rajasthan

ওয়েবডেস্ক: তাঁর প্রচুর সম্পত্তি, কিন্তু তাঁর অনুপস্থিতিতে দেখভাল করার কেউ নেই। সম্পত্তির উত্তরাধিকারী হিসেবে চাই একটা ছেলে। সেই ছেলের আশাতেই নিজের স্ত্রী-এর সম্মতিতেই দ্বিতীয় বার বিয়ে করলেন এক বৃদ্ধ। যাঁকে বিয়ে করলেন তিনি ৩০ বছর বয়সি এক তরুণী।

আজব এই ঘটনাটি ঘটেছে রাজস্থানের করৌলিতে। গোটা ঘটনাকে অপরাধের চোখেই দেখছে পুলিশ। কারণ প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদ করেননি ওই বৃদ্ধ। বরং সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে নিজের স্বামীর বিয়ে দিয়েছেন প্রথম স্ত্রী ওই বৃদ্ধা।

বৃদ্ধ সুখরাম বৈরভের বিয়ে দেখতে আশেপাশের বারোটি গ্রাম থেকে নিমন্ত্রিতরা এসেছিলেন। শুধুমাত্র ছেলের আশাতেই যে এই দ্বিতীয় বিয়ে তিনি করেছেন সে কথা কোনো রাখঢাক না রেখেই বলে দেন সুখরাম।

মাত্র কুড়ি বছর বয়সে বিরল রোগে মৃত্যু হয় সুখরামের একমাত্র ছেলের। তার পর থেকেই চিন্তা বাড়ে সুখরামের। কে তাঁর সম্পত্তির রক্ষণাবেক্ষণ করবে সেই চিন্তাই ক্রমশ গ্রাস করে তাঁকে। এই পরিস্থিতিতে মুশকিল আসান বাতলে দেন তাঁর প্রথম স্ত্রী বাট্টোদেবী। তাঁর পরামর্শেই দ্বিতীয় বার বিয়েতে রাজি হয়ে যান সুখরাম। সুখরাম এবং বাট্টোদেবীর দুই মেয়ে রয়েছে, তাঁরা বিবাহিতা।

এটাকে বহুবিবাহের ঘটনা হিসেবেই দেখছে প্রশাসন এবং আইন অনুযায়ী তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ারও চিন্তাভাবনা শুরু হয়েছে। সব তথ্য প্রমাণ হাতে পেলে সুখরামকে গ্রেফতার করা হতে পারে বলে আশ্বাস দেওয়া হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here