swiss couple

ফতেপুর সিকরি: সুইস দম্পতিকে আক্রমণের ঘটনায় তিন নাবালক-সহ পাঁচ জনকে গ্রেফতার করল পুলিশ। রবিবার দুপুর দুষ্কৃতীদের হাতে আক্রান্ত হন সুইস দম্পতি কুইন্টিন জেরেমি ক্লার্ক এবং মারি দ্রোজ।

উত্তরপ্রদেশ পুলিশের ডিরেক্টর জেনারেল সুলখন সিংহ এই পাঁচ জনকে গ্রেফতার করার খবরের সত্যতা স্বীকার করেন। তিন জন নাবালকের মধ্যে এক জনকে রাজস্থান সীমান্তের কাছে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি চার জনকে বৃহস্পতিবার রাতে গ্রেফতার করা হয়। শুক্রবার ধৃতদের স্থানীয় আদালতে হাজির করা হবে।

ফতেপুর সিকরি থানার পুলিশ ইনচার্জ প্রদীপ কুমার বলেন, রবিবার দুপুরে ওই দম্পতি রেল লাইনের ওপর দিয়ে হাঁটছিলেন। তখনই তাদের পিছু নেয় কয়েক জন কিশোর, যাঁদের বয়স বারো থেকে চোদ্দোর মধ্যে। প্রথমে সেলফি তোলার দাবিতে তাঁদের কাছাকাছি আছে ওই কিশোররা। তার পর তাঁদের ওপরে আক্রমণ করা হয়। স্থানীয় চিকিৎসাকেন্দ্রে আক্রান্ত দম্পতির প্রাথমিক চিকিৎসা হলেও পরে তাঁদের দিল্লির এইমসে স্থানান্তরিত করা হয়।

মাথায় গুরুতর চোট ছিল কুইন্টনের, অন্য দিকে হাত ভেঙে যায় দ্রোজের।

ঘটনায় উদ্বিগ্ন পর্যটন মহল। বৃহস্পতিবারই উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের কাছে এই বিষয়ে রিপোর্ট চেয়ে পাঠান বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ এবং পর্যটনমন্ত্রী কেজে আলফোন্স। এই বিবৃতিতে আলফোন্স জানান, “এ রকম ঘটনার ফলে পর্যটনকেন্দ্র হিসেবে ভারতের ভাবমূর্তি বিশাল ধাক্কা খাবে।”

ঘটনার গুরুত্ব বুঝে আসরে নামেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীও। বৃহস্পতিবার তাজমহল দর্শন করার সময়ে তিনি এই হামলার নিন্দা করেন এবং অপরাধীরা যে ছাড়া পাবে না সে ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট সকলকে আশ্বস্ত করেন।