৭ কেজি প্লাস্টিক-আবর্জনা খেয়ে অঘোরে প্রাণ গেল বন্য হরিণের

0
Deer Dies

ওয়েবডেস্ক: প্লাস্টিকের ব্যাগ এবং অন্যান্য আবর্জনা মিলে প্রায় ৭ কেজি ওজনের বর্জ্য খেয়ে মারা গেল একটি বন্য হরিণ। থাইল্যান্ডের এই ঘটনার পরই সরকারি আধিকারিক এবং পরিবেশকর্মীরা দাবি করেছেন, বন এবং সমুদ্রের জলে কী ভাবে প্লাস্টিক আবর্জনা বাড়ছে, তা এই ঘটনাই চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিল।

এমনিতে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার এই দেশটি বিশ্বের প্লাস্টিক পণ্যের অন্যতম ব্যবহারকারী হিসাবে পরিচিত। মুদিখানা দ্রব্য, রাস্তার খাবার বা কফি শপে কয়েক হাজার একক ব্যবহার্য প্লাস্টিক ব্যাগ ব্যবহৃত হয়।

এর আগে সামুদ্রিক কচ্ছপ এবং বৃহৎ স্তন্যপায়ী উদ্ভিদভোজী সামুদ্রিক প্রাণীবিশেষ ডুগংয়ের মৃত্যু নিয়ে জোরালো বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছিল। মৃত প্রাণীগুলির পাকস্থলী থেকে প্লাস্টিক উদ্ধার করা হয়। তাদের মৃত্যুরও কারণ যে ওই প্লাস্টিক, এমন তথ্যের স্বপক্ষে প্রমাণও মিলেছিল। এ বার শিকার বনের পশুও।

আধিকারিকরা জানিয়েছেন, রাজধানী ব্যাঙ্কক থেকে প্রায় ৬৩০ কিমি দূরে নান এলাকার জাতীয় উদ্যানে ওই ১০ বছরের হরিণটির মৃত্যু হয়।

খুন সাথান সংরক্ষিত এলাকার ওই জাতীয় উদ্যানের ডিরেক্টর ক্রিয়াংসক থানমপুন জানিয়েছেন, মৃত্যুর পর হরিণটির ময়নাতদন্ত করা হয়। দেখা যায়, তার পেট থেকে প্রায় ৭ কেজি ওজনের প্লাস্টিকের ব্যাগ এবং অন্যান্য আবর্জনা উদ্ধার করা হয়।

উদ্ধারকৃত প্লাস্টিক ব্যাগগুলি ব্যবহৃত হয়েছিল, কফি বা নুডলস প্যাকেজিংয়ে লেগেছিল। এ ছাড়া তোয়ালে এবং অন্তর্বাসের ছেঁড়া অংশ বিশেষও পাওয়া গিয়েছে মৃত হরিণটির পেট থেকে।

ক্রিয়াংসক বলেছেন, কচ্ছপ এবং ডুডংয়ের মৃত্যুর পর কতকটা একই ভাবে এই হরিণের মৃত্যু আরও একটি বেদনাদায়ক ঘটনার নজির হয়ে রইল। এখনই সতর্ক হওয়া প্রয়োজন।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.