arun jaitley corporate tax

নয়াদিল্লি: মাঝারি সাইজের এবং বিলাসবহুল তথা স্পোর্টস ইউলিটি ভেহিকলের দাম বাড়ল। শনিবার জিএসটি পরিষদ এ ধরনের গাড়ির ওপর অতিরিক্ত দুই থেকে সাত শতাংশ সেস বসানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে ছোটো বা হাইব্রিড গাড়ির ওপর কোনো সেস চাপান হয়নি।

এরই পাশাপাশি গেরস্থালির কাজে লাগে এমন ৩০টি পণ্যের ওপর পণ্য পরিষেবা কর কমানোর সিদ্ধান্ত করেছে জিএসটি পরিষদ। এর মধ্যে যেমন রয়েছে ইডলি-দোসা করার ব্যাটার, তেমনই নিয়ে রান্নাঘরে ব্যবহৃত গ্যাস লাইটার।

শনিবার জিএসটি পরিষদের বৈঠক বসে। আট ঘণ্টা ধরে বৈঠক চলার পর অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি বলেন, মাঝারি সাইজের গাড়ির ওপরে দুই, বড়ো সাইজের গাড়ির ওপরে পাঁচ এবং স্পোর্টস ইউলিটি ভেহিকলের ওপরে সাত শতাংশ অতিরিক্ত সেস বসানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। এর ফলে ওই সব গাড়ির দাম জিএসটি-পূর্ববর্তী আমলের সমান হবে। তবে ১২০০ সিসি পর্যন্ত ছোটো পেট্রল ও ডিজাল গাড়ি এবং হাইব্রিড গাড়ির ওপরে কোনো অতিরিক্ত কর না বসানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। কবে থেকে এই অতিরিক্ত কর চালু হবে তা পড়ে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানানো হবে।

জেটলি বলেন, “জিএসটি আমলে ছোটো পেট্রল ও ডিজাল গাড়ি ওপরে কর তিন শতাংশ কমেছে। এর ফলে গাড়ি যদি সস্তা হয়, তা হলে তার সুবিধা ক্রেতাসাধারণরাই নিক, এটাই চায় জিএসটি পরিষদ।

জেটলি বলেন, কর নির্ধারণের পর নানা অসংগতি নজরে আসার পর ৩০টি গেরস্থালির-পণ্যের ওপর পণ্য পরিষেবা কর কমানোর সিদ্ধান্ত  হয়েছে। শুকনো তেঁতুল, কাস্টার্ড পাউডার, খোল, ধূপবাতি, প্লাস্টিক রেনকোট, রাবার ব্যান্ড, কমপিউটার মনিটর, রান্নাঘরের গ্যাস লাইটার, ঝাড়ু ইত্যাদির ওপরে কর কমানো হয়েছে।

ব্র্যান্ডেড নয়, এমন খাদ্যসামগ্রী জিএসটি থেকে ছাড় পেয়েছে। ব্র্যান্ডেড আর প্যাকেজড্‌ খাদ্যসামগ্রীর ওপর পাঁচ শতাংশ হারে জিএসটি বসানো হয়েছে। তাই জিএসটি এড়ানোর জন্য অনেক ব্যবসাই তার ব্র্যান্ড ডি-রেজিস্ট্রি করে দিচ্ছে। তাই পরিষদ ঠিক করেছে, একটা ব্র্যান্ড নথিভুক্ত কিনা তা বিচার করার তারিখ ২০১৭-এর ১৫ মে। তাঁর পরে কোনো ব্যবসার ব্র্যান্ড ডি-রেজিস্ট্রি হলে তা হিসেবের মধ্যে ধরা হবে না।

এ দিকে জুলাই মাসের বিক্রির রিটার্ন দায়ের করার শেষ তারিখ বাড়িয়ে করা হয়েছে ১০ অক্টোবর।

 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here