শ্রীনগর : অমরনাথের তীর্থযাত্রীদের ওপর হামলার মূল চক্রী মহম্মদ আবু ইসমাইল-সহ চার জঙ্গির খোঁজে ব্যাপক তল্লাশি চালাচ্ছে সেনাবাহিনী। প্রাথমিক ভাবে মনে করা হচ্ছে, সোমবার অমরনাথের তীর্থযাত্রীদের ওপর হামলার পরিকল্পনা করেছিল আবু। ওর সঙ্গে ছিল আরও তিন জঙ্গি। এদের মধ্যে এক জন পাকিস্তানি ও দু’ জন স্থানীয়। এই হামলায় প্রাণ হারান সাত জন তীর্থযাত্রী। সূত্রের খবর, দক্ষিণ কাশ্মীরে লস্কর-ই-তৈবার প্রধান হল এই আবু ইসমাইল। বছর ২৬-এর আবু পাকিস্তানের নাগরিক, দু’ বছর আগে পাক সীমান্ত পেরিয়ে এ দেশে অনুপ্রবেশ করে। তবে এই হামলার জন্য লস্কর-ই-তৈবা দায় স্বীকার করেনি।

এই দিনের জঙ্গি হামলার বিষয়ে তদন্ত এখনও জারি আছে। জম্মু-কাশ্মীর পুলিশ প্রাথমিক ভাবে মনে করছে, এই হামলায় হাত রয়েছে লস্কর-ই-তৈবা জঙ্গি গোষ্ঠীর। তদন্তের নানা তথ্য একত্রিত করে এটাই সামনে আসছে, আবুই এই হামলার পরিকল্পনা করেছে।

সূত্র জানাচ্ছে, সেনাঘাঁটি থেকে ২০০ মিটারের মধ্যে প্রায় ১০০টা খালি কার্তুজের খোল পাওয়া গেছে। এর থেকে মনে করা হচ্ছে, এই হামলা চালানোর জন্য জঙ্গিরা ভালো ভাবেই প্রস্তুত ছিল। তদন্তকারীরা জানাচ্ছেন, হামলাকারীরা দু’টি মোটর সাইকেলে চড়ে ঘটনাস্থলে আসে।

সূত্র জানাচ্ছে, এই এলাকায় সন্ত্রাসবাদী কাজকর্ম করা হয় বিচ্ছিন্ন ভাবে। সে ক্ষেত্রে এমনও হতে পারে, স্থানীয় সন্ত্রাসবাদীরাই নিজেদের মতো করে বিচ্ছিন্ন ভাবে এই হামলা চালিয়েছে।

জম্মু-কাশ্মীর পুলিশ বলেছে, অমরনাথ হামলা সাম্প্রতিক সময়ের সব চেয়ে জঘন্য একটা ঘটনা। সোমবার দক্ষিণ কাশ্মীরের অনন্তনাগের লস্কর-প্রধান সন্দীপ কুমার শর্মার গ্রেফতারের খবর ঘোষণা করার পরই বদলা নিতে সন্ত্রাসবাদীরা এই হামলা করেছে বলে মনে করছে পুলিশ।

প্রসঙ্গত এই সন্দীপ শর্মা হল উত্তরপ্রদেশের মুজফফরনগরের বাসিন্দা। বয়স ৩৬। বছর পাঁচেক আগে লস্কর গোষ্ঠীতে যোগ দেয় সন্দীপ। ১ জুলাই একটি অভিযানে মৃত বসির লস্করির কাছের লোক এই সন্দীপ শর্মা। কাজিগুন্দের জঙ্গি হামলাতেও জড়িত এই সন্ত্রাসবাদী। উল্লেখ্য, সেই হামলায় ছ’ জন পুলিশকর্মী নিহত হয়েছিলেন।

জম্মু-কাশ্মীরের উপমুখ্যমন্ত্রী নির্মল সিংহ বলেন, সূর্যাস্তের পর এ দিন তীর্থযাত্রীবোঝাই বাস কী ভাবে ‘সিকিউরিটি চেকপোস্ট’ পার হওয়ার অনুমতি পেল সেই বিষয়টা এখনও স্পষ্ট নয়। এই বিষয়ে তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কারণ এই সময়ে পুলিশকর্মীরা সেখানে উপস্থিত থাকেন না। ক্যাম্পে ফিরে যান।

উল্লেখ্য, গোয়েন্দা সংস্থার পক্ষ থেকে অনেক আগেই এই ব্যাপারে সাবধান করা হয়েছিল। জানানো হয়েছিল, লস্কর গোষ্ঠী তীর্থযাত্রীদের ওপর হামলা করতে পারে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন