বুন্দেলখণ্ড: মাথায় বন্দুকের নল ঠেকিয়ে বিয়ের আসর থেকে বরকে তুলে নিয়ে গেল ২৫ বছরের এক মহিলা। ওই মহিলার দাবি, বর ব্যক্তিটি তাঁকে ভালোবাসে। কিন্তু অন্য এক জনকে বিয়ে করতে এসেছে। সে তাঁকে ঠকিয়েছে। এটা সে কখনওই মেনে নেবে না। এর পরই সঙ্গে আনা দু’জন ব্যক্তির সাহায্যে এসইউভি গাড়িতে করে তুলে নিয়ে যায় বরকে।

ঘটনা মঙ্গলবার রাতের, উত্তরপ্রদেশের বুন্দেলখণ্ডে।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, বরের নাম অশোক যাদব। কয়েক মাস আগে কর্মক্ষেত্রে ওই অপহরণকারী মহিলার সঙ্গে পরিচয় হয় অশোকের। তার পর সম্পর্ক গড়ায় ভালোবাসায়। অনেকের মতে, এরা দু’জনে লুকিয়ে বিয়েও করে ফেলেছিল। কিন্তু অশোকের বাড়ির লোকের তাতে মত ছিল না। পরিবারের চাপে অশোক অন্য এক জন মেয়েকে বাধ্য হয়েই বিয়ে করতে আসে।

বরকে তুলে নিয়ে যাওয়ার পর পাত্রী ভারতী যাদব নিজের কপালকে দোষারোপ করতে শুরু করেন।

অশোকের বাবা রামহিত যাদব বলেন, তাঁর ছেলের নিশ্চয়ই কোনো গোপন ব্যাপার আছে। কারণ ছেলে কর্মসূত্রে যেখানে থাকে, সেখানে গেলে ছেলে কোনো দিনই তাঁকে বাড়িতে নিয়ে যায়নি। আশেপাশের কোনো মন্দিরে তাঁরা দেখা করতেন। এর পর কোনো খাবারের দোকানে খাইয়ে তাঁকে বিদায় করে দিত।

কনের বাড়ির পক্ষ থেকে বরের অপহরণের মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশের পক্ষ থেকে ন্যায়ের আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক পুলিশ কর্তা বলেছেন, এই ধরনের মেয়েরাই পারেন বিশ্বাসঘাতক ছেলেদের শায়েস্তা করতে।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন