দশ মাসের মধ্যে তিন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে হারাল দিল্লি

শুরুটা হয়েছিল মদনলাল খুরানাকে দিয়ে।

0

নয়াদিল্লি: ২০১৮-এর অক্টোবর থেকে ২০১৯-এর আগস্ট। মাত্র দশ মাসের মধ্যে তিন জন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে হারাল রাজধানী দিল্লি।

শুরুটা হয়েছিল মদনলাল খুরানাকে দিয়ে। ১৯৯৩ থেকে ১৯৯৬ সাল পর্যন্ত দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন তিনি। ১৯৯৬-এর পর মুখ্যমন্ত্রী না হলেও নিজের কেন্দ্র থেকে জিতে বিধায়ক হতেন তিনি। কিন্তু ২০০৩ সালে দিল্লির বিধানসভা ভোটে পরাজয়ের পর দিল্লি বিজেপির সভাপতির পদ থেকে ইস্তফা দেন এবং ২০০৪ সালে তাঁকে রাজস্থানের রাজ্যপাল করা হয়। রাজনীতি থেকে সরে আসার পর প্রায় গৃহবন্দি হয়ে গিয়েছিলেন। দিনকয়েক জ্বর এবং বুকের সংক্রমণ নিয়ে ভুগছিলেন খুরানা। দীর্ঘ রোগভোগের পর শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

আরও পড়ুন লাদাখ সিদ্ধান্তের বিরোধিতা? মানস সরোবরগামী এক দল তীর্থযাত্রীকে ভিসা দিল না চিন

এ বার ২০ জুলাই আবার দিল্লির রাজনীতিতে ইন্দ্রপতন। মারা গেলেন দিল্লির প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী শীলা দীক্ষিত। ১৯৯৮ সাল থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত একটানা পনেরো বছর ধরে রাজধানীর মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন। দিল্লির রূপকার আচমকাই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। তাঁর মৃত্যুর দু’ সপ্তাহের মধ্যে আবার নক্ষত্রপতন।

প্রাক্তন বিদেশমন্ত্রী বা বাজপেয়ী জমানার তথ্য ও সম্প্রচার এবং স্বাস্থ্য দফতরের মন্ত্রী হওয়ার আগে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী হয়েছিলেন সুষমা স্বরাজ। যদিও সময়কাল খুবই অল্প ছিল। ১৯৯৮-এর অক্টোবর থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত দায়িত্ব সামলেছেন তিনি। কিন্তু এরই মধ্যে ইতিহাস বইতেও নাম করে নিয়েছিলেন তিনি। দিল্লির প্রথম মহিলা মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে এখনও জ্বলজ্বল করবে সুষমারই নাম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.