২০১৬-১৭ শীতকালীন মরসুম ছিল ভারতের ইতিহাসে উষ্ণতম শীত, জানাল একটি সমীক্ষা

0
209

নয়াদিল্লি: গত বছর ডিসেম্বর থেকে এ বছর ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সে ভাবে শীতের দেখাই পায়নি শহর কলকাতা। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা বড়জোর দু’দিন এগারো ডিগ্রির কোঠায় পৌঁছেছিল। কিন্তু এটা কিন্তু কোনো বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয়। সারা দেশেই এ বার সে ভাবে শীত পড়েনি। একটি সমীক্ষায় জানা গিয়েছে, ভারতের ইতিহাসে উষ্ণতম শীতকাল ছিল এ বারের মরসুম।

সমীক্ষাটি করেছিল নয়াদিল্লির ‘সেন্টার ফর সায়েন্স অ্যান্ড এনভায়রনমেন্ট’। বিশ্ব পরিবেশ দিবসে প্রকাশ করা তাদের সমীক্ষার ফলে জানা গিয়েছে, সারা দেশে শীতের গড় স্বাভাবিক তাপমাত্রা থেকে ২.৯৫ ডিগ্রি বেশি ছিল এ বারের শীতের তাপমাত্রা।

১৯০১ থেকে ২০১৭ পর্যন্ত তাপমাত্রার তথ্য নিয়ে সমীক্ষা চালিয়েছিল এই সংস্থাটি। পৃথিবীর তাপমাত্রা যে দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে সে ব্যাপারেও জানায় সংস্থাটি। সমীক্ষায় বলা হয়েছে, “তাপমাত্রা যত বাড়ছে ততই বাড়ছে চরম আবহাওয়াজনিত ঘটনা। এ বছর শীতে সারা ভারতের তাপমাত্রা যখন গড় স্বাভাবিকের থেকে ২.৯৫ ডিগ্রি বেশি ছিল, ঠিক তখনই ভয়াবহ খরার সম্মুখীন হয়েছে দক্ষিণ ভারতের রাজ্যগুলি।”

সমীক্ষায় আরও বলা হয়েছে যে একবিংশ শতকের শুরু থেকে ভারতের গড় তাপমাত্রা স্বাভাবিকের থেকে বেড়েছে ১.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এই হারে তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেতে থাকলে খুব শীঘ্রই যে তাপমাত্রা বৃদ্ধি দেড় ডিগ্রি ছাড়িয়ে যাবে সে কথাও উল্লেখ করে সমীক্ষাটি।

প্যারিস চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্র সরে আসায় সারা বিশ্বের তাপমাত্রা আরও বাড়তে পারে বলে জানান ওই সংস্থার ডিরেক্টর জেনারেল সুনীতা নারায়ণ। তিনি বলেন, “প্যারিস চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্র বেরিয়ে যাওয়ার ফলে বিশ্বব্যাপী তাপমাত্রা বৃদ্ধি রোধ করা আরও কঠিন কাজ হয়ে দাঁড়িয়েছে।” তাঁর আবেদন এই তাপমাত্রা বৃদ্ধি আটকানোর জন্য দ্রুত পদক্ষেপ করুক দেশগুলি।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here