Connect with us

দেশ

একই সিরিঞ্জে ইনজেকশন, উত্তরপ্রদেশে ২১ জনের শরীরে মিলল এইচআইভি জীবাণু

উন্নাও (উত্তরপ্রদেশ): একই সিরিঞ্জে একাধিক ব্যক্তির শরীরে ইনজেকশন দিয়েছিলেন এক হাতুড়ে ডাক্তার। এর পরেই অন্তত ২১ জনের শরীরে এইচআইভির জীবাণু মিলেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের উন্নাওয়ে।

কিছু দিন ধরেই উন্নয়াওয়ের অঞ্চলে এইচআইভি আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছিল। এই ব্যাপারে সঠিক তথ্য পাওয়ার জন্য তদন্তের নির্দেশ দেন উন্নাওয়ের চিফ মেডিক্যাল অফিসার ডঃ এসপি চৌধুরী। তাঁর কথায়, “এইচআইভি আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় দুই সদস্যের একটি কমিটি গঠন করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। উন্নাও জেলার বাঙ্গারমাউয়ের বিভিন্ন গ্রামে গিয়ে তদন্ত করে এই কমিটি।” এই কমিটির সমীক্ষা রিপোর্টের ভিত্তিতে ২৪ থেকে ২৭ জানুয়ারি বাঙ্গারমাউয়ের তিনটে জায়গায় মেডিক্যাল ক্যাম্পের আয়োজন করা হয়।

ডঃ চৌধুরীর কথায়, “ওই ক্যাম্পগুলিতে মোট ৫৬৬ জনকে পরীক্ষা করা হয়, যাদের মধ্যে ২১ জনের শরীরে এইচআইভি জীবাণু পাওয়া গয়েছিল।” তিনি বলেন, প্রতিবেশী গ্রামের হাতুড়ে ডাক্তার রাজেন্দ্র কুমার সস্তায় চিকিৎসার নামে একটা সিরিঞ্জেই বিভিন্ন ব্যক্তিকে ইনজেকশন দেয়। তাঁর কথায়, “এক সিরিঞ্জে অনেক ইনজেকশন দেওয়ার ফলের এত জনের শরীরে এইচআইভি জীবাণু মিলেছে।” কুমারের বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগ জানানো হয়েছে।

ইতিমধ্যে এইচআইভি আক্রান্ত রোগীদের কানপুরে অ্যান্টিরেট্রোভিয়াল থেরাপি (এআরটি) সেন্টারে পাঠানো হয়েছে। এই থেরাপির মাধ্যমে রোগীদের শরীর থেকে এইচআইভির জীবাণু মুছে দেওয়া যাবে। পাশাপাশি এই থেরাপির ফলে এইচআইভি আর ছড়িয়েও পড়বে না।

দেশ

সশরীরে আদালতের শুনানি শুরু হোক জুলাইয়ে, সুপ্রিম কোর্টে জমা পড়ল আর্জি

নয়াদিল্লি: করোনাভাইরাস মহামারির জেরে ‘ভার্চুয়াল শুনানি’ চলছে দেশের বিভিন্ন আদালতে। মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টের কাছে একটি আর্জিতে আইনজীবীদের সংগঠন জানাল, ‘ব্যবহারিক অসুবিধা’র কারণে আগামী জুলাই থেকে ফের সশরীরে আদালতের শুনানি শুরু হোক।

কোভিড-১৯ মহামারির (Covid-19 pandemic) কারণে গত ২৫ মার্চ থেকে শুধুমাত্র ভিডিও কনফারেন্সের মধ্যেই নির্দিষ্ট কিছু মামলার শুনানি করছে সুপ্রিম কোর্ট। এ দিন সুপ্রিম কোর্ট অ্যাডভোকেটস-অন-রেকর্ড অ্যাসোসিয়েশন (SCAORA) একটি আবেদন পেশ করে সর্বোচ্চ আদালতে।

দেশের প্রধান বিচারপতি এবং সুপ্রিম কোর্টের অন্যান্য বিচারপতিকে উদ্দেশ্য করে আইনজীবী সংগঠন দাবি করে, প্রায় ৯৫ শতাংশ সদস্যের মতামত, “তাঁরা ভার্চুয়াল শুনানির সঙ্গে মানিয়ে নিতে পারছেন না”।

সংগঠন জানায়, “সদস্যদের সাধারণ মতামত থেকে ধারণা করা হচ্ছে, আইনজীবীরা ভার্চুয়াল মাধ্যমগুলিতে কার্যকর ভাবে তাঁদের মামলাগুলি উপস্থাপন করতে পারছেন না। অন্য দিকে ভার্চুয়াল শুনানিতে অসম্মতি জানাতেও পারছেন না আইনজীবীদের একটা বড়ো অংশ”।

চিঠিতে সংগঠনের সভাপতি শিবাজী এম যাদব জানিয়েছেন, “ভার্চুয়াল শুনানিতে (Virtual hearings) বেশ কিছু ‘ব্যবহারিক অসুবিধা’য় পড়েছেন কয়েক হাজার আইনজীবী। গ্রীষ্মের ছুটি শেষ হওয়ার পরই আগামী জুলাই মাস থেকে সশরীরে আদালতের শুনানি শুরু করা হোক। ঠিক যে ভাবে আনলক ওয়ান (Unlock 1)-এ একাধিক ক্ষেত্রে স্বাভাবিক কাজকর্ম শুরু করা হয়েছে”।

Continue Reading

দেশ

পিএম কেয়ারস তহবিলে কত টাকা জানাবে না কেন্দ্র, বলল হাইকোর্টে

ওয়েবডেস্ক: করোনাভাইরাস (Coronavirus) পরিস্থিতি সামাল দিতে কেন্দ্রের গঠিত ত্রাণ তহবিল ‘পিএম কেয়ারস’ (PM CARES)-এর বিরুদ্ধে জনস্বার্থ মামলাটি বাতিল করতে বলল কেন্দ্র। মঙ্গলবার বোম্বে হাইকোর্টে অতিরিক্ত সলিসিটার জেনারেল এই আবেদন জানান।

এ দিন বোম্বে হাইকোর্টের (Bombay High Court) নাগপুর বেঞ্চের কাছে অতিরিক্ত সলিসিটর জেনারেল অনিল সিং বলেন, তহবিল সংক্রান্ত তথ্য প্রকাশ করবে না কেন্দ্র। মামলাটি খারিজ করা হোক। আইনজীবী অরবিন্দ ওয়াঘমারে এই মামলাটি দায়ের করেছিলেন।

এর আগে আইনজীবী এম এল শর্মার একই ধরনের একটি আবেদনের শুনানি করে সুপ্রিম কোর্ট। যেটির শুনানির পর সুপ্রিম কোর্ট মামলাটি খারিজ করে দেয়। এই বিষয়টি নাগপুর বেঞ্চের বিচারপতি এসবি শুক্রে এবং এএস কিলোরকে অবহিত করেন সলিসিটর জেনারেল।

বেঞ্চ অবশ্য উল্লেখ করেছে, আবেদনের আগে বিভিন্ন ধরনের ত্রাণ চাওয়া হয়েছিল। কেন্দ্রীয় সরকারকে এই আবেদনের জবাবে দু’সপ্তাহের মধ্যে একটি হলফনামা দাখিল করার নির্দেশ দিয়েছে।

বেঞ্চ জানায়, “একটি হলফনামায় আপনার (কেন্দ্রীয় সরকারের) অবস্থান বর্ণনা করা হোক”।

ওয়াঘমারে আবেদনে জানিয়েছিলেন, পিএম কেয়ারস তহবিলে কত টাকা সংগ্রহ করা হয়েছে, সেখান থেকে কত টাকা ব্যয় করা হয়েছে, সে সব তথ্য ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হোক।

তহবিলটি চার জন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তৈরি ও পরিচালনা করছেন। ওয়াঘমারের আবেদনে বলা হয়, ওই তহবিলের পরিচালনায় বিরোধী দলের দুই জন প্রতিনিধিকে নিয়োগ অথবা নমিনি হিসাবে রাখা হোক। যাঁরা তহবিলের পরীক্ষা এবং স্বচ্ছতা বজায় রাখতে সক্ষম হবেন।

প্রসঙ্গত, করোনাভাইরাস মহামারির কারণে সংকট কাটিয়ে উঠতে এই ত্রাণ তহবিল গঠন করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)। এর আগেও ‘পিএম কেয়ারস’ নিয়ে তথ্যের অধিকার আইনে আর্জি খারিজ করে দিয়েছে সরকার।

Continue Reading

দেশ

ভয়ঙ্কর ভূমিধসে অসমে মৃত কমপক্ষে ২০, আহত অনেকে

গুয়াহাটি: দক্ষিণ অসমে (Assam) ভূমিধসে মাটি চাপা পড়ে মঙ্গলবার কম পক্ষে ২০ জনের মৃত্যু হল। আহত হয়েছেন আরও অনেকে। গত কয়েক দিন ধরে ভারী বর্ষণ হচ্ছিল অসমের বিভিন্ন এলাকায়। সে কারণেই এই ভয়ঙ্কর ভূমিধস (landslides) বলে জানা গিয়েছে।

স্থানীয় প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃত এবং আহতদের মধ্যে বেশির ভাগই অসমের বরাক উপত্যকা অঞ্চলের তিনটি জেলার বাসিন্দা। গত কয়েক দিন ধরে এই এলাকায় একনাগাড়ে বৃষ্টিপাত হচ্ছিল।

ঘটনার খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছোয় উদ্ধারকারী দল। জানা গিয়েছে, মৃতদের মধ্যে কাছার এবং হাইলাকান্দি জেলার সাত জন করে এবং করিমগঞ্জ জেলার ছ’জন বাসিন্দা। তবে এই ঘটনায় বহু মানুষ আহতও হয়েছেন বলে জানিয়েছে উদ্ধারকারী দলের প্রতিনিধিরা।

এমনিতে গত কয়েক দিনের লাগাতার বৃষ্টিতে বন্যার কবলে পড়েছেন অসমের ৩.৭২ লক্ষ মানুষ। গোয়ালপাড়া, নগাঁও এবং হোজাই জেলা ব্যাপক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বন্যার কবলে পড়ে।

Continue Reading

ট্রেন্ড্রিং