iit kanpur

কানপুর: প্রথম বর্ষের পড়ুয়াদের র‍্যাগিং-এর অভিযোগে দ্বিতীয় বর্ষের ২২ ছাত্রকে সাসপেন্ড করার সিদ্ধান্ত নিল আইআইটি কানপুর। দেশের প্রথম সারির এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ইতিহাসে যা প্রথম।

আইআইটির ডিরেক্টর ডঃ ইন্দ্রনীল মান্না এবং ডেপুটি ডিরেক্টর ডঃ মনীন্দ্র অগরওয়ালের উপস্থিতিতে সোমবার গভীর রাতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে আইআইটি-কানপুরের সেনেট। এই ২২ ছাত্রের মধ্যে ১৬ জনকে তিন বছরের জন্য এবং ছ’ জনকে এক বছরের জন্য সাসপেন্ড করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ওই ১৬ জন ছাত্রের বিরুদ্ধে অভিযোগ গুরুতর বলে তাদের শাস্তির মেয়াদ তিন বছর, এমনই জানিয়েছেন ডঃ মনীন্দ্র অগরওয়াল।

এই শাস্তির বিরুদ্ধে কোনো আবেদন করার সুযোগ নেই ছাত্রদের কাছে এমনই জানিয়েছে সেনেট। শাস্তির মেয়াদ শেষ করে ফের পুনরায় ভর্তি হতে পারবে ছাত্ররা। তবে কেরিয়ার নষ্ট হয়ে যেতে পারে, এই যুক্তি দিয়ে এই ছাত্রদের বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে কোনো মামলা করেনি আইআইটি।

ঘটনাটি ঘটেছিল জুলাইয়ে। প্রথম বর্ষে ভর্তি হওয়া ছাত্রদের অমানবিক র‍্যাগিং করেছিল দ্বিতীয় বর্ষের এই ছাত্ররা। গত আগস্টে সরকারি ভাবে আইআইটিতে অভিযোগ দায়ের করে ছাত্রদল। এই ঘটনার তদন্তকারী কমিটি অভিযুক্ত ছাত্রদের সাসপেন্ড করার প্রস্তাব দেয়। কমিটির সেই প্রস্তাবই মেনে নিয়েছে আইআইটি।

এই শাস্তি যে দৃষ্টান্তমূলক এবং ভবিষ্যতে পড়ুয়াদের কাছে কড়া বার্তা যাবে এমনই মনে করেন ডঃ অগরওয়াল।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here