৩১ হাজারের বেশি টেস্টে নতুন আক্রান্ত তিন হাজারের কিছু বেশি, রাজ্যে আরও কমল দৈনিক সংক্রমণের হার

0
coronavirus

খবরঅনলাইন ডেস্ক: এই প্রথম বার, রাজ্যে এক দিনে কোভিডে (Covid 19) আক্রান্ত হলেন তিন হাজারের কিছু বেশি মানুষ। এই প্রথম বার রাজ্যে এক দিনে ৩১ হাজারের বেশি নমুনা পরীক্ষা হল। ফলে আগের দিনের থেকে রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণের হার আরও কিছুটা কমেছে।

রাজ্যের কোভিড-তথ্য

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন ৩,০৩৫ জন। এর ফলে রাজ্যে এখন মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১ লক্ষ ১০ হাজার ৩৫৮। ৬০ জনের মৃত্যু হওয়ায় রাজ্যে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২,৩১৯। মৃত্যুহার রয়েছে ২.১০ শতাংশে।

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে সুস্থ হয়েছেন ২,৫৭২ জন। এর ফলে এখনও পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৮১,১৮৯ জন। রাজ্যে বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ২৬,৮৫০। রাজ্যে সুস্থতার হার বর্তমানে আরও কিছুটা বেড়ে ৭৩.৫৭ শতাংশ হয়েছে।

দৈনিক সংক্রমণের হার আরও কমল

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ৩১,৩১৭টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এই প্রথম রাজ্যে এক দিনে ৩১ হাজারের বেশি নমুনা পরীক্ষা হল। এর ফলে রাজ্যে মোট ১২ লক্ষ ৪৮ হাজার ২৭২টি নমুনা পরীক্ষা হল। রাজ্যে বর্তমানে প্রতি দশ লক্ষ মানুষে ১৩,৮৭০ জনের করোনা পরীক্ষা হচ্ছে।

প্রতি দিন যে সংখ্যক মানুষের পরীক্ষা হচ্ছে, তার মধ্যে যত শতাংশের কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ আসছে, সেটাকেই বলা হচ্ছে ‘পজিটিভিটি রেট’ বা সংক্রমণের হার। এ দিন রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণের হার নেমে এসেছে ৯.৬৯ শতাংশে।

রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণের হার বৃহস্পতিবার ছিল ৯.৯৭ শতাংশ। বুধবার ছিল ১০.৫৯ শতাংশ। মঙ্গলবার এটা ছিল ১০.৮৪ শতাংশ। সোমবার এটা ছিল ১১.০৭ শতাংশ।

কলকাতা ও পার্শ্ববর্তী জেলার পরিস্থিতি স্থিতিশীল

কলকাতা এবং পার্শ্ববর্তী চার জেলার কোভিড-পরিস্থিতি মোটের ওপরে একই রকম রয়ে গিয়েছে। অর্থাৎ গত আড়াই সপ্তাহ ধরে নতুন আক্রান্তের সংখ্যার যে প্রবণতা ধরা পড়ছে এই জেলাগুলিতে, তাতে বিশেষ বদল নেই।

গত ২৪ ঘণ্টায় কলকাতায় নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬১৫ জন। এর ফলে শহরে এখন মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩১,০৮৫। এই সময়ে ৬৩৫ জন সুস্থ হয়েছেন। এর ফলে শহরে এখন মোট সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা ২৩,৪৯২। মৃত্যু হয়েছে ১০৩৬ জনের। শহরে বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৬,৫৫৭ জন।

উত্তর ২৪ পরগণায় গত ২৪ ঘণ্টায় ৬০৬ জন আক্রান্ত হয়েছেন, সুস্থ হয়েছেন ৫৪৬ জন। দক্ষিণ ২৪ পরগণায় নতুন করে আক্রান্ত ২৫৪ জন। হাওড়া এবং হুগলিতে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ২১৮ আর ১৫১ জন।

পূর্ব মেদিনীপুরে এক দিনেই দুশো

টেস্ট বাড়তেই আক্রান্তের সংখ্যা উল্লেখযোগ্য ভাবে বাড়ছে দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলাগুলোতে। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা দু’শো পেরিয়ে গিয়েছে পূর্ব মেদিনীপুরে (২২৪)। এর পরে রয়েছে পূর্ব বর্ধমান (১০৮)।

নদিয়ায় ৯০ আর মুর্শিদাবাদে ৬৮ জন কোভিড পজিটিভ হয়েছেন। বাকি জেলাগুলিতে নতুন আক্রান্তের সংখ্যা পঞ্চাশের কম। তবে নতুন আক্রান্তের থেকে সুস্থ হওয়া মানুষের সংখ্যা বেশি হওয়ায় সক্রিয় রোগী কমেছে নদিয়া, বীরভূম আর পশ্চিম বর্ধমানে।

গত ২৪ ঘণ্টায় মুর্শিদাবাদ, পশ্চিম মেদিনীপুর আর পশ্চিম বর্ধমানে এক জন করে আর পূর্ব মেদিনীপুরে দু’জনের মৃত্যু হয়েছে।

কোচবিহারে প্রথম কোভিড-মৃত্যু

মৃত্যুহীন থাকার রেকর্ড ধরে রাখতে পারল না কোচবিহার। এই প্রথম এই জেলায় কোভিডে একজনের মৃত্যু হল। একই সঙ্গে এই জেলায় নতুন আক্রান্তের সংখ্যাও বেশ বেশি (৮৯)।

তবে এই সময়কালে সব থেকে বেশি আক্রান্তের সন্ধান মিলেছে দার্জিলিং থেকে (১০২)। এ ছাড়া দক্ষিণ দিনাজপুর (৭৮), জলপাইগুড়ি (৭২), মালদা (৫৮) আর উত্তর দিনাজপুর (৫২) থেকেও যথেষ্ট বেশি পরিমাণে কোভিড রোগীর সন্ধান মিলেছে।

উত্তরবঙ্গে গত ২৪ ঘণ্টায় মোট পাঁচ জনের মৃত্যু হয়েছে। কোচবিহার ছাড়াও এই মৃত্যুগুলি হয়েছে দার্জিলিং (২), জলপাইগুড়ি (১) আর দক্ষিণ দিনাজপুরে (১)।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন