ভুবনেশ্বর: রবিবার ওড়িশার কন্ধমাল (Kandhamal) জেলার গভীর জঙ্গলে নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে গুলির লড়াইয়ে মৃত্যু হল কমপক্ষে চার মাওবাদীর (Maoist)।

এক শীর্ষ পুলিশকর্তা জানান, স্পেশাল অপারেশন গ্রুপ (special operations group) এবং জেলা ভলান্টারি ফোর্স (DVF) যৌথ ভাবে চিরুণি তল্লাশি চালায়। গভীর জঙ্গলে মাওবাদীদের অবস্থানের কথা বিশেষ সূত্রে জানার পরেই এই অভিযান চলে।

কন্ধমাল জেলার ডিজিপি অভয় জানান, রবিবারই মাওবাদীদের সঙ্গে বাহিনীর গুলির লড়াই চলে। মাওবাদীদের ডেরার কাছাকাছি পৌঁছনোর পরই তারা এলোপাথাড়ি গুলি ছুড়তে শুরু করে। পাল্টা জবাব দেয় নিরাপত্তারক্ষী বাহিনী।

তিনি জানান, এখনও পর্যন্ত কমপক্ষে চার মাওবাদীর মৃত্যু নিশ্চিত করা হয়েছে। সঙ্গে পাওয়া গিয়েছে প্রচুর পরিমাণে আগ্নেয়াস্ত্র।

তারা স্থানীয় বাঁশধরা-নাগভেলি-ঘুমসুরা ডিভিসনে নিষিদ্ধ সিপিআই (মাওবাদী) সদস্য। একই সঙ্গে ডিজিপি জানান, গোটা এলাকায় চিরুণি তল্লাশি জারি রেখেছে বাহিনী।

ঘটনাস্থলে যান কন্ধমালের এসপি প্রতীক সিং। তিনি বলেন, এনকাউন্টারে নিহত মাওবাদীদের মধ্যে একজন মহিলা সদস্যও রয়েছেন।

এই ঘটনার পরই ওড়িশার মুখ্যসচিব একে ত্রিপাঠী সুরক্ষাবাহিনীর এই সাফল্যের প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, উগ্রপন্থীদের মোকাবিলায় ওড়িশা সরকার কতটা কার্যকরী পদক্ষেপ নিচ্ছে, এ দিনের ঘটনা তারই একটা প্রমাণ।

প্রসঙ্গত, এই সপ্তাহের শুরুতে, কন্ধমালের ফিরিঙ্গিয়া এলাকায় একটি মাওবাদীদের একটি শিবিরে হানা দেয় বাহিনী। সেখান থেকে প্রচুর পরিমাণে বিস্ফোরক উদ্ধার হয়।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন