আক্রান্তের সংখ্যায় সাড়ে সাত হাজারি লাফ, সুস্থতার হার অপরিবর্তিত

0

খবর অনলাইনডেস্ক: ২৪ ঘণ্টায় বিচারে করোনা-আক্রান্তের সংখ্যায় সর্বোচ্চ বৃদ্ধি হল শুক্রবার। নতুন করে আক্রান্ত হলেন ৭,৪৬৬ জন। এর ফলে ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছে গেল ১ লক্ষ ৬৫ হাজার ৭৯৯-তে।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক (Ministry of Health and Family Welfare) এ দিন সকালে যে তথ্য প্রকাশ করেছে তাতে দেখা যাচ্ছে এই মুহূর্তে ভারতে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৮৯,৯৮৭। সুস্থ হয়েছেন, ৭১,১০৬ জন। মৃত্যু হয়েছে ৪,৭০৬ জনের।

Loading videos...

অর্থাৎ গত ২৪ ঘণ্টায় সস্থ হয়েছেন ৩,৪১৪ জন। মৃত্যু হয়েছে ১৭৫ জনের। মৃতের সংখ্যায় চিনকে পেরোলেও, ভারতে মৃত্যুহার কিন্তু অন্য সব দেশের থেকে কম। এই মুহূর্তে দেশে মৃত্যুহার কমে হয়েছে ২.৮৩ শতাংশ।

তবে সুস্থতার হার কিন্তু অপরিবর্তিত। শুক্রবার সকালের পরিসংখ্যানের পর দেখা গিয়েছে যে এই মুহূর্তে ভারতে সুস্থতার হার ৪২.৮ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যায় একটা বড়ো ‘লাফ’ দেখা গিয়েছে দিল্লিতে (Delhi)। সেখানে আক্রান্ত হয়েছেন ১০২৪ জন। অর্থাৎ এই প্রথম দিল্লিতে এক দিনে এক হাজারের বেশি মানুষ করোনায় (Coronavirus) আক্রান্ত হয়েছেন।

অন্য দিকে কেরলেও আক্রান্তের সংখ্যা এক হাজার ছাড়িয়েছে। গত কয়েক দিনে আচমকা বাড়তে শুরু করেছে কেরলে করোনা-আক্রান্তের সংখ্যা। এটা যে বিদেশ এবং বাইরের রাজ্যের থেকে মানুষদের কেরলে ফিরে আসার ফলে হচ্ছে, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

গত কয়েক দিনে আক্রান্তের সংখ্যা এ ভাবে বেড়ে যাওয়ার কারণ কিন্তু অভিবাসী শ্রমিক এবং দেশের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে মানুষের চলাচল। এই কারণেই আগামী দিনে আক্রান্তের সংখ্যায় যে বড়োসড়ো বৃদ্ধি আসবে, তা বলাই বাহুল্য।

করোনাভাইরাস যে মারণ ভাইরাস নয়, সেটা কিন্তু কম মৃত্যুহারই বুঝিয়ে দিচ্ছে। ফলে অযথা আতঙ্কিত হবেন না। সতর্ক থাকুন। সমস্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। রাস্তায় বেরোলে মাস্ক পরতে আর অন্যের থেকে শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখতে ভুলবেন না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.