hiv

উন্নাও (উত্তরপ্রদেশ): একই সিরিঞ্জে একাধিক ব্যক্তির শরীরে ইনজেকশন দিয়েছিলেন এক হাতুড়ে ডাক্তার। এর পরেই অন্তত ২১ জনের শরীরে এইচআইভির জীবাণু মিলেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের উন্নাওয়ে।

কিছু দিন ধরেই উন্নয়াওয়ের অঞ্চলে এইচআইভি আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছিল। এই ব্যাপারে সঠিক তথ্য পাওয়ার জন্য তদন্তের নির্দেশ দেন উন্নাওয়ের চিফ মেডিক্যাল অফিসার ডঃ এসপি চৌধুরী। তাঁর কথায়, “এইচআইভি আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় দুই সদস্যের একটি কমিটি গঠন করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। উন্নাও জেলার বাঙ্গারমাউয়ের বিভিন্ন গ্রামে গিয়ে তদন্ত করে এই কমিটি।” এই কমিটির সমীক্ষা রিপোর্টের ভিত্তিতে ২৪ থেকে ২৭ জানুয়ারি বাঙ্গারমাউয়ের তিনটে জায়গায় মেডিক্যাল ক্যাম্পের আয়োজন করা হয়।

ডঃ চৌধুরীর কথায়, “ওই ক্যাম্পগুলিতে মোট ৫৬৬ জনকে পরীক্ষা করা হয়, যাদের মধ্যে ২১ জনের শরীরে এইচআইভি জীবাণু পাওয়া গয়েছিল।” তিনি বলেন, প্রতিবেশী গ্রামের হাতুড়ে ডাক্তার রাজেন্দ্র কুমার সস্তায় চিকিৎসার নামে একটা সিরিঞ্জেই বিভিন্ন ব্যক্তিকে ইনজেকশন দেয়। তাঁর কথায়, “এক সিরিঞ্জে অনেক ইনজেকশন দেওয়ার ফলের এত জনের শরীরে এইচআইভি জীবাণু মিলেছে।” কুমারের বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগ জানানো হয়েছে।

ইতিমধ্যে এইচআইভি আক্রান্ত রোগীদের কানপুরে অ্যান্টিরেট্রোভিয়াল থেরাপি (এআরটি) সেন্টারে পাঠানো হয়েছে। এই থেরাপির মাধ্যমে রোগীদের শরীর থেকে এইচআইভির জীবাণু মুছে দেওয়া যাবে। পাশাপাশি এই থেরাপির ফলে এইচআইভি আর ছড়িয়েও পড়বে না।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন