্টের মাঝে প্রচুর অস্থায়ী ছাউনি তৈরি করে ফেলেছে চিনা বাহিনী।

প্যাংগং লেক বরাবর ফিঙ্গার ১ থেকে ফিঙ্গার ৮ পর্যন্ত বরাবর টহল দিয়ে এসেছে ভারতীয় ফৌজ। তবে চিনের দাবি, ফিঙ্গার ৮ থেকে ফিঙ্গার ৪ পর্যন্ত তাদের এলাকা। ফলে এই এলাকা ঘিরেও দুই দেশের মধ্যে সংঘাত ক্রমশ বাড়ছিল।

গালোয়ানকে ঘিরে এমনিতেও সংঘাতের আবহ ছিলই। গত ১৫ জুন সেই সংঘাত রক্তক্ষয়ী হয়ে ওঠে যখন ভারত আর চিন সেনার সংঘর্ষে ভারতের ২০ জন সেনা জওয়ান প্রাণ হারান। ভারতীয় সেনার পালটা মারে চিন সেনারও ৪৩ জন নিহত হন বলে জানা গিয়েছে।

এর পরেই পরিস্থিতিতে শান্ত করতে রাজি হয় দুই দেশ। এই সপ্তাহের শুরুতেই চিনের বিদেশমন্ত্রীর সঙ্গে ঘণ্টা দুয়েক ধরে ফোনে কথা বলেন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল। তার পরেই গালোয়ান থেকে সেনা প্রত্যাহার করে বিতর্কিত এলাকার ২ কিমি দূরে চলে যায় চিন সেনা।

Continue Reading

দেশ

কোভিড-১৯ স্বাস্থ্য এবং অর্থনীতির সামনে শেষ একশো বছরের সব থেকে বড়ো সংকট: আরবিআই গভর্নর

‘এসবিআই ব্যাঙ্কিং অ্যান্ড ইকোনমিক্স কনক্লেভে’ ভিডিও কলের মাধ্যমে আলাপচারিতায় অংশ নেন গভর্নর

Shaktikanta Das

ওয়েবডেস্ক: কোভিড-১৯ (Covid-19) শেষ একশো বছরে স্বাস্থ্য ও অর্থনীতির সামনে সব থেকে বড়ো সংকট ডেকে নিয়ে এসেছে বলে মন্তব্য করলেন ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্কের (RBI) গভর্নর শক্তিকান্ত দাস (Shaktikanta Das)।

শনিবার দেশের বৃহত্তম রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক এসবিআই (SBI)-এর চেয়ারম্যান রজনীশ কুমারের (Rajnish Kumar) সঙ্গে আলাপচারিতার সময় গভর্নর এই মন্তব্য করেন। তিনি এ দিন ‘এসবিআই ব্যাঙ্কিং অ্যান্ড ইকোনমিক্স কনক্লেভে’ ভিডিও কলের মাধ্যমে এই আলাপচারিতায় অংশ নেন।

আরবিআই গভর্নরের আশঙ্কা, করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে চাহিদা ও সরবরাহ বিশাল ধাক্কা খেয়েছে। কয়েক মাস ধরে দেশব্যাপী লকডাউনের পরে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হওয়ার পথ ধরলেও ভারতীয় অর্থনীতির মধ্যমেয়াদি দৃষ্টিভঙ্গি অনিশ্চিত অবস্থার মধ্যেই রয়ে গিয়েছে।

আরবিআই গভর্নর বলেন, “কোভিড-১৯ মহামারি এক দিকে যেমন স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে প্রভাব ফেলেছে, তেমনই এই পরিস্থিতির জেরে সংকটে পড়েছে অর্থনীতিও। উৎপাদন থেকে শুরু করে কাজের উপরও খাড়া নেমে এসেছে। সব মিলিয়ে এই পরিস্থিতি শেষ একশো বছরে স্বাস্থ্য এবং অর্থনীতির কাছে সব থেকে বড়ো সংকটের চেহারা নিয়েছে”।

তিনি বলেন, “কোভিড-১৯ প্রাদুর্ভাব সারা বিশ্বে থাবা বসিয়েছে। যে কারণে বর্তমানে বিশ্বব্যাপীমান শৃঙ্খলা, শ্রম এবং মূলধন লেনদেন এবং সারা বিশ্বের বিশাল অংশের মানুষের আর্থ-সামাজিক অবস্থার উপর যে ব্যাপক প্রভাব ফেলেছে, তা বলাই বাহুল্য”।

সংকট কাটিয়ে উঠতে পদক্ষেপ

তাঁর কথায়, “কোভিড-১৯ মহামারি সম্ভবত আমাদের অর্থনীতি ও আর্থিক ব্যবস্থার দৃঢ়তা এবং স্থিতিস্থাপকতার বৃহত্তম পরীক্ষার মুখোমুখি দাঁড় করিয়ে দিয়েছে। এমন পরিস্থিতির মোকাবিলায় আমাদের আর্থিক ব্যবস্থা রক্ষা এবং বর্তমান সংকট কাটিয়ে ওঠার লক্ষ্যে প্রকৃত অর্থনীতির সমর্থনে গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি ঐতিহাসিক ব্যবস্থা নিয়েছে আরবিআই”।

আরবিআই গভর্নর বলেন, “কোভিড-১৯-এর নেতিবাচক অর্থনৈতিক প্রভাবের বিরুদ্ধে পাল্টা পদক্ষেপ নেওয়ার বিষয়ে ব্যাঙ্ক ও অন্যান্য আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলি শীর্ষস্থানে রয়েছে। এগুলি আরবিআইয়ের আর্থিক, নিয়ন্ত্রক এবং অন্যান্য নীতিগত পদক্ষেপের সম্মিলিত ফল। একই সঙ্গে বর্তমান পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠতে সরকার যে সমস্ত কার্যকরী পদক্ষেপ নিয়েছে তারও জোরালো প্রভাব রয়েছে”।

আরও পড়তে পারেন: ব্যাঙ্কগুলির কাছ থেকে করোনা রিপোর্ট চাইছে আরবিআই

Continue Reading
Advertisement
রাজ্য2 hours ago

অস্বস্তি থেকে স্বস্তি দিয়ে জোর বৃষ্টি কলকাতায়, চলবে আগামী কয়েক দিন

দেশ3 hours ago

‘১৫ কোটির টোপ’, বিতর্ক উসকে দিলেন রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গহলৌত

দেশ3 hours ago

প্যাংগংয়ের ফিঙ্গার এলাকা থেকে সরছে চিন সেনা, উপগ্রহ চিত্রে মিলল প্রমাণ

দুর্গা পার্বণ5 hours ago

আজও ভিয়েন বসিয়ে হরেক রকম মিষ্টি তৈরি হয় চুঁচড়ার আঢ্যবাড়ির দুর্গাপুজোয়

Shaktikanta Das
দেশ8 hours ago

কোভিড-১৯ স্বাস্থ্য এবং অর্থনীতির সামনে শেষ একশো বছরের সব থেকে বড়ো সংকট: আরবিআই গভর্নর

দেশ8 hours ago

করোনার চিকিৎসায় আরও এক ওষুধ ব্যবহারের অনুমতি মিলল

কলকাতা9 hours ago

সক্রিয় রোগীর নিরিখে এই মুহূর্তে কলকাতার অবস্থান কত নম্বরে?

দেশ10 hours ago

দৈনিক আক্রান্তে রেকর্ডের দিনই সুস্থতা ছাড়াল ৫ লক্ষ

কেনাকাটা

কেনাকাটা2 days ago

ঘরের একঘেয়েমি আর ভালো লাগছে না? ঘরে বসেই ঘরের দেওয়ালকে বানান অন্য রকম

খবরঅনলাইন ডেস্ক : একে লকডাউন তার ওপর ঘরে থাকার একঘেয়েমি। মনটাকে বিষাদে ভরিয়ে দিচ্ছে। ঘরের রদবদল করুন। জিনিসপত্র এ-দিক থেকে...

কেনাকাটা4 days ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিউ নর্মালে মাস্ক পরাটাই দস্তুর। তা সে ছোটো হোক বা বড়ো। বিরক্ত লাগলেও বড়োরা নিজেরাই নিজেদেরকে বোঝায়।...

কেনাকাটা5 days ago

রান্নাঘরের টুকিটাকি প্রয়োজনে এই ১০টি সামগ্রী খুবই কাজের

খবরঅনলাইন ডেস্ক : লকডাউনের মধ্যে আনলক হলেও খুব দরকার ছাড়া বাইরে না বেরোনোই ভালো। আর বাইরে বেরোলেও নিউ নর্মালের সব...

কেনাকাটা6 days ago

হ্যান্ড স্যানিটাইজারে ৩১ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

অনলাইনে খুচরো বিক্রেতা অ্যামাজন ক্রেতার চাহিদার কথা মাথায় রেখে ঢেলে সাজিয়েছে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের সম্ভার।

নজরে