pak soldier killed

ওয়েবডেস্ক: রমজান মাসের সংঘর্ষবিরতির পরে জঙ্গিদমন অভিযানে নেমে বড়োসড়ো সাফল্য পেল কাশ্মীর পুলিশ। সংঘর্ষে নিহত হয়েছে চার জন জঙ্গি। নিহতদের মধ্যে একজন কাশ্মীরের আইএসের প্রধান বলে জানা গিয়েছে।

এত দিন পর্যন্ত মূলত হিজবুল এবং লস্কর জঙ্গিগোষ্ঠীদের ডেরা ছিল কাশ্মীর। গত ফেব্রুয়ারিতে পুলিশ জানায় আইএসের মতো জঙ্গিগোষ্ঠীও ক্রমশ উপত্যকায় থাবা বসাতে শুরু করেছে।

শুক্রবারের সংঘর্ষে সেটাই প্রমাণিত হয়েছে। দক্ষিণ কাশ্মীরের অনন্তনাগ জেলায় একটি বাড়িতে আস্তানা গেড়েছিল জঙ্গিরা। স্থানীয় সূত্রে খবর, পুলিশ এবং জঙ্গিদের গুলির মাঝখানে পড়ে প্রাণ হারিয়েছেন বাড়ির মালিকও। সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে শ্রীনগর এবং অনন্তনাগে ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, রমজানের সময়ে সংঘর্ষবিরতি বন্ধ রাখা নিয়েই কাশ্মীর সরকারের দুই শরিকের মধ্যে মতবিরোধ তৈরি হয়। রমজান শেষ হয়ে যাওয়ার পর ফের জঙ্গি দমনের পথে যেতে চায় কেন্দ্র। এই বিষয়টি নিয়ে বিরোধ বাধে দুই শরিক বিজেপি ও পিডিপি-র মধ্যে। ভেঙে যায় রাজ্যের সরকার। জারি হয় রাষ্ট্রপতি শাসন। তবে সরকার ভেঙে যাওয়ার পরে রাজ্যের পুলিশ প্রধান সাফ জানিয়ে দিয়েছিলেন, এ বার থেকে জঙ্গিদের বিরুদ্ধে অভিযানের মাত্রা আরও বাড়ানো হবে।

পুলিশপ্রধানের সেই বক্তব্যের পরেই এদিনের এই সংঘর্ষ। মনে করা হচ্ছে, আইএস প্রধান নিহত হওয়ার ফলে রাজ্যে অন্তত আইএসের প্রভাব কমবে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here