Dog

ওয়েবডেস্ক: সপ্তাহের শুরু থেকে শেষ, বারংবার খবরের শিরোনামে উঠে এল রাস্তার কুকুর। না, কুকুর নিয়ে শিরোনাম হবে না, এমনটা দোহাই কোথাও দেওয়া নেই। কিন্তু একই সপ্তাহের মধ্যে জাতীয় সংবাদ মাধ্যমে উঠে আসা তিন-তিনটি কুকুর-কাহিনী বুঝিয়ে দিচ্ছে, আর যাই হোক মানুষের পথচলার শুরু থেকেই- ওরা আমাদেরই ‘লোক’!

প্রথম ঘটনা কলকাতার। এনআরএস হাসপাতালের মেটারনিটি বিভাগের কাছে জঞ্জালস্তূপের বস্তা থেকে রবিবার মৃত অবস্থায় উদ্ধার হয় ১৬টি কুকুরছানা। প্রাথমিক ভাবে অনুমান করা হয়েছিল, খাবারে বিষ মিশিয়ে তাদের হত্যা করা হয়েছে। কিন্তু এই ভিডিওটি পুরো ঘটনার মোড় ঘুরিয়ে দিয়েছে।

সরকারি হাসপাতালে নার্সিং পড়ুয়াদের হাতে নৃশংস ভাবে কুকুর হত্যা নিয়ে চাপান-উতোর এখনও সমান ভাবে অব্যাহত।

দ্বিতীয় ঘটনা বিহারের নবাদার একটি সরকারি হাসপাতালের। সেখানে হাসপাতালের রোগীদের জন্য নির্ধারিত বেডে বেমালুম শুয়ে ছিল বেশ কয়েকটি কুকুর। খবরের শিরোনামে উঠে আসে ওই ঘটনা রোগীদের বিক্ষোভে। তাঁদের দাবি, রোগীদের জন্য বেড দিতে পারছে না। সেই জায়গায় বেড দখল করে রেখেছে রাস্তার কুকুর।

শুধু তাই নয়, পাশের বেডের এক রোগী হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগে জানিয়েছেন, “আমরা এই শীতের সময় গায়ে দেওয়ার জন্য চাদর পাচ্ছি না। আর রাস্তার কুকুর অনায়াসেই তা দখল করে রেখেছে”।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ অবশ্য জানিয়েছেন, এ বিষয়ে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মীদের তলব করা হবে।

তৃতীয় ঘটনা মুম্বই টিনসেল টাউনের। রোহিত বলের ডিজাইনার পোশাকের ফ্যাসন শো-এ মানুষের নজর আর মন – দুই কেড়ে নিল একটি রাস্তার কুকুর। যে সময় ১৬টি কুকুর ছানাকে মেরে খবরের শিরোনামে উঠে এসেছে কলকাতা শহরের নামী হাসপাতাল। সেখানে একটি ফ্যাশন শোয়ের মতো জৌলুসের মঞ্চে একটি রাস্তার কুকুর। এ যেন অদ্ভুত বেমানান একটি ঘটনা। আশেপাশে কী ঘটছে তাতে মাথা ব্যথা নেই উভয় পক্ষেরই। সারমেয় মহাশয়ের তো কোনো মাথাব্যথা নেই বলেই তিনি বেমালুম একটি ফ্যাশন শো-এর মঞ্চে। অন্তত ভিডিও তো তাই বলছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here