আটটি দলে কাজ করবেন ৭৭ জন মন্ত্রী, সরকারি কাজে দক্ষতা ও স্বচ্ছতা আনতে বড়ো পরিকল্পনা নরেন্দ্র মোদীর

0
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ফাইল ছবি

নয়াদিল্লি: সরকারি কাজে দক্ষতা ও স্বচ্ছতা আনতে বড়ো পরিকল্পনা নিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। মন্ত্রীসভার ৭৭ জন সদস্যকে তিনি ৮টি দলে ভাগ করে দিয়ে প্রযুক্তি ভিত্তিক উন্নয়ন পরিকল্পনা তৈরির নির্দেশ দিলেন। এই কাজে সাহায্যের জন্য দক্ষ ব্যক্তিদের নিয়োগ করার পরামর্শও দেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে সরকারি সূত্রে।

সরকারের কাজকে কী ভাবে আরও উন্নত ও গতিশীল করা যায়, তা নিয়ে নিয়মিতই মন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে বসছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এই বৈঠকগুলির নাম দেওয়া হয়েছিল চিন্তন শিবির। প্রায় পাঁচ ঘণ্টা ধরে চলে এই বৈঠকগুলি।

এই বৈঠকগুলিতে একদিকে প্রধানমন্ত্রী যেমন আনা চিন্তা ভাবনা মন্ত্রীদের সঙ্গে ভাগ করে নিতেন, তেমনই তাদেরও নিজেদের মন্ত্রকের কাজে উন্নয়নের জন্য নানা পরিকল্পনা পেশ করার নির্দেশ দিতেন। এখনও অবধি মোট পাঁচটি বৈঠক হয়েছে।

সরকারি সূত্রের খবর, মোদী সরকারের দক্ষতা ও কার্যকারিতা আরও ভালো করতেই এই চিন্তন শিবিরের আয়োজন করা হয়েছিল। শেষ বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী ৭৭ জন মন্ত্রীকে ৮টি দলে ভাগ করে দিয়েছেন, যাতে তারা মিলিতভাবে চিন্তাভাবনা করে এবং একে অপরের কথা শোনে।

প্রত্যেকটি দলে ৯ থেকে ১০ জন করে মন্ত্রী রয়েছেন। দলের সমন্বয়কারী হিসাবে একজন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি, প্রত্যেকটি দলকে তিনজন তরুণ পেশাদারকে নিয়োগ করতে বলা হয়েছে, যারা যোগাযোগ, গবেষণা-সহ অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলিতে দক্ষ।

আরেকটি দলকে অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মচারীদের অভিজ্ঞতা ও মতামত নিয়ে একটি পোর্টাল তৈরির কাজ দেওয়া হয়েছে। আটটি দলের প্রধানের ভূমিকায় দায়িত্ব পেয়েছেন হরদীপ সিং পুরী, নরেন্দ্র সিংহ তোমর, পীযূষ গোয়েল, ধর্মেন্দ্র প্রধান, স্মৃতি ইরানি ও অনুরাগ ঠাকুর।

আরও পরতে পারেন

পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূলের ক্ষমতায় আসার পিছনে কংগ্রেসের কি কোনো অবদান নেই, প্রশ্ন অধীররঞ্জন চৌধুরীর

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন