সেনার নিয়োগ কর্মশালায় আবেদন আড়াই হাজার কাশ্মীরি যুবকের

army recruitment drive
কাশ্মীরি যুবকদের লাইন পড়েছে।

বারামুলা: পুলওয়ামায় সিআরপিএফ কনভয়ের ওপরে জইশ জঙ্গিদের হামলার পর অনেকেই দাবি করতে শুরু করেছেন কাশ্মীরকে বয়কট করার।

কাশ্মীরিদের ‘উচিত শিক্ষা’ দিতে বিভিন্ন প্রান্তে হেনস্থাও করা হচ্ছে কাশ্মীরিদের।

এই পরিস্থিতিতেই কাশ্মীরি যুবকরাই প্রমাণ করে দিলেন, তাঁরা শুধু ভারতকে ভালোবাসেন, এমনটাই নয়। ভারতকে সেবাও করতে চান।

বারামুলায় সেনার তরফ থেকে একটি নিয়োগ অভিযানের আয়োজন করা হয়েছিল। মাত্র ১১১টা ফাঁকা পদের জন্য সেখানে এসেছিলেন আড়াই হাজার কাশ্মীরি যুবক।

[আরও পড়ুন একের পর এক পশ্চিমী ঝঞ্ঝার জের, মার্চের শুরুতেও অনুভূত হবে শীত]

আড়াই হাজারের মধ্যে খুব কম যুবকই সেনায় কাজ করার সুযোগ পাবেন। কিন্তু এই সংখ্যায় রীতিমতো উচ্ছ্বসিত সেনাও।

শ্রীনগর থেকে ৭৫ কিমি দূরে উত্তর কাশ্মীরের বারামুলায় এই অভিযানে নাম লেখাতে আসা এক কাশ্মীরি যুবক বলেন, “সেনায় যোগদান করে দেশের সেবা তো করবই। সেই সঙ্গে নিজেদের পরিবারের দিকেও নজর দিতে পারব।”

আরও এক নিয়োগপ্রার্থী বলেন, “আমরা তো কাশ্মীরের বাইরে যেতে পারব না। এটা আমাদের কাছে একটা বড়ো সুযোগ। আমরা চাইব আরও বেশি ফাঁকা পদের ব্যবস্থা করে সেনা।”

কাশ্মীরের সংবেদনশীল জায়গায় কাশ্মীরিরা গেলে সেনারই আখেরে লাভ হবে জানান ওই যুবক।

এমনিতে কাশ্মীরে বেকারত্ব একটা বড়োসড়ো সমস্যা। কাশ্মীরি যুবকদের তাই সেনায় নাম লেখানোর ঝোঁক আরও বেশি বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.